Home /News /purba-bardhaman /
Purba Bardhaman: ধানের সরকারি সহায়ক মূল্য কুইন্টাল প্রতি বাড়ানোর আবেদন চাষীদের

Purba Bardhaman: ধানের সরকারি সহায়ক মূল্য কুইন্টাল প্রতি বাড়ানোর আবেদন চাষীদের

পেট্রোপন্যের মূল্য বৃদ্ধির জেরে চাষের খরচ হচ্ছে দ্বিগুন। তাই ধানের সরকারি সহায়ক মূল্য বাড়ানোর আবেদন পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসি এলাকার চাষিদের একাংশের।

  • Share this:

    পূর্ব বর্ধমান : পেট্রোপন্যের মূল্য বৃদ্ধির জেরে চাষের খরচ হচ্ছে দ্বিগুন। তাই ধানের সরকারি সহায়ক মূল্য বাড়ানোর আবেদন পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসি এলাকার চাষিদের একাংশের। মে মাস শুরু থেকেই প্রতিদিনই জেলার কোথাও না কোথাও বৃষ্টি হচ্ছেই। তাতে তাপমাত্রা নিন্মমুখী হলেও ক্ষতি হয়েছে ধান চাষিদের। সপ্তাহ দুয়েক আগে শুরু হয়েছে পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসি এলাকায় ধান কাটার কাজ। পাকা ধানে নিত্য বৃষ্টি হওয়ায় ধান কাটা ও মাড়াইয়ে চাষীদের দ্বিগুণ টাকা খরচ করতে হচ্ছে। চাষীদের কথায়, বৃষ্টির জন্য মাঠে মেশিন ছাড়া ধান কাটা সম্ভব নয়। তাছাড়াও মেশিনে কাটা ধান মাঠের কাদা পেরিয়ে বাড়িতে আনার খরচ দ্বিগুণ।

    আরও পড়ুনঃ East Bardhaman News: বাড়ি থেকে বেরোলেই বিপদ! এ কী হচ্ছে কালনায়!

    এমন অবস্থায় ধানের সহায়ক মুল্য কুইন্টাল প্রতি দু’তিন শ টাকা বাড়ানোর আবেদন চাষীদের। মাঠ থেকে ধান তুলে খামারে আনতে হলে, আটশ থেকে এক হাজার টাকা ট্রলি ভাড়া দিয়ে ধান খামারে আনতে হচ্ছে। ফলে খরচ দ্বিগুন হয়ে গেছে। তাই সরকার যদি ধানের সহায়ক মূল্যে কুইন্টাল প্রতি দু থেকে তিন'শ টাকা বাড়ায় তাহলে চাষীরা উপকৃত হবেন। স্থানীয় চাষী আব্দুল আলিম মল্লিক ও সেখ মেহেবুব আলমরা বলেন, ডিজেল পেট্রলের দাম বেড়ে যাওয়ায় সব কিছুর দাম বেড়ে গিয়েছে। চাষের প্রয়োজনীয় সারের দাম বেড়েছে। ট্রাক্টরের ও ধান কাটা মেশিনের দাম বেড়েছে। বেশ কিছুর দাম বেড়েছে, কিন্তু সেই তুলনায় ধানের দাম বাড়েনি। তার উপর বৃষ্টির জন্য তাদের এলাকার জমিতে জল জমে কাদা হয়ে গিয়েছে। ফলে ধান কাটার ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়তে হয়েছে। আর পেট্রো পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি হওয়ায় ধান কাটার ক্ষেত্রে অনেক বেশী মূল্য ব্যায় করতে হচ্ছে।

    আরও পড়ুনঃ East Bardhaman News: এবার কড়া পদক্ষেপ ট্রাফিক পুলিশের! কত বাড়ল জরিমানা? দেখুন

    সাড়ে চার হাজার টাকা ঘন্টা হিসাবে কম্বাইন্ড হারভেস্টার দিয়ে ধান কাটতে হচ্ছে। যাতে ধান কাটাই খরচ দ্বিগুণ হচ্ছে। তাই চাষীদের দাবি, রাজ্য সরকার চাষীদের ধানের দাম কুইন্টাল প্রতি দু তিনশ টাকা বারাক। তাহলে তাঁরা উপকৃত হবেন। স্থানীয় এক কম্বাইন্ড হারভেস্টার চালক বলেন, গত বছর তিন হাজার পাঁচ'শ থেকে তিন হাজার ছ'শ টাকা ঘন্টায় চেন মেশিন ভাড়া দিয়েছিলেন। কিন্তু এবছর ডিজেলের দাম অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। ফলে তাদেরও মেশিন ভাড়ার দাম বাড়াতে হয়েছে। এবছর চার হাজার থেকে চার হাজার পাঁচ'শ টাকা নিযতে হচ্ছে প্রতি ঘন্টায় কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিনের ভাড়া।

    First published:

    Tags: Purba bardhaman

    পরবর্তী খবর