অশোক অষ্টমী: এই তিথিতে দেবীর কাছ থেকে রাম পেয়েছিলেন রাবণবধের অস্ত্র, আজকের দিনেই উদযাপিত হয় শিবের রথযাত্রা!

অশোক অষ্টমী: এই তিথিতে দেবীর কাছ থেকে রাম পেয়েছিলেন রাবণবধের অস্ত্র, আজকের দিনেই উদযাপিত হয় শিবের রথযাত্রা!

অশোক অষ্টমী: এই তিথিতে দেবীর কাছ থেকে রাম পেয়েছিলেন রাবণবধের অস্ত্র, আজকের দিনেই উদযাপিত হয় শিবের রথযাত্রা!

ত্রিপুরার লোকবিশ্বাস অনুযায়ী, এই তিথিতে কৈলাস থেকে কাশীর উদ্দেশে শুরু হয়েছিল শিব এবং অন্য দেবতাদের রথযাত্রা।

  • Share this:

#কলকাতা: অষ্টমী তিথিটি প্রকৃতপক্ষে দেবী দুর্গার আরাধনার জন্য শাস্ত্রে সর্বাধিক পুণ্যদায়ক বলে নির্দেশ করা হয়েছে। হিন্দুধর্মে বিশেষ বিশেষ দেব বা দেবীর উপাসনার জন্য নির্দিষ্ট কিছু তিথি থাকে, বলা হয় যে এই সকল তিথিগুলো তাঁদের অতীব প্রিয়। যেমন সিদ্ধিদাতা গণেশের প্রিয় চতুর্থী তিথি, বিষ্ণুর প্রিয় একাদশী তিথি, শিবের প্রিয় চতুর্দশী তিথি। তেমনই দেবী দুর্গার বিশেষ প্রিয় তিথিটি হল অষ্টমী। সেই জন্য চৈত্রে এবং শরতে যেমন নবরাত্রির সময়ে অষ্টমী তিথিটি মহাষ্টমী নামে পরিচিতি পেয়েছে, তেমনই রয়েছে প্রতি মাসের শুক্লপক্ষের অষ্টমী তিথিতে মাসিক দুর্গাষ্টমী ব্রত পালনের প্রথা। বলা হয়, এই শুক্লপক্ষের অষ্টমী তিথিতেই দেবতাদের সম্মিলিত তেজোপুঞ্জ থেকে কায়াধারণ করেছিলেন দেবী। সেই দিক থেকে দেখলে আজ মাসিক দুর্গাষ্টমী উদযাপনের দিন, আবার আজ অশোকাষ্টমী উদযাপনের তিথিও।

অশোকাষ্টমীর মাহাত্ম্য

এই ব্রত এবং তার উৎসব ওড়িশা, ত্রিপুরায় সব চেয়ে আড়ম্বরের সঙ্গে পালিত হয়ে থাকে। ওড়িশার ভুবনেশ্বরে এবং ত্রিপুরার কৈলাশহরে বসে অশোকাষ্টমীর বিশেষ মেলা।

বলা হয়, রাবণবধের জন্য অযোধ্যার রাজপুত্র রাম শুক্লপক্ষের প্রতিপদ তিথি থেকে শরৎকালে দেবী দুর্গার আরাধনা শুরু করেছিলেন। ওড়িশার লোকবিশ্বাস অনুযায়ী, ভুবনেশ্বরের একাম্রতীর্থ, অর্থাৎ আজকের লিঙ্গরাজ মন্দিরে এই পূজার্চনা করেছিলেন রাম। অবশেষে এই শুক্লপক্ষের অষ্টমী তিথিতে তুষ্ট হয়ে আবির্ভূতা হন দেবী, রামের হাতে তুলে দেন ব্রহ্মাস্ত্র। সেই ঘটনা স্মরণে রেখে এই দিন লিঙ্গরাজ মন্দিরে দেবীর বিশেষ আরাধনার আয়োজন করা হয়। দেবী রামের শোক দূর করেছিলেন, তাই তিথিটি উদযাপিত হয় অশোকাষ্টমী নামে।

আবার এই অশোকাষ্টমী তিথিতেই ভুবনেশ্বর মন্দিরে আয়োজন হয় শিবের রথযাত্রার। লিঙ্গরাজের প্রতিনিধি শ্রীচন্দ্রশেখর শিবকে রথে বসিয়ে নিয়ে আসা হয় রামেশ্বর মন্দিরে, সেখানে ভক্তদের দর্শন দেন মহাদেব। এই উপলক্ষ্যে ভুবনেশ্বরে বড় মেলারও আয়োজন হয়।

ত্রিপুরার লোকবিশ্বাস অনুযায়ী, এই তিথিতে কৈলাস থেকে কাশীর উদ্দেশে শুরু হয়েছিল শিব এবং অন্য দেবতাদের রথযাত্রা। পথে এক পাহাড়ে দেবতারা ঘুমিয়ে পড়ায় সেখানে শিলাভূত রূপে থেকে যান, যাত্রা করেন শুধু শিব! সেই ঘটনা স্মরণে ত্রিপুরার ঊনকোটি তীর্থেও অশোকাষ্টমী সাড়ম্বরে উদযাপিত হয় এবং মেলা বসে।

Keywords: Ashok Ashtami, Ashok Ashtami 2021, Lingaraj Temple, Goddess Durga, Lord Shiva

Original Story Link: https://www.news18.com/news/lifestyle/ashoka-ashtami-2021-significance-rituals-and-timings-3656765.html

Written By: Anirban Chaudhury

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

লেটেস্ট খবর