'নমস্কার বঙ্গাল', বাংলায় পা রাখার আগেই যোগী আদিত্যনাথের ট্যুইটে স্তুতির ফোয়ারা

'নমস্কার বঙ্গাল', বাংলায় পা রাখার আগেই যোগী আদিত্যনাথের ট্যুইটে স্তুতির ফোয়ারা

আজ মালদহের গাজলে সভা যোগী আদিত্যনাথের।

স্বাভাবিক ভাবেই এই সভায় লাখো মানুষের জমায়েত চাইছে বিজেপি। পাশাপাশি এই সভাকে ৭ মার্চ মোদির ব্রিগেড-সভার ট্রায়ালও বলা হচ্ছে।

  • Share this:

    #গাজল: মালদাহে পা রাখার আগে দলের শীর্ষনেতাদের মতোই বাংলা নিয়ে ট্যুইট করলেন যোগী আদিত্যনাথ। বীরভূমিকে বাংলাকে প্রণাম জানালেন যোগী আদিত্যনাথ। দুপুর দেড়টা নাগাদ মালদহে পা রাখতে চলেছেন তিনি, তাঁর আগে সাজোসাজো রব গাজলে। নির্বাচনী নির্ঘণ্ট নির্ঘণ্ট প্রকাশের পরে তিনিই বিজেপির প্রথম কেন্দ্রীয় হেভিওয়েট নেতৃত্ব যিনি রাজ্যে পা রাখছেন। স্বাভাবিক ভাবেই এই সভায় লাখো মানুষের জমায়েত চাইছে বিজেপি। পাশাপাশি এই সভাকে ৭ মার্চ মোদির ব্রিগেড-সভার ট্রায়ালও বলা হচ্ছে।

    আদিত্যনাথ এ দিন ট্যুইটারে লেখেন, "সনাতন সংস্কৃতিতে জাগ্রত যে ভূমিতে, সেখানে আজ যাওয়ার সৌভাগ্য হবে। 'বন্দে মাতরম' মন্ত্রে গোটা দেশকে জাগ্রত করেছে যে বীরদের মাটি, তাকে আমার প্রণাম।"

    প্রসঙ্গত, এ দিন দুপুর দেড়টা নাগাদ যোগী আদিত্যনাথ পৌঁছতে পারেন মালদহে। তার আগেই গোটা এলাকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেছেন সিআইএসএফ প্রতিনিধিরা। মালদহে আপাতত আলোচনা এত জায়গা থাকতে ‌তফশিলিদের জন্য সংরক্ষিত গাজলই কেন বাছা হল যোগীর সভার জন্য? রাজনৈতিক মহলে এর একাধিক ব্যখ্যা রয়েছে।

    বিজেপি মনে করছে এবার মালদহে তাদের দাপটে গনি মিথ ভাঙতে পারে। ইতিমধ্যেই ৬টি আসনে লোকসভার নিরিখে এগিয়ে আছেন তারা। এই আসনগুলিতে জয় সুনিশ্চিত করাই লক্ষ্য তাঁদের। গত লোকসভায় ভালো ফল হয়েছিল গাজল লাগোয়া হবিবপুর, মালদহ আসনে। আপাতত গাজল থেকেই হিন্দু ভোটকে একজায়গায় আনতে চাইছে বিজেপি। এই সব কারণেই এপিসেন্টার হিসেবে বেছে নেওয়া এই জায়গাকে।

    এছাড়া গাজলের সভা থেকে বিজেপি বার্তা দিতে চাইছে বালুরঘাট, মালদহ উত্তর, রায়গঞ্জের ভোটারদের কাছেও। দিন কয়েক আগেই গাজলের তৃণমূল বিধায়ক দিপালী বিশ্বাস শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে বিজেপিতে আসেন। এই অবস্থায় আজকের যোগী-সভা দলীয় কর্মীদের বাড়তি অক্সিজেন জোগাবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

    শোনা যাচ্ছিল যোগীর এই সভায় শুভেন্দু অধিকারীর উপস্থিতিতে বেশ কয়েকজন বিজেপিতে আসতে পারেন। অবশ্য শেষ মুহূর্তে বাতিল হয়ে যায় শুভেন্দু অধিকারীর মালদহে যাওয়া। সেক্ষেত্রে সেই যোগদান পর্ব আজ হবে কিনা চোখ থাকবে সেদিকেও।

    Published by:Arka Deb
    First published: