বিনা অস্ত্রোপচারেই শিশুর পেট থেকে বেরোল পেরেক

এসএসকেএমে সফল চিকিৎসা। বিনা অস্ত্রোপচারেই শিশুর শরীর থেকে বেরোল পেরেক।

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Dec 20, 2017 03:22 PM IST
বিনা অস্ত্রোপচারেই শিশুর পেট থেকে বেরোল পেরেক
নিজস্ব চিত্র
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Dec 20, 2017 03:22 PM IST

#কলকাতা: এসএসকেএমে সফল চিকিৎসা। বিনা অস্ত্রোপচারেই শিশুর শরীর থেকে বেরোল পেরেক। শনিবার বালুরঘাটের বাড়িতে খেলার সময় একটি পেরেক খেয়ে ফেলে দেড় বছরের রিতপ ঘোষ। বুকের কাছে আটকে যায় পেরেকটি। বালুরঘাট, মালদহ ঘুরে তাকে আনা হয় এসএসকেএমে। আজ অস্ত্রোপচারের কথা থাকলেও ওষুধেই শিশুর পায়ুদ্বার দিয়ে বেরিয়ে আসে পেরেক। স্বস্তিতে শিশুর পরিবার।

কে বলবে এই খুদেই গিলে ফেলেছিল আস্ত একটা পেরেক। শনিবার বিকেলে বালুরঘাটের বাড়িতে মায়ের সঙ্গে খেলার মাঝেই পেরেক গিলে ফেলেছিল রিতপ ঘোষ। গলা থেকে বেরতে শুরু করে রক্ত । প্রথমে বালুরঘাট হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। এক্স-রেতে দেখা যায় বুকের কাছে আটকে রয়েছে পেরেক। কিন্তু পরিকাঠামো না থাকায় তাকে রেফার করা হয় মালদহ মেডিক্যালে। অভিযোগ মালদহ মেডিক্যালও ফিরিয়ে দেয় তাঁদের। এরপরই রবিবার এসএসকেএমে আনা হয় রিতপকে। এক্স-রে তে দেখা যায় আর একটু নীচে নেমে গিয়েছে পেরেকটি। শুরু হয় স্যালাইন । পেরেকের অবস্থান যাতে বদলে না যায় তাই দেওয়া হয় লিক্যুইড ফুড। ৪৮ ঘণ্টা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখেন চিকিৎসকরা।

কোন পথে চিকিৎসা----

--মঙ্গলবার সন্ধে থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় স্যালাইন

---বুধবার সকাল দশটায় অস্ত্রোপচারের কথা ছিল

---তার আগে শেষ চেষ্টা হিসেবে মঙ্গলবার রাতে শিশুর পায়ুদ্বারে ওষুধ দেওয়া হয়

--৩০ মিনিটের মধ্যেই বেরিয়ে আসে পেরেক

একের পর এক হাসপাতাল ফিরিয়ে দেওয়ায় আশা হারিয়ে ফেলেছিলেন ঋতপের বাবা-মা। চিকিৎসা ব্যবস্থার বেহাল দশায় হতাশ হয়ে পড়েছিলেন তাঁরা। অবশেষে এসএসকেএমে ছেলের সফল চিকিৎসার পর ফিরেছে আস্থা।

পেরেক বেরনোর খবরে খুশি দক্ষিণ দিনাজপুরের তপন থানার বালাপুর গ্রামের রিতপের ঠাকুমা, জেঠা, কাকারাও।

বুধবারই এসএসকেএম থেকে ছুটি মিলেছে। স্বস্তির হাসি বাবা, মায়ের মুখে। মায়ের কোলে চেপে হাসিখুশি রিতপ এবার ঘরের পথে।

First published: 03:22:36 PM Dec 20, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर