পাঁচমিশালি

corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্বামীজির জন্মবার্ষিকী: এই ৭ উক্তি বদলে দেবে আপনার জীবনদর্শন

স্বামীজির জন্মবার্ষিকী: এই ৭ উক্তি বদলে দেবে আপনার জীবনদর্শন
স্বামীজির জন্মবার্ষিকী: এই ৭ উক্তি বদলে দেবে আপনার জীবনদর্শন

রাত পোহালেই স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন৷ ১৮৬৩ সালের ১২ জানুয়ারি উত্তর কলকাতার সিমলায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন এই মহান হিন্দু সন্ন্যাসী ও দার্শনিক৷ একাধারে লেখক ও সংগীতজ্ঞও ছিলেন স্বামীজি৷

  • Share this:

#কলকাতা: রাত পোহালেই স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন৷ ১৮৬৩ সালের ১২ জানুয়ারি উত্তর কলকাতার সিমলায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন এই মহান হিন্দু সন্ন্যাসী ও দার্শনিক৷ একাধারে লেখক ও সংগীতজ্ঞও ছিলেন স্বামীজি৷

রামকৃষ্ণ পরমহংসের প্রধান শিষ্য হিসাবে ভারতে হিন্দু ধর্মের পুনর্জাগরণ ঘটানোর অন্যতম মুখ ছিলেন স্বামীজি৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ তথা প্রাশ্চাত্যে হিন্দু ধর্ম, ভারতীয় বেদান্ত ও যোগ দর্শনের প্রচারে প্রধান ভূমিকা নিয়েছিলেন স্বামীজি৷

আধ্যত্মিকতার আঙিনায় বিশ্ব মানচিত্রে ভারতের একটা আলাদা স্থান করে দিয়েছিলেন৷ স্বামীজির ১৫৮ তম জন্মবার্ষিকীর প্রাক্কালে দেখে নেওয়া যাক তাঁর সেরা অন্যতম ৭ উক্তি

১) "আমরা যত এগিয়ে এসে অন্যের ভাল করব, তত আমাদের মন বিশুদ্ধ হবে এবং ঈশ্বর সেখানে বিরাজ করবেন৷"

২) "নিজেদের ভিতরকার বিশ্বাসকে যদি বিস্তৃত ভাবে শিক্ষিত করার অনুশীলন করতে পারা যায়, তাহলে আমি নিশ্চিত একটা বৃহত অংশের কুফল ও দুর্দশা নষ্ট হয়ে যেত৷"

৩) "কখনও ভেব না আত্মার জন্য কোনও কিছুই অসম্ভব৷ এমনটা ভাবাই বৈধর্ম্য৷ যদি পাপ থেকে থাকে, তাহলে নিজেকে এবং অন্যকে দুর্বল ভাবাই পাপ৷"

৪) "কাউকে কখনও দোষারোপ করো না৷ যদি সাহায্য করতে পারো, তাহলে হাত বাড়াও, না পারলে হাত গুটিয়ে রাখ৷ ভাইদের আশীর্বাদ করো৷ তাদের নিজেদের পথে এগিয়ে যেতে দাও৷"

৫) "মহাবিশ্বের সমস্ত শক্তি ইতিমধ্যে আমাদের কাছে আছে। আমরাই চোখের সামনে হাত রেখে চিৎকার করেছিলাম যে অন্ধকার হয়ে গিয়েছে৷"

৬) "প্রকৃত সাফল্যের ও সত্যিকারের সুখের মহান রহস্য হল, যে পুরুষ বা মহিলা কোনও ফেরতের প্রত্যাশা করে না৷ একজন নিখুঁত নিঃস্বার্থ ব্যক্তিই সবচেয়ে সফল।"

৭) "নিজেকে ভিতর থেকে বড় করতে হবে৷ কেউ তোমাকে শিক্ষিত করতে পারবে না৷ কেউ তোমাকে আধ্যত্মিক বানাতে পারবে না৷ নিজের আত্মার চেয়ে বড় শিক্ষক কেউ নেই৷"

Published by: Subhapam Saha
First published: January 11, 2021, 9:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर