Home /News /off-beat /
অনলাইনে মদ কিনে প্রতারণার ফাঁদে, মহিলার অ্যাকাউন্ট থেকে খোয়া গেল লক্ষ-লক্ষ টাকা

অনলাইনে মদ কিনে প্রতারণার ফাঁদে, মহিলার অ্যাকাউন্ট থেকে খোয়া গেল লক্ষ-লক্ষ টাকা

‘হোম ডেলিভারি’ (Home Delivery) দেওয়ার অজুহাতে প্রতারকরা তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে ৫.৩৫ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়।

  • Share this:

অনলাইনে হুইস্কির (Whiskey) বোতল কিনতে চেয়েছিলেন এক মহিলা। বাড়িতে মদের বোতল পৌঁছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে দফায় দফায় ৫ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠল মুম্বইতে।

জানা গিয়েছে মুম্বইয়ের (Mumbai) বাসিন্দা ওই মহিলা একটি বেসরকারি সংস্থার কর্মী। রাত ৯টার পর বাড়িতে কেক তৈরি করতে শুরু করেন। কিন্তু সে সময় তাঁর বাড়িতে হুইস্কির অভাব পড়ে। ততক্ষণে দোকানও বন্ধ হয়ে গিয়েছে। তাই তিনি চেয়েছিলেন অনলাইনে একটি বোতলের বরাত দিতে।

অভিযোগ, রাতে ওই মহিলাকে হুইস্কির বোতল ‘হোম ডেলিভারি’ (Home Delivery) দেওয়ার অজুহাতে প্রতারকরা তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে ৫.৩৫ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। মহিলার দাবি তিনি ইন্টারনেটেই খুঁজেছিলেন অনলাইনে মদ সরবরাহকারী সংস্থার নম্বর। একটি নম্বরে ফোন করলে অপর প্রান্ত থেকে নিজেদের মদের দোকানের মালিক ও সেলসম্যান হিসেবে পরিচয় দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: কুকুরের তাড়া খেয়ে মুখে-হাতে প্রবল চোট, হাসপাতালে জীবন-মরণ লড়াই চলছে যুবতীর!

লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ বিষয়টির তদন্ত শুরু করেছে। প্রতারিত মহিলা পুলিশকে জানিয়েছেন, ইন্টারনেট থেকে তিনি ওই ফোন নম্বরটি খুঁজে পেয়েছিলেন। সেই নম্বরে ফোন করলে অপর প্রান্ত থেকে বলা হয়, তারা মদের দোকানের মালিক। এখন দোকান বন্ধ থাকলেও বাড়িতে মদ পৌঁছে দেওয়া যাবে। QR কোডের স্ক্যান করার মাধ্যমে ওই মহিলাকে প্রথমে ৫৫০ টাকা দিতে বলা হয়। তার পর তাঁকে একজন সেলস একজিকিউটিভ ফোন করবেন বলেও বলা হয়, এমনই জানিয়েছেন মহিলা।

আরও পড়ুন: জার্মান বরের বাঙালি বউ, সুদূর জার্মানি থেকে বর বেশে চুঁচুড়ায় বিয়ের পিঁড়িতে ড্যানিয়েল

৫৫০ টাকা দেওয়ার কিছুক্ষণ পরে, এক ব্যক্তি নিজেকে সেলস একজিকিউটিভ পরিচয় দিয়ে ফোনও করে মহিলাকে। সে দাবি করে বাড়িতে অ্যালকোহল সরবরাহ করতে হলে আগে রেজিস্ট্রেশন (Registration) করতে হবে। একজন কর্মী এ বিষয়ে মহিলাকে সাহায্য করবে বলে ফোন কেটে দেয় ওই ব্যক্তি।

মহিলার দাবি, কিছুক্ষণ পর আরও একজন তাঁকে ফোন করে এবং তাঁকে মোবাইল পেমেন্ট (Payment) পরিষেবা Google Pay অ্যাপ খুলতে নির্দেশ দেয়। সেখানে পেমেন্টের জায়গায় ১৯,০৫১ টাকার রসিদ কাটতে বলে। মহিলার ফোনে তৎক্ষণাৎ ১৯,০৫১ টাকা কাটার বার্তা সতর্কবার্তা আস মহিলার দাবি, সে কথা ওই ব্যক্তিকে বলতেই সে বলে যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে এমন হয়েছে। টাকা ফেরত দেওয়ার অজুহাতে তিনি মহিলাকে পুরো প্রক্রিয়াটি আরও একবার করতে বলেন। এ বারও মহিলার অ্যাকাউন্ট থেকে ১৯,০৫১ টাকা কেটে নেওয়া হয়।

সে কথা জানালে প্রতারক যান্ত্রিক বিভ্রাটের অজুহাত দেখিয়ে ওই মহিলার থেকে তাঁর ক্রেডিট কার্ড এবং ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সম্পূর্ণ বিবরণ জেনে নেয়। খানিক পরেই তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে ৯৫,০৫১, ১,৭১,৭৫৪, ৪৮,০০০ এবং ৯৬,০৪৫ টাকা ধাপে ধাপে তুলে নেওয়া হয়।

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Fraud

পরবর্তী খবর