উত্তরবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউন চলছে? এই ছবি দেখলে আপনিও হয়ত আঁতকে উঠবেন

লকডাউন চলছে? এই ছবি দেখলে আপনিও হয়ত আঁতকে উঠবেন

বিলাসপুর হাটের পাশেই বিহার রাজ্য।বিহারের করোনা রোগীর সন্ধান মেলায় পুলিশ বিহার সীমান্ত সিল করে দিয়েছিল।

  • Share this:

#উত্তর দিনাজপুর: লকডাউন আছে কি নাই, এই ছবি দেখলে আপনি হয়ত আতকে উঠবেন।হ্যা, এমনই ছবি উত্তর দিনাজপুর জেলার করনদিঘি ব্লকের বিলাসপুর এলাকায়।পুলিশ থাকলেও ভিড় হটাতে তেমন কোন পদক্ষেপ গ্রহন করে নি।

করোনা ভাইরাসের আক্রমনে সারা দেশ আক্রান্ত। দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। উত্তর দিনাজপুর জেলায় এখন পর্যন্ত কোনও করোনা রোগীর সন্ধান না মেলা এই জেলাকে গ্রিন জোন হিসেবে চিহ্নিত করেছে সরকার। উত্তর দিনাজপুর জেলা গ্রিন জোন হবার সুবাদে বেশ কিছু ছাড়ের ঘোষনা করেছে। তবে হাট বসার ক্ষেত্রে সরকার এখনও কোন নির্দেশ জারি করে নি।

প্রতি বৃহস্পতিবার উত্তর দিনাজপুর জেলার করনদিঘি ব্লকের বিলাসপুর এবং টুঙ্গিদিঘি হাট বসে।লকডাউনের কারনে টুঙ্গিদিঘি হাট না বসলেও বিলাসপুর হাট যথারীতি হয়।বিলাসপুর হাটের পাশেই বিহার রাজ্য।বিহারের করোনা রোগীর সন্ধান মেলায় পুলিশ বিহার সীমান্ত সিল করে দিয়েছিল।

পুলিশের এই সমস্ত কাজ" বজ্র আটুনি ফস্কা গেড়ো"।আজকে এই হাটের জনসমাগম দেখলেই তা পরিস্কার হয়ে যায়।বিহারকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করলেও সেখান ভুটভুটি করে এবং পায়ে হেটে প্রচুর মানুষ এই হাটে পৌছে যাচ্ছে।ফলে গ্রিন এবং রেড জোনের মানুষ মিলেমিশে একাকার হয়ে গেছে।হাটে অন্যদিনের মত গরু,ছাগল এবং ধান গম বিক্রি হয়েছে। এই হাটে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার যে নির্দেশ সরকার জারি করেছে সেই নির্দেশ কার্যত নির্দেশেই থেকে গেছে।

বিহারের বাসিন্দা ফেলানী দেবী জানালেন, তার বাড়ি বিলাসপুর হাটের পাশেই বিহারের মানিকপুরের বাসিন্দা।মুড়ি বিক্রি করতে তিনি এসেছিল।লকডাউনের কারনে বিহারের বাসিন্দাদের বাংলা আসা বন্ধ থাকার কথা তিনি জানেন। সীমান্তে কেউ তাকে বাধা না দেওয়ায় অনায়াসে বাংলার হাটে এসে মুড়ি বিক্রি করে বাড়ি ফিরছেন।বিহারের বাসিন্দা ভূটভূটি চালক জানালেন,বিহার থেকে এই বাসিন্দাদের নিয়ে তিনি বিলাসপুর হাটে এনেছেন।হাটে কেনাবেঁচা করে তারা বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন।যাত্রীরা প্রত্যেকেই বিহারের বাসিন্দা বলে দীপকবাবু জানালেন

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: May 8, 2020, 3:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर