মদ, জুয়ার আসরের বিরুদ্ধে একজোট হলেন গ্রামের মহিলারা

মদ, জুয়ার আসরের বিরুদ্ধে একজোট হলেন গ্রামের মহিলারা
ছবি নিজস্ব

আগামী ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। তার আগে নয়া শপথ গ্রামের গৃহবধূদের। কাজ সেরে বাড়ি ফিরেই তাঁদের স্বামীরা জুয়া এবং মদের নেশায় নিজেদের ডুবিয়ে রাখেন।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: ওঁদের স্বামী কেউ দিন মজুর। কেউ বা চা বাগানের শ্রমিক। দিন আনি দিন খাই পরিবারের বসবাস। শিলিগুড়ির ফাঁসিদেওয়া ব্লকের পেটকি গ্রাম। প্রত্যন্ত এই গ্রামের মহিলারাই এবার এককাট্টা। কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে নিলেন শপথ। সমাজকে নতুনভাবে গড়ার ডাক দিয়ে শপথ।

আগামী ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। তার আগে নয়া শপথ গ্রামের গৃহবধূদের। কাজ সেরে বাড়ি ফিরেই তাঁদের স্বামীরা জুয়া এবং মদের নেশায় নিজেদের ডুবিয়ে রাখেন। এর থেকে মুক্তি পেতেই নতুন শপথ ওদের। ওদের ডাকে সাড়া দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন সমাজসেবী বাপন দাস। তাঁর উদ্যোগেই গঠিত হল দূর্গা মহিলা বাহিনী। অন্ধকার জগৎ থেকে আলোতে ফেরানোর অঙ্গীকার নিয়ে গঠিত হল এই দূর্গা বাহিনী। পেটকি গ্রামের মহিলারাই দশভূজার ভূমিকায়। সংসার বাঁচাতে, সমাজ বাঁচাতেই এই উদ্যোগ।

তাঁদের শপথ, এলাকায় মদ এবং জুয়ার আসরের বিরুদ্ধে। এলাকায় আর এই দুই আসর বসতে দেওয়া হবে না শপথ দূর্গা বাহিনীর। কোনও মহিলা অত্যাচারিত হচ্ছেন, খবর পেলেই ছুটে গিয়ে রুখে দাঁড়াবেন, এই শপথ নিলেন ওঁরা। ওঁরা মানে ফাঁসিদেওয়া ব্লকের চটহাট গ্রাম পঞ্চায়েতের পেটকি গ্রামের বেলো সিংহ, বর্ণালী সিংহ, সুচিত্রাদেবীরা। এলাকা থেকে জুয়ার আসর নির্মূল করার ডাক দিয়েছেন। সেইসঙ্গে মদের ঠেক ভেঙে দেওয়ারও ডাক দুর্গা মহিলা বাহিনীর। মহিলারা পারেন না, এমন কোনও কাজ আছে না কি? এর আগেও এলাকার মদের ঠেকের বিরুদ্ধে মহিলাদের গর্জে ওঠার ঘটনা ঘটেছে। আর যদি মহিলারা জোটবদ্ধ হয়! হাতে হাত মেলায়। তাহলে তো কোনও কথাই হবে না। পিছিয়ে পড়া গ্রামে নতুন দিশা দেখাতেই ওদের শপথ। সমাজসেবী তথা পুলিশ কর্মী বাপন দাস জানান, পাড়ায় পাড়ায় মহিলারা জোট বাঁধলে নারীরা তাঁদের যোগ্য সম্মান ফিরে পাবে। নেশামুক্ত এলাকা গড়ে উঠবে। বাঁঁচবে সংসার। হাসির আলো জ্বলে উঠবে এই দিন মজুর পরিবারের মুখে। ওদের এহেন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

PARTHA PRATIM SARKAR

First published: March 3, 2020, 2:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर