রাতে সহজে ঘুম আসতে চায় না? রাশিচক্র নিয়ন্ত্রণ করছে স্বভাব, জেনে নিন কী ভাবে!

নিয়ন্ত্রণের সূত্রে দেখে নেওয়া যাক কোন ৪ রাশির জাতক এবং জাতিকারা রাতে কেন জেগে থাকেন প্রায়ই!

নিয়ন্ত্রণের সূত্রে দেখে নেওয়া যাক কোন ৪ রাশির জাতক এবং জাতিকারা রাতে কেন জেগে থাকেন প্রায়ই!

  • Share this:

#কলকাতা: আমরা বলি বটে যে মানুষ অভ্যাসের বশ! অর্থাৎ যেমন অভ্যাস সে করে থাকে, সেই মতই তার জীবনযাত্রা পরিচালিত হয়। ঘুমের ব্যাপারটিও এই ভাবে ব্যাখ্যা করে থাকেন অনেকে। অনেকেই আছেন যাঁদের রাতে সহজে ঘুম আসতে চায় না। এঁদের মধ্যে অনেকে ভোররাতের দিকে ঘুমিয়ে পড়েন, অনেকের তার পরেও দুই চোখের পাতা বন্ধ হতে চায় না। এ হেনঅনিদ্রা রোগের জন্যও চিকিৎসকরা অভ্যাস বা লাইফস্টাইলকেই দায়ী করে থাকেন।

কিন্তু মানুষ যেমন অভ্যাসের বশ, অভ্যাসও তেমনই রাশিচক্রের বশ! এই ব্যাপারটা ভৌত এবং আধ্যাত্মিক- দুই দিক থেকেই ব্যাখ্যা করা যায়। যে রাশির অধীনে জন্ম হয়, সে তার জাতক এবং জাতিকাদের স্বভাব অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করে থাকে, সঙ্গে যুক্ত হয় গ্রহ, লগ্ন, তিথি এবং গণের প্রভাবও। আবার যদি বিজ্ঞানের দিক থেকে দেখতে হয়, তাহলে মাথায় রাখা প্রয়োজন যে এই রাশিরা আদতে নক্ষত্রমণ্ডলী বই আর কিছু নয়! অন্য দিকে প্রাণী মাত্রেরই শরীর পঞ্চভূত- ক্ষিতি বা মাটি, অপ বা জল, তেজ বা আগুন, মরুৎ বা হাওয়া এবং ব্যোম বা শূন্য দ্বারা সৃষ্টি হয়ে থাকে। এই সব কিছুই নক্ষত্রের মতো প্রকৃতিরই অঙ্গ, সুতরাং তাদের মধ্যে একটা যোগাযোগ থাকবেই!

এই নিয়ন্ত্রণের সূত্রে দেখে নেওয়া যাক কোন ৪ রাশির জাতক এবং জাতিকারা রাতে কেন জেগে থাকেন প্রায়ই!

বৃষ (Taurus): এপ্রিল ২০ থেকে মে ২০। এই রাশির জাতক এবং জাতিকাদের কাছে রাতটা আলস্যের বা বিশ্রামের সময় নয়, বরং এই সময়েই তাঁদের ইন্দ্রিয় অনেক বেশি সজাগ হয়ে থাকে। মূলত এই রাশির জাতক এবং জাতিকারা রাতটা হাতে জমে থাকা কাজ শেষ করার জন্য ব্যবহার করেন। সবাই যখন ঘুমান, তখন তাঁরা সেরে ফেলেন প্রয়োজনীয় কাজগুলো, রাত তাঁদের মনঃসংযোগে সহায়তা করে। অনেকে অবশ্য বই পড়ে বা ছবি দেখেও সময়টা উপভোগ করেন।

বৃশ্চিক (Scorpio): অক্টোবর ২৩ থেকে নভেম্বর ২১। এই রাশির জাতক এবং জাতিকারা অত্যন্ত বেশি রকমের আবেগপ্রবণ হয়ে থাকেন। আর রাতটাই হল তাঁদের কাছে আবেগকে প্রাধান্য দেওয়ার সময়। দিনের বেলা কাজে কেটে যায়। এর পরে রাতে যখন সবাই ঘুমিয়ে পড়েন, তখন এই রাশির জাতক এবং জাতিকারা পরিপার্শ্ব এবং কাছের মানুষদের অবস্থান নিয়ে খুঁটিয়ে চিন্তাভাবনা করেন, সেই জন্যই রাতে এঁদের সহজে ঘুম আসে না বা এঁরা ঘুমাতে চানও না!

ধনু (Sagittarius): নভেম্বর ২২ থেকে ডিসেম্বর ২১। এই রাশির জাতক এবং জাতিকারা স্বভাবের দিক থেকে অত্যন্ত চঞ্চল প্রকৃতির হয়ে থাকেন, কোনও কাজই এঁরা প্রায় নিয়ম মেনে করেন না। এঁরা নিজেদের মতো করে সময়কে উপভোগ এবং ইুযোগ করতে চান। সেই কারণে রাতে সবাই ঘুমিয়ে পড়লেও এঁরা জেগে থাকেন যতক্ষণ খুশি, ঘুমাতে যান দেরি করে। একই কারণে এঁদের ঘুম থেকে উঠতেও দেরি হয়।

মীন (Pisces): ফেব্রুয়ারি ১৯ থেকে মার্চ ২০। এই রাশির জাতক এবং জাতিকারা কল্পনাপ্রবণ এবং শৈল্পিক স্বভাবে হয়ে থাকেন। দিনের কর্মব্যস্ততার মাঝে স্বভাবের এই দুই দিককে তেমন প্রশ্রয় দিতে পারেন না তাঁরা। কিন্তু রাত নামলে চারদিক যখন নিস্তব্ধ হয়ে যায়, তখন এঁরা হয় কল্পনাবিলাসে গা ভাসিয়ে দেন, নয় তো শৈল্পিক কোনও লক্ষ্যপূরণে মেতে ওঠেন- ফলে ঘুম আসতে চায় না!

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: