Home /News /purba-bardhaman /
East Bardhaman News: জোচ্চুরির একটা সীমা থাকে, ছেলের চাকরির জন্য যা পরিণতি হল বৃদ্ধের, অবিশ্বাস্য!

East Bardhaman News: জোচ্চুরির একটা সীমা থাকে, ছেলের চাকরির জন্য যা পরিণতি হল বৃদ্ধের, অবিশ্বাস্য!

অসহায় বৃদ্ধ

অসহায় বৃদ্ধ

East Bardhaman News: জানা গিয়েছে, সুব্রত বাবুর দেশের বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানা অন্তর্গত মাসিলা গ্রাম। বর্তমানে উত্তর বিধানসভার রায়ান পঞ্চায়েতের নারী বেল বাগান এলাকায় বসবাস করছেন তিনি।

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান: চাকরি দেওয়ার নাম করে দু লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছেন বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টের কর্মী। এ নিয়ে বর্ধমান থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ৭০ বছরের প্রতারিত সুব্রত কুমার সরকার, পেশায় কৃষক । জানা গিয়েছে, সুব্রত বাবুর দেশের বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানা অন্তর্গত মাসিলা গ্রাম। বর্তমানে উত্তর বিধানসভার রায়ান পঞ্চায়েতের নারী বেল বাগান এলাকায় বসবাস করছেন তিনি। কার্যত গ্রামের বাড়ির প্রতিবেশী সুবাদে ভক্ত মণ্ডল সুব্রত বাবুকে বলেন দু লক্ষ দিলে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁর ছেলের চাকরি করে দেবেন। চাকরির আশায় চার কাঠা জমি বিক্রি করে দু লক্ষ টাকা দেন তিনি। কিন্ত কয়েক মাস পেরিয়ে যাওয়ার পর কোনও খবর না পেয়ে তাঁর কাছে গেলে ৫০০০০ পঞ্চাশ হাজার টাকার চেক দিয়ে ভক্ত মণ্ডল বলেন, ধীরে ধীরে টাকা শোধ করে দেবেন তিনি।

    আরও পড়ুন: জুমলাবাজি, শকুনি, স্বৈরাচারী...'অসংসদীয় শব্দ' বাছল মোদি সরকার! তুমুল বিতর্ক

    এরপরই সুব্রত বাবু ব্যাঙ্কে গিয়ে দেখেন তাঁর একাউন্টে কোনও টাকা নেই। প্রতারিত অসহায় সুব্রত সরকার আবারও ভক্ত মণ্ডলের কাছে যান। কিন্ত তাকে কু কথা বলে বিতাড়িত করেন বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিযুক্ত কর্মী ভক্ত। এছাড়াও হুমকি দেন এই বলে, যে কি প্রমাণ আছে আমি আপনার কাছে টাকা নিয়েছি। এই অবস্থায় বৃদ্ধ সুব্রত কুমার সরকার বর্ধমান থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

    আরও পড়ুন: প্রথম দিনই চমক, যাত্রীদের জন্য বিশেষ উপহার! যাত্রা শুরুর শিয়ালদহ মেট্রোর, চোখ ধাঁধানো ছবি...

    সুব্রত সরকার বলেন, ছোট বেলা থেকে ভক্তকে চেনেন। ভক্ত বাবু এমন ঠগ্ হবেন তিনি বুঝতেই পারেননি। ছেলের চাকরি করে দেবে বলে ভক্ত বাবু তাঁর কাছ থেকে দু লক্ষ টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ। তবে এখন টাকা দেওয়া তো দুরস্থ হুমকি দিচ্ছেন তিনি। এখন টাকা ফেরৎ পেলে তিনি খুবই উপকৃত হবেন বলেও জানান। বর্ধমান পুলিশ প্রশাসন কি পদক্ষেপ গ্রহণ করছে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সেদিকে তাকিয়ে বৃদ্ধ কৃষক সুব্রত বাবু। --মালবিকা বিশ্বাস

    First published:

    Tags: Purba bardhaman, West Bengal news

    পরবর্তী খবর