Home /News /off-beat /

Latest Bangla News: এক গাছে ধরল হাফ ডজন ফুলকপি! দেখতে উপচে পড়ছে ভিড়, কারণ খতিয়ে দেখছেন বিজ্ঞানীরা

Latest Bangla News: এক গাছে ধরল হাফ ডজন ফুলকপি! দেখতে উপচে পড়ছে ভিড়, কারণ খতিয়ে দেখছেন বিজ্ঞানীরা

এক গাছে ছ'টি ফুলকপি৷

এক গাছে ছ'টি ফুলকপি৷

একটি গাছে একসঙ্গে ফুলকপির হওয়ার এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই ওই কৃষকের ক্ষেতে ভিড়ও জমতে শুরু করেছে (Cauliflower)৷

  • Share this:

    #শাহজাহানপুর: ফুলকপির ক্ষেত অনেকেই দেখেছেন৷ সাধারণত একটি ফুলকপির চারায় একটি কপিই ফলে৷ কিন্তু উত্তর প্রদেশের শাহজাহানপুরের এক কৃষকের ক্ষেতে অভিনব কাণ্ড ঘটেছে৷ কারণ ওই কৃষকের ক্ষেতে ফুলকপির একটি চারার মধ্যেই একসঙ্গে ছ'টি কপি হয়েছে৷

    একটি গাছে একসঙ্গে ফুলকপির হওয়ার এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই ওই কৃষকের ক্ষেতে ভিড়ও জমতে শুরু করেছে৷ একই গাছে ছয় কপির ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভাইরাল হয়েছে৷ এমন কি, আশপাশের জেলার কৃষকদের মধ্যেওই এই অভিনব ঘটনা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে৷ ইতিমধ্যেই সরকারি উদ্যোগে এর কারণ খতিয়ে দেখার জন্য কৃষি বিজ্ঞানীদেরও সাহায্য নেওয়া হচ্ছে৷

    আরও পড়ুন: কুর্নিশ মা, ৬ বছরের ছেলেকে বাঁচাতে leopard- র পিছনে এক কিলোমিটার ছুটলেন মা, তারপর...

    ফুলকপি শীতকালের ফসল হিসেবেই পরিচিত৷ হরি শরণ বাজপেয়ী নামে ওই কৃষক নিজেই এক গাছে ছ'টি ফুলকপি হওয়ার পর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন৷ দ্রুত তা ভাইরালও হয়৷ এর পর থেকেই হরি শরণের ক্ষেতে এই কপি দেখার জন্য ভিড় জমতে শুরু করে৷ এমন কি আশেপাশের জেলা থেকেও অনেকেই ওই কৃষকের ক্ষেতে এসে ভিড় জমাচ্ছেন৷

    আরও পড়ুন: Aloo Posto-র পর এবার লাল শাক-কলমি শাকের রেসিপি, খোলামেলা ব্লাউজে নতুন সুন্দরীরা

    যাঁরা এই ফুলকপি দেখতে আসছেন, তাঁদের মধ্যে অনেকেরই দাবি, এই ধরনের কপি ফলাতে পারলে কৃষকদের উপার্জন পাঁচ গুন বাড়বে৷ এই ধরনের কপির বীজ ব্যবহার করতে পারলে কৃষকরা অনেকটাই সুবিধে পাবেন বলে মনে করা হচ্ছে৷

    এই অভিনব কপি দেখে জেলা কৃষি আধিকারিক সতীশ চন্দ্র পাঠকও অবাক হয়ে গিয়েছেন৷ তিনি নিশ্চিত, এই ফুলকপিটির চারায় কোনও ধরনের মিউটেশন হয়েছে৷ অথবা নতুন কোনও ধরনের কপির চারা তৈরি হয়েছে৷ তবে একমাত্র গবেষণা করেই তা জানা সম্ভব৷ সেই কারণে ফুলকপির ছবি এবং ভিডিও কৃষি বিজ্ঞানীদের পাঠানো হচ্ছে৷ যাতে তারা এই অভিনব কপি ফলনের পিছনে থাকা আসল কারণ খুঁজে বের করতে পারেন৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    পরবর্তী খবর