Zodiacs: এই চার রাশির জাতক-জাতিকাদের সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে অসুবিধা হয়; জানেন কি কেন এমন ঘটে তাঁদের সঙ্গে?

সব সময়ে নিখুঁত কাজ করা যেমন মানুষের পক্ষে সম্ভব নয়, তেমন করেই জনৈক ব্যক্তির নেওয়া সিদ্ধান্তেরও সবক'টা সঠিক হতে পারে না।

সব সময়ে নিখুঁত কাজ করা যেমন মানুষের পক্ষে সম্ভব নয়, তেমন করেই জনৈক ব্যক্তির নেওয়া সিদ্ধান্তেরও সবক'টা সঠিক হতে পারে না।

  • Share this:

জীবনে নেওয়া সব সিদ্ধান্ত কি আর সঠিক হয়?

প্রশ্নটা কিছুটা দার্শনিক হলেও এর উত্তর আদতে লুকিয়ে রয়েছে ব্যবহারিক জীবনে। মানুষ যেমন শুধুই ভালো বা শুধুই মন্দ হতে পারে না, সব সময়ে নিখুঁত কাজ করা যেমন মানুষের পক্ষে সম্ভব নয়, তেমন করেই জনৈক ব্যক্তির নেওয়া সিদ্ধান্তেরও সবক'টা সঠিক হতে পারে না। আমরা সবাই কম-বেশি এই ব্যাপারটা নিজেদের জীবনে প্রত্যক্ষ করেছি!

সমস্যা হল ওই কম-বেশি অনুপাত নিয়ে! ভুল সিদ্ধান্ত কম পরিমাণে নিলে জীবনে এর তেমন প্রভাব পড়ে না। বিপরীত ক্ষেত্রে আবার ভুল সিদ্ধান্তের মাত্রা বেশি হলে প্রায় প্রতি পদে যেন খেসারত দিতে হয়।

মানুষের ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার নেপথ্যে কারণ হিসাবে দায়ী করা যায় তিনটি ব্যাপারকে- ধৈর্যের অভাব, অপরিণামদর্শিতা এবং স্বতস্ফূর্ত স্বভাব। ধৈর্যের অভাব থাকলে অপেক্ষা করা সম্ভব হয় না এবং তখন সিদ্ধান্তে ভুল হয়। অপরিণামদর্শিতার কারণে মানুষ আবার ভালো-মন্দের তফাত করতে পারে না। আর স্বতস্ফূর্ত স্বভাব খুব বেশি ভাবনার অবকাশ দেয় না।

রাশিচক্র অনুসারে মূলত এই তিন স্বভাবে চালিত হন ৪ রাশির জাতক-জাতিকারা; জন্মদিন মিলিয়ে দেখে নেওয়া যাক কী ভাবে তাঁরা সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করেন!

মেষ (Aries): মার্চ ২১ থেকে এপ্রিল ১৯। মেষ রাশির জাতক-জাতিকারা স্বভাবের দিক থেকে অতি মাত্রায় অধৈর্য প্রকৃতির হন। ফলে, এঁরা বেশির ভাগ সময়েই বিশদ চিন্তার মধ্যে দিয়ে যান না, দরকারে শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত নেন। ফলে, সেই সিদ্ধান্ত ভুল হয়। পাশাপাশি এঁদের গা-ছাড়া স্বভাব এই ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার ব্যাপারটিকে আরও উসকে দেয়।

মিথুন (Gemini): মে ২১ থেকে জুন ২০। মিথুন রাশির জাতক-জাতিকারা খুব ছটফটে স্বভাবের হয়ে থাকেন, স্বতস্ফূর্ততা এঁদের যেন অন্য নাম! এই স্বভাবের জন্য এঁরা কোনও কিছু নিয়ে বেশি ভেবে সময় নষ্ট করেন না। যে কোনও ঘটনা উপর থেকে দেখেই সিদ্ধান্ত নেন এবং পরিণামে তা ভুলে পর্যবসিত হয়, জীবনে দুঃখ ডেকে আনে।

ধনু (Sagittarius): নভেম্বর ২২ থেকে ডিসেম্বর ২১। ধনু রাশির জাতক-জাতিকারাও খুবই অধৈর্য প্রকৃতির হয়ে থাকেন। পাশাপাশি, এঁরা একই কাজ বার বার করতে পছন্দ করেন না, খুব সহজেই এঁদের একঘেয়েমি গ্রাস করে ফেলে। তার হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য তখন এঁরা না ভেবেই পদক্ষেপ করেন এবং সিদ্ধান্ত সঠিক হয় না।

কুম্ভ (Aquarius): জানুয়ারি ২০ থেকে ফেব্রুয়ারি ১৮। কুম্ভ রাশির জাতক-জাতিকারা গতে বাঁধা পথে চলতে পছন্দ করেন না। এঁরা সব কিছুই নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গী দিয়ে বিচার করেন, তার ফলে ঘটনার সবটা তাঁরা চট করে বুঝতে পারেন না। এই কারণে এঁদের নেওয়া বেশির ভাগ সিদ্ধান্তই ভুল হয়, তখন আফসোস করা ছাড়া পথ থাকে না!

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: