এই ৪ রাশির জাতক-জাতিকা থেকে সাবধান থাকুন; এঁদের দ্বারা ক্ষতির সম্ভাবনা প্রবল!

এঁরা যে জেনেবুঝে অন্যের ইনিষ্ট করতে চান, এমনটা কিন্তু একেবারেই নয়! স্বভাবের কারণেই এঁরা অন্যের পক্ষে কষ্টের কারণ হয়ে ওঠেন।

এঁরা যে জেনেবুঝে অন্যের ইনিষ্ট করতে চান, এমনটা কিন্তু একেবারেই নয়! স্বভাবের কারণেই এঁরা অন্যের পক্ষে কষ্টের কারণ হয়ে ওঠেন।

  • Share this:

খারাপ মানুষ আমরা কাদের বলতে পারি?

সহজ ভাবে এর উত্তর একটাই হয়- যাঁরা আমাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছেন বা যাঁদের দ্বারা আমাদের অনিষ্ট হয়েছে বা যাঁদের সংস্পর্শে আমাদের মন কষ্ট পেয়েছে, তাঁরাই আমাদের পক্ষে খারাপ! এই ব্যাপারটি আদতে ব্যক্তিবিশেষে আলাদা হয়ে থাকে। কেন না, জনৈক ব্যক্তি যদি কারও পক্ষে খারাপ সাব্যস্ত হন, তিনিই আবার অন্য একজনের জীবনে চূড়ান্ত উপকারী হয়ে উঠতে পারেন।

রাশিচক্র অনুসারে চার রাশির জাতক-জাতিকাদের কিন্তু সামগ্রিক ভাবে একটু আলাদা চোখে দেখতেই হয়। এঁরা যে জেনেবুঝে অন্যের অনিষ্ট করতে চান, এমনটা কিন্তু একেবারেই নয়! নিজেদের স্বভাবের কারণেই এঁরা অন্যের পক্ষে কষ্টের কারণ হয়ে ওঠেন। এঁরা সব সময়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে চান, অন্যের উপরে প্রভুত্ব করতে চান। সাধারণত এই ৪ রাশির জাতক-জাতিকারা জীবন সম্পর্কে নৈরাশ্যজনক দৃষ্টিভঙ্গী পোষণ করেন।

জন্মদিন মিলিয়ে দেখে নেওয়া যাক কোন কোন রাশির জাতক-জাতিকারা এর আওতায় পড়ছেন!

মেষ (Aries): মার্চ ২১ থেকে এপ্রিল ১৯। মেষ রাশির জাতক-জাতিকারা একটু স্বার্থপর প্রকৃতির হয়ে থাকেন, এঁরা অতিরিক্ত মাত্রায় স্পর্শকাতর স্বভাবের হন। ফলে, কারও খুব হালকা চালে বলা কোনও কথাও এঁদের পক্ষে অপমানজনক হয়ে ওঠে এবং তখন তাঁরা তার জুতসই জবাব দিতে চান- ফলে সম্পর্ক বিষিয়ে যায়। এই কারণে এঁদের সঙ্গে বন্ধুত্ব রক্ষা করাও একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় মাঝে মাঝে।

বৃষ (Taurus): এপ্রিল ২০ থেকে মে ২০। বৃষ রাশির জাতক-জাতিকারা সব কিছু নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে চান এবং পছন্দ করেন যে সব কিছু তাঁদের পরিকল্পনা মতো চলবে। এঁরা অন্যদের আবেগ সম্পর্কে সম্পূর্ণ উদাসীন থাকেন, নিজেদের কী ভালো লাগছে, তা নিয়েই সর্বদা ব্যস্ত হয়ে থাকেন। ফলে, এই জায়গা থেকে এঁদের সঙ্গেও সহজেই সবার সঙ্ঘর্ষ হয় এবং তখন তাঁরা ছেড়ে কথা বলেন না।

মিথুন (Gemini): মে ২১ থেকে জুন ২০। মিথুন রাশির জাতক-জাতিকাদের অনেকেই তাঁদের চারিত্রিক দ্বিচারিতার জন্য পছন্দ করেন না। এঁরা হাসিখুশি এবং মিশুকে স্বভাবে হলেও তা কেবল আপেক্ষিক, এঁদের মনে আদতে কী আছে, তা কিছুতেই বুঝে ওঠা যায় না। এঁরা একেকজনের সঙ্গে তাঁর মতো হয়ে যোগাযোগ রক্ষা করেন, দরকারে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করতেও দ্বিধা করেন না। ফলে এঁদের সঙ্গে সম্পর্কও কষ্টদায়ক হয়ে ওঠে।

কুম্ভ (Aquarius): জানুয়ারি ২০ থেকে ফেব্রুয়ারি ১৮। কুম্ভ রাশির জাতক-জাতিকারা শীতল স্বভাবের হয়ে থাকেন এবং অন্যদের সঙ্গে এঁদের মানসিক যোগাযোগও খুব তফাত রেখে হয়। এঁরা সহজে কাউকেই বিশ্বাস করতে পারেন না। ফলে বিশ্বাসযোগ্যতার প্রমাণ দিতে দিতে অন্য পক্ষ ক্লান্ত হয়ে পড়ে এবং এক সময়ে সম্পর্ক রক্ষা করা কঠিন হয়ে পড়ে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: