Home /News /off-beat /
Viral News: স্বামীর মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরেই মৃত্যু স্ত্রীর, আশি বছরের দাম্পত্য শেষ হল একই চিতায়!

Viral News: স্বামীর মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরেই মৃত্যু স্ত্রীর, আশি বছরের দাম্পত্য শেষ হল একই চিতায়!

স্বামীর মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরেই মৃত্যু স্ত্রীর, আশি বছরের দাম্পত্য শেষ হল একই চিতায়!

স্বামীর মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরেই মৃত্যু স্ত্রীর, আশি বছরের দাম্পত্য শেষ হল একই চিতায়!

Viral News: রাজস্থানের আজমের জেলার শ্রীনগরের কালেড়ি গ্রামে বাস করতেন ওই বৃদ্ধ দম্পতি। অসুস্থ স্বামীর মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরেই সেই শোক সহ্য করতে না-পেরে পৃথিবীকে চিরবিদায় জানালেন বর্ষীয়ান স্ত্রী-ও!

  • Share this:

    #আজমের: দীর্ঘ ৮০ বছরের দাম্পত্যের অবসান ঘটল একই চিতায়! বলা হয় যে, ‘জন্ম-মৃত্যু-বিয়ে তিন বিধাতা নিয়ে’। আর এই প্রবাদটাই যেন আরও এক বার প্রমাণ করে দিলেন রাজস্থানের আজমেরের এক বর্ষীয়ান দম্পতি (Viral News)!

    সূত্রের খবর, রাজস্থানের আজমের জেলার শ্রীনগরের কালেড়ি গ্রামে বাস করতেন ওই বৃদ্ধ দম্পতি। অসুস্থ স্বামীর মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরেই সেই শোক সহ্য করতে না-পেরে পৃথিবীকে চিরবিদায় জানালেন বর্ষীয়ান স্ত্রী-ও! ১০৫ বছর বয়সী ভৈরু সিং রাওয়াত এবং তাঁর ১০১ বছর বয়সী স্ত্রী হিরা দেবী– আজ তাঁদের ভালোবাসার নজির যেন লোকের মুখে মুখে ফিরছে! এর আগেও অবশ্য এই দম্পতিকে নিয়ে চর্চা হয়েছে বিস্তর। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন যে, ওই দম্পতির প্রায় আশি বছরের বিবাহিত জীবন এবং তাঁদের মধ্যে ছিল এক অদ্ভুত গভীর টান। আর তাঁদের স্নেহ-ভালবাসা একেবারে চোখে পড়ার মতোই ছিল।

    আরও পড়ুন-সাবধান! এই চার উপায়েও কিন্তু ছড়িয়ে পড়তে পারে যৌন রোগ!

    জানা যায়, সরল ভাবে সুখেই জীবনযাপন করতেন ভৈরু সিং এবং হিরা দেবী। চাষবাস করে দিব্যি কাটিয়ে দিয়েছেন জীবনের বেশির ভাগটাই। এর পর এক সময় চাষবাসের কাজ ছেড়ে গ্রামেই মুদির দোকান শুরু করেছিলেন বৃদ্ধ। কিন্তু ৬ বছর আগে আচমকাই ওই দম্পতির জীবনে নেমে আসে অন্ধকার। পক্ষাঘাতে আক্রান্ত হন ভৈরু সিং। সেই দীর্ঘ রোগভোগের পর গত সপ্তাহেই মৃত্যু হয় তাঁর। পড়শিরা জানিয়েছেন, স্বামীর মৃত্যুর কথা শুনেই শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েছিলেন হিরা দেবী এবং আচমকাই নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। এর প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পর জানা যায়, মৃত্যু হয়েছে তাঁরও।

    আরও পড়ুন-Viral News: করোনা ঠেকাতে এ কী করলেন শিক্ষক! ২০ লক্ষ টাকা জলের বিল নিয়ে মাথায় হাত স্কুল কর্তৃপক্ষের

    বর্ষীয়ান এই দম্পতির মৃত্যুর পরের দিন রীতিমতো শোভাযাত্রা করে তাঁদের দেহ শ্মশানে দাহ করতে নিয়ে যাওয়া হয়। মালা-বেলুন দিয়ে সাজিয়ে গান-বাজনা করে একই চিতায় তোলা হয় ওই দম্পতিকে। মুখাগ্নি করেন তাঁদের ৭০ বছর বয়সী পুত্র শঙ্কর। আর এই ভাবে এই দম্পতিকে চিরবিদায় জানাতে ভিড় জমিয়েছিলেন আশপাশের গ্রামের মানুষ।

    একই চিতায় স্বামী-স্ত্রীর সৎকারের দৃশ্য দেখে আর চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়ায় উপস্থিত অতিথিরা! সকলেই শ্রদ্ধা জানান এই দম্পতিকে। অনেকেই বলাবলি করছেন, যেখানে আজ বেশির ভাগ সম্পর্কের ক্ষেত্রেই বিচ্ছেদের সুর শোনা যায়, সেখানেই ভৈরু সিং এবং হিরা দেবীর দীর্ঘ দাম্পত্য যেন দৃষ্টান্ত গড়ল! তাই সবার মুখেই এখন ১০৫ এবং ১০১-এর গভীর প্রেমকাহিনী!

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published:

    পরবর্তী খবর