• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • YOUTH COMMITS SUICIDE IN RATUA MALDA FAMILY BLAMES MONETARY CRISIS DUE TO LOCKDOWN

রতুয়ায় যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, লকডাউনে উপার্জন বন্ধ হওয়ায় আত্মঘাতী দাবি পরিবারের

প্রায় দুই মাস ধরে গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় উপার্জন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল সাদ্দামের।

প্রায় দুই মাস ধরে গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় উপার্জন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল সাদ্দামের।

  • Share this:

#মালদহ: রতুয়ার পরানপুর গ্রামে যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল মালদহে। পেশায় লড়ি চালক মৃত যুবকের নাম মহম্মদ সাদ্দাম মিঞা (২৭)। প্রায় দুই মাস ধরে গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় উপার্জন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল সাদ্দামের। এরপর থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছিল বলেই দাবি আত্মীয়দের। সামনেই ঈদ চলে আসায় ছেলে-মেয়েদের নতুন পোশাক কিনতে না পারায় স্ত্রীর সঙ্গে ওই যুবকের মনোমালিন্য তৈরি হয়। গত কয়েকদিন ধরেই এনিয়ে দাম্পত্য বিবাদ চলে। দিন দুয়েক আগে বাড়ি ছেড়ে বাচ্চাদের নিয়ে বাপের বাড়ি চলে যায় স্ত্রী। এরপরেই শুক্রবার সকালে শোবার ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় তাঁকে।

মৃতের বাবা আজুল মিঞা বলেন, দুই মাস ধরে ছেলের রোজগার বন্ধ ছিল। বিকল্প আয়ের জন্য ওঁকে বাড়িতেই মুদিখানার দোকান করতে বলা হয়েছিল। কিন্তু, উপার্জন বন্ধ হওয়ায় প্রায়ই সংসার চালানো নিয়ে দুঃশ্চিন্তা করত সাদ্দাম। এই মানসিক চাপ থেকেই আত্মহত্যা বলে দাবি পরিবারের। এদিন রতুয়া থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে। এরপর ময়না তদন্তের জন্য দেহ পাঠানো হয় মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। রতুয়া থানার পুলিশ জানিয়েছে, এদিন পর্যন্ত মৃ্ত্যুর ঘটনায় কোনো অভিযোগ জমা পড়েনি। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Sebak Deb Sarma

Published by:Ananya Chakraborty
First published: