স্কুলছুট ছাত্রীকে ভর্তি করতে হবে, ভুয়ো প্রেসকার্ড নিয়ে স্কুলকে হুমকি যুবকের

স্কুলছুট ছাত্রীকে ভর্তি করতে হবে, ভুয়ো প্রেসকার্ড নিয়ে স্কুলকে হুমকি যুবকের

যুবকটি জেরায় জানায়, সে কিছুই করে না। ২১০০ টাকার বিনিময়ে প্রেস কার্ড জোগাড় করেছে। কিন্তু কেন?

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: দিল্লির ক্রাইম ব্রাঞ্চের অফিসার হিসেবে পরিচয় দিয়ে গত কয়েক দিন ধরেই আসছিল হুমকি ফোন। হুমকি ফোন শিলিগুড়ি গার্লস স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকার কাছে। এক স্কুল ছুট ছাত্রীকে ভর্তি করাতে হবে। এই দাবিতেই ঘন ঘন আসতো হুমকি ফোন।

মঙ্গলবার প্রধান শিক্ষিকাকে বলা এক প্রতিনিধি যাবে স্কুলে। সেইমতো বুধবার সটাং স্কুলেই হাজির এক যুবক। তার নাম রাধারমণ রায়। স্কুলে এসে নিজেকে সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দেয়। এমনকি প্রেস কার্ডও দেখায়। ফের প্রধান শিক্ষিকাকে হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। ভর্তি নিতে হবে ওই স্কুল ছুট পড়ুয়াকে। প্রধান শিক্ষিকা খবর দেন স্কুলের পরিচালন সমিতির সভাপতি রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবকে। মন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সাদা পোশাকের পুলিশ হাজির হয় স্কুলে। স্কুলেই যুবককে ঘিরে চলে টানা জেরা। অসংলগ্ন কথাবার্তা হওয়ায় আটক করা হয় যুবককে।

যুবকটি জেরায় জানায়, সে কিছুই করে না। ২১০০ টাকার বিনিময়ে প্রেস কার্ড জোগাড় করেছে। কিন্তু কেন? সাংবাদিকদের প্রশ্নে তার জবাব, সমাজ সেবার জন্যে। সব কিছুই যেন এলোমেলো। কোথা থেকে এল এই প্রেস কার্ড? খতিয়ে দেখছে পুলিশ। যুবককে এখনও জেরা চালাচ্ছে পুলিশ। কে বা কারা ওই যুবককে স্কুলে পাঠিয়েছে, তার উত্তর খুঁজছে পুলিশ। কবে থেকে স্কুল ছুট ওই ছাত্রী?

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা মুনমুন লাহিড়ি জানান,  ২০১৭ থেকে স্কুলে আসছে না ওই ছাত্রী। এমনকি ডি আই অফিস থেকে ভর্তির জন্য শুরুতে চাপ আসে। পরবর্তীতে হুমকি ফোনের কথা প্রধান শিক্ষিকার কাছ থেকে শুনে পিছিয়ে আসেন ডি আইও। স্কুলের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করেছে শিলিগুড়ি থানার পুলিশ। প্রেস কার্ড যে ভুয়ো, সে বিষয়ে নিশ্চিত পুলিশ।

PARTHA PRATIM SARKAR

First published: March 5, 2020, 9:30 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर