সিনেমা দেখতে গেলেই চাই পপকর্ন, জানেন না কি মারণ রোগ ডেকে আনছেন!– News18 Bengali

সিনেমা দেখতে গেলেই চাই পপকর্ন, জানেন না কি মারণ রোগ ডেকে আনছেন!

সিনেমা দেখতে গেলেই চাই পপকর্ন! জানেন না কি মারণ রোগ ডেকে আনছেন

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 11, 2017 10:01 AM IST
সিনেমা দেখতে গেলেই চাই পপকর্ন, জানেন না কি মারণ রোগ ডেকে আনছেন!
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 11, 2017 10:01 AM IST

#কলকাতা: সিনেমা দেখতে গেলে পপকর্ন ছাড়া চলেই না ৷ চিজ হোক বা বাটার ফ্লেভার কিংবা নিদেন পক্ষে সল্টেড পপকর্ন তো চাই ৷ পর্দায় হিরোর অ্যাকশন আর নায়ক নায়িকার রোমান্সের সঙ্গে তাল রেখে চলে চোয়ালের কাজ ৷ কিন্তু এই আপাত নিরীহ পপকর্নের বেশে কোন মারণ রোগ শরীরে হানা দিচ্ছে আপনি বুঝতেও পারছেন না ৷

সম্প্রতি একটি গবেষণায় পপকর্নকে অত্যন্ত ক্ষতিকারক খাদ্যদ্রব্য বলে জানানো হয়েছে ৷ গবেষণায় দাবি করা হয়েছে যে, পপকর্ন খেলে হতে পারে ক্যান্সার !

ভুট্টার দানা থেকে তৈরি নিরীহ এই স্ন্যাকসটি কিভাবে এত ভয়ঙ্কর হতে পারে? গবেষণাপত্রে সেকথাও বলা হয়েছে ৷ আসলে বিপদ লুকিয়ে এর বানানোর পদ্ধতিতে ৷ দোকানগুলিতে যে পপকর্ন পরিবেশন করা হয় তা আসলে সরাসরি খেতের ভুট্টা থেকে সংগৃহীত নয় ৷ বহুদিন আগে ভুট্টা থেকে কচি দানা ছাড়িয়ে তা সংরক্ষণের জন্য তেলের মধ্যে কেমিক্যাল মিশিয়ে প্যাকেট বা টিনে সিল করে দেওয়া হয় ৷ সেই সিল করা টিন খুলে মাইক্রোওয়েভ বা মেশিনে বানানো হয় পপকর্ন ৷

সংরক্ষণ ও বানানো পদ্ধতিটি এতটাই অবৈজ্ঞানিক যে এর ফলে ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয় ৷ পপকর্ন তৈরির ভুট্টার দানা সংরক্ষণের জন্য ব্যবহৃত রাসায়নিকগুলি শরীরে ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে ৷ সবথেকে ক্ষতিগ্রস্থ হয় ফুসফুস ৷ তাই গবেষণাপত্রটিতে চিকিৎসকেরা পপকর্ন খেতে নিষেধ করেন ৷

ক্যান্সারের মারণ থাবা ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্ব জুড়ে ৷ ক্যান্সার এমন একটা রোগ ৷ ঠিক সময় ধরা না পড়লে মৃত্যু অবশ্যম্ভাবী ৷ WHO-র পরিসংখ্যান বলছে, ক্যান্সার আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। এই রোগ পুরোপুরি নির্মূল করতে পারে এমন কোনও চিকিত্সা এখনও পর্যন্ত আবিষ্কার হয়নি। অপারেশন করে রেডিওথেরাপি ও কেমোথেরাপির মাধ্যমে এই রোগ কিছুটা কন্ট্রোল করা যায় মাত্র। তবে বেশ কিছু উপসর্গ রয়েছে, যেগুলি খেয়াল করলে ক্যান্সার সম্বন্ধে আগে থেকেই সচেতন হওয়া যায়।

First published: 09:59:43 AM Jun 11, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर