Home /News /off-beat /

Swarnarekha River In Jharkhand: সকালে নদীতে গিয়ে বিকেলে লোকজন ফেরে সোনা নিয়ে! দেশের এই জায়গার কথা জানেন?

Swarnarekha River In Jharkhand: সকালে নদীতে গিয়ে বিকেলে লোকজন ফেরে সোনা নিয়ে! দেশের এই জায়গার কথা জানেন?

Mysterious Gold River Of India: বছরের পর বছর ধরে এই নদীর জলের ধারায় সোনা প্রবাহিত হচ্ছে। জানেন দেশের কোথায় আছে এই নদী!

  • Share this:
    নদীমাতৃক দেশ ভারত। এই দেশে প্রতিটি নদীর নিজস্ব কাহিনী রয়েছে। তবে আজ আমরা আপনাদের এমন একটি নদীর কথা বলব, যেটি বছরের পর বছর ধরে সোনা বয়ে বেড়াচ্ছে। জানেন কি এই নদীর কথা! নদীমাতৃক দেশ ভারত। এই দেশে প্রতিটি নদীর নিজস্ব কাহিনী রয়েছে। তবে আজ আমরা আপনাদের এমন একটি নদীর কথা বলব, যেটি বছরের পর বছর ধরে সোনা বয়ে বেড়াচ্ছে। জানেন কি এই নদীর কথা! ঝাড়খণ্ডের স্বর্নরেখা নদীর কথা অনেকে জানেন।  বিশেষত শীতকালে এই নদীর জলে সোনা পাওয়া যায়। এত বছর ধরেও বিজ্ঞানীরা জানতে পারেননি, এই নদীতে প্রবাহমান সোনার আসল উত্স কোথায়! স্বর্নরেখা। নামের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এই নদী বছরের পর বছর ধরে সোনা বয়ে বেড়াচ্ছে। ঝাড়খণ্ডের  সুবর্ণরেখা নদীর কথা অনেকে জানেন। বিশেষত শীতকালে এই নদীর জলে সোনা পাওয়া যায়। এত বছর ধরেও বিজ্ঞানীরা জানতে পারেননি, এই নদীতে প্রবাহমান সোনার আসল উত্স কোথায়! সুবর্ণরেখা। নামের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এই নদী বছরের পর বছর ধরে সোনা বয়ে বেড়াচ্ছে। ঝাড়খণ্ডের বেশি কিছু এলাকার আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ এই নদীতে সকালে গিয়ে বিকেলে বাড়ি ফেরেন সোনার কণা নিয়ে। স্বর্নরেখা নদীর জলে সোনার উপস্থিতি অনেককেই অবাক করে। ঝাড়খণ্ডের বেশি কিছু এলাকার আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ এই নদীতে সকালে গিয়ে বিকেলে বাড়ি ফেরেন সোনার কণা নিয়ে। স্বর্নরেখা নদীর জলে সোনার উপস্থিতি অনেককেই অবাক করে। কোথাও আবার এই নদীকে লোকজন স্বর্ণরেখা বলেও ডাকে। তমাড় ও সারণ্ডা এলাকায় বহু আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ বছরের পর বছর ধরে নদীর জল থেকে সোনার কণা সংগ্রহ করছেন। কয়েক প্রজন্ম এই কাজ করছে। তমাড় ও সারণ্ডা এলাকায় বহু আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ বছরের পর বছর ধরে নদীর জল থেকে সোনার কণা সংগ্রহ করছেন। কয়েক প্রজন্ম এই কাজ করছেন তাঁরা। তবে কাজটা একেবারেই সহজ নয়। সারাদিন পরিশ্রম করতে হয় তাঁদের। আপনারা হয়তো ভাবছেন, আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ এত সোনার কণা পেয়ে ধনী হয়ে গিয়েছে। আসলে কাজটা বেশ কঠিন। সারাদিন পরিশ্রম করে নদীর বালি থেকে সোনার কণা খুঁজে বের করতে হয়। কোনওদিন এমনও হয়, একটিও কণা না পেয়ে ফিরে আসতে হয় তাঁদের। সারাদিনে একটি বা দুটি কণা জোটে বেশিরভাগ সময়। আর সেইসব কণা তারা বিক্রি করেন খুবই কম দামে। মাসে একেকজন পঁচ থেকে সাত হাজার টাকার বেশি উপার্জন করতে পারেন না। এই সুবর্ণরেখা নদী মোট ৪৭৪ কিমি পথ অতিক্রম করে। তার কিছুটা বাংলার মধ্যেও রয়েছে। আপনারা হয়তো ভাবছেন, আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ এত সোনার কণা পেয়ে ধনী হয়ে গিয়েছে। আসলে কাজটা বেশ কঠিন। সারাদিন পরিশ্রম করে নদীর বালি থেকে সোনার কণা খুঁজে বের করতে হয়। কোনওদিন এমনও হয়, একটিও কণা না পেয়ে ফিরে আসতে হয় তাঁদের। সারাদিনে একটি বা দুটি কণা জোটে বেশিরভাগ সময়। আর সেইসব কণা তারা বিক্রি করেন খুবই কম দামে। মাসে একেকজন পঁচ থেকে সাত হাজার টাকার বেশি উপার্জন করতে পারেন না। এই সুবর্ণরেখা নদী মোট ৪৭৪ কিমি পথ অতিক্রম করে। তার কিছুটা বাংলার মধ্যেও রয়েছে।
    Published by:Suman Majumder
    First published:

    Tags: Gold, Jharkhand, River

    পরবর্তী খবর