কার গুলিতে তাসির মৃত্যু ? তা নিয়ে শুরু চাপান উতোর

কার গুলিতে তাসির মৃত্যু ? তা নিয়ে শুরু চাপান উতোর
নিহত তাসি ভুটিয়ার দেহ ৷

পুলিশের গুলিতে তাসির মৃত্যু বলে দাবি গোর্খা সমর্থকদের। এই নিয়ে মন্তব্য করেনি পুলিশ।

  • Share this:

#দার্জিলিং: পাহাড়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে জিএনএলএফ সমর্থক তাসি ভুটিয়ার মৃত্যু । বনধের ৩০ দিনের মাথায় এই ইস্যুতে ফের অশান্তির আগুন জ্বলল পাহাড়ে। আবারও হিংসায় ফিরল মোর্চা। কার গুলিতে মৃত্যু ? তাই নিয়ে শুরু হয়েছে চাপান উতোর। পুলিশের গুলিতে তাসির মৃত্যু বলে দাবি গোর্খা সমর্থকদের। এই নিয়ে মন্তব্য করেনি পুলিশ।

ক্রমাগত বৃষ্টি, ঘন কুয়াশার মধ্যে আন্দোলনের আঁচ যেন একটু কমে এসেছিল। প্রতিবাদ থাকলেও ছিল না আক্রমণের সেই ঝাঁঝ। কিন্তু শনিবার নতুন করে অশান্ত হয়ে উঠল পাহাড়। সৌজন্য, গুলিতে এক গোর্খাল্যান্ড সমর্থকের মৃত্যু।

ঘটনাটি ঘটে দার্জিলিং থেকে কিছুটা দূরে সোনাদায়। মৃতের নাম তাসি ভুটিয়া। গণ্ডগোলের সূত্রপাত শুক্রবার রাতে। ৫৫ নম্বর জাতীয় সড়কে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় এই গোর্খা সমর্থকের। নিহতের মায়ের দাবি, ওষুধ কিনতে বেরিয়ে পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে তাসির। গুলি কে চালিয়েছে? তাই নিয়ে শুরু হয় চাপান-উতোর।

পাহাড় আন্দোলনের রাশ নিয়ে মোর্চা ও জিএনএলএফের মধ্যে চাপা দ্বন্দ্ব ছিলই। তাসির ঘটনা তাতে অক্সিজেন জোগায়। নিহত তাসি তাঁদের সমর্থক, দাবি করে জিএনএলএফ।

জিএনএলএফ সমর্থক হলেও, পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে এক গোর্খা সমর্থকের। পাহাড়ের সব দল তাই একযোগে আন্দোলন করছে বলে দাবি মোর্চার।

তাসির দেহ নিয়ে মিছিল করে গোর্খা সমর্থকরা। আগুন জ্বলে পাহাড়ে। কিন্তু কে গুলি চালাল ? মন্তব্যে নারাজ পুলিশ। তাঁদের দাবি, শুক্রবার রাতে সোনাদায় বেশ কয়েকটি গাড়িতে ভাঙচুর চালায় মুখে কালো কাপড় ঢাকা কয়েকজন যুবক। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে যায় সোনাদা থানার পুলিশ। সেই সময়েই এক কনস্টেবলকে খুকরি দিয়ে তিনবার আঘাত করা হয়। গুরুতর আহত পুলিশকর্মী বর্তমানে উঃবঙ্গে মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন। এই গণ্ডগোলের মাঝে পড়েই মৃত্যু হয় গোর্খা সমর্থক তাসি ভুটিয়ার। ১৭ জুনের সিংমারি ঘটনার মত এবারও কে গুলি চালিয়েছে তাই নিয়ে ধোঁয়াশা কিন্তু থেকেই গেল।

First published: 03:36:30 PM Jul 08, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर