• Home
  • »
  • News
  • »
  • off-beat
  • »
  • West Bengal News: মনে আতঙ্ক! ছাদনাতলা থেকেই থানায় হাজির বর-কনে! যা করলেন বীরভূমের কাঁকড়তলা থানার ওসি...

West Bengal News: মনে আতঙ্ক! ছাদনাতলা থেকেই থানায় হাজির বর-কনে! যা করলেন বীরভূমের কাঁকড়তলা থানার ওসি...

ছাদনাতলা থেকেই থানায় হাজির নবদম্পতি!

ছাদনাতলা থেকেই থানায় হাজির নবদম্পতি!

West Bengal News: দীর্ঘ চার বছর সম্পর্কে থাকার পর বিয়ের সিদ্ধান্ত। রেজিস্ট্রি করে বিয়ে হয় বীরভূমের দুবরাজপুরে (Bangla News)। কিন্তু বাধ সাধল পরিবার।

  • Share this:

#কাঁকড়তলা: বিয়ের পর আতঙ্কের জের। পুলিশের দ্বারস্ত হলেন নবদম্পতি। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন বীরভূমের (West Bengal News) কাঁকড়তলা থানা। জানা গিয়েছে চার বছর আগে সম্পর্কের সূচনা দুজনের। দীর্ঘ চার বছর সম্পর্কে থাকার পর বিয়ের সিদ্ধান্ত (Bangla News)। রেজিস্ট্রি করে বিয়ে হয় বীরভূমের দুবরাজপুরে। কিন্তু বাধ সাধল পরিবার। বিয়ে মেনে নেয়নি দু'জনের বাড়ির লোক। আর তাই নিয়েই সমস্যার সূচনা।

আরও পড়ুন: বিয়ের আসরে চরম মুহূর্তে মেগা Twist কনের! কন্যাদানের সময় সটান না IAS-মহিলার, দুর্বার গতিতে ভাইরাল...

ছেলে রাজেশ ঘোষের বাড়ি বীরভূমের (West Bengal News) কাঁকরতলা থানার গেরুয়া পাহাড়ি গ্রামে। মেয়ে শিখা ঘোষের বাড়ি ঝাড়খণ্ডের জামতারা জেলার নলা থানা এলাকার বেজেজুরি গ্রামে (Bangla News)। সকাল বেলায় কাঁকরতলা থানার ওসি জাহিদুল ইসলাম বাইরে টহল সেরে থানায় ফিরতেই দেখেন এক নব দম্পতি থানার সামনে এসে উপস্থিত। সকাল সকাল থানার সামনে সদ্য বিবাহিত নবদম্পতিকে দেখে হতবাক তিনি।

তারপরই নতুন বর রাজেশ ওই থানার (West Bengal News) ওসি জাহিদুল বাবুকে তাদের গোটা ঘটনা ব্যাখ্যা করেন এবং তারা যে মন্দিরে বিয়ে করে এসেছেন, পাশাপাশি রেজিস্ট্রিও (Bangla News) করেছেন সেকথা সবিস্তারে জানান। এরপরেও ওই ওসি জাহিদুল ইসলাম নবদম্পতির কাছে তাদের বয়সের প্রমাণপত্র দেখতে চান। তারা দুজনেই তাদের বয়সের যথাযথ প্রমাণ দেখান এবং ওসি সেগুলি দেখে জানতে পারেন তারা সাবালক। বর ও কনে দুজনেরই বয়স ২১ বছর এবং বর রাজেশ ঘোষ মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সের ছাত্র আর কনে বর্তমানে এম এ পাঠরতা পাশাপাশি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ব্যবসার সাথে যুক্ত।

সব নথি যাচাই করার পর বিয়েতে কোনও বাধা নেই এমনটাই জানালেন ওসি। সেইসঙ্গে দুজনের বাড়ির লোক যাতে তাদের বিয়ে মেনে নেন তার জন্য তাদের দুজনের বাড়ির লোককে ডেকে পাঠান থানায়। এমনকি থানা থেকে গাড়ি পাঠান তিনি। তবে কিছু অসুবিধা থাকায় মেয়ের বাবা থানায় আসতে না পারলেও ছেলের বাবা আসেন থানায় এবং ওসি জাহিদুল বাবুও ছেলের সঙ্গে কথা বলে মেনে নিয়ে তাদের বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত জানান।

আরও পড়ুন:আপনার নামের আদ্যক্ষর কি এই চারটির একটি? শিগগিরই জীবনে আসতে চলেছে এই বিরাট পরিবর্তন!

রাজেশ পরবর্তীতে জানান, "চার বছরের প্রেমের পর আমাদের বাড়িতে মেনে না নেওয়ায় কালীমন্দিরে গিয়ে হিন্দু মতে সিঁদুর দান করে বিয়ে করেছি আমরা। কিন্তু বাড়িতে রাজি করানোর উপায় না খুঁজে পেয়ে থানার দ্বারস্থ হই। তারপর কাঁকরতলা থানার ওসি জাহিদুল ইসলাম স্যারের সাহায্যে আইনি স্বীকৃতি পেল আমাদের বিয়ে। থানার এই সহযোগিতায় যথেষ্ট খুশি আমরা।" পরে তাদের বিয়ে মেনে নিয়ে ছেলের বাড়ির লোকজন মিষ্টিমুখ করান কাঁকড় তলা থানার পুলিশকর্মীদের। পাশাপাশি নিয়ম মেনেই বিয়ে দিয়ে বরণ করে নেয় বাড়ির বউকে।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: