• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • বরফ দেখা আর হবে না বাঙালির, করোনা আতঙ্কে উত্তর সিকিমে কাল থেকে ‘না’

বরফ দেখা আর হবে না বাঙালির, করোনা আতঙ্কে উত্তর সিকিমে কাল থেকে ‘না’

এই দৃশ্য আর দেখা হবে না এই বছর৷ নিজস্ব চিত্র

এই দৃশ্য আর দেখা হবে না এই বছর৷ নিজস্ব চিত্র

আগামিকাল অর্থাৎ ১৩ মার্চ থেকে থেকে কার্যকরী হচ্ছে নয়া নিয়ম। পরবর্তী নির্দেশিকা জারি না হওয়া পর্যন্ত উত্তর সিকিমে কেউ বেড়াতে যেতে পারবে না। অর্থাৎ সাদা বরফে ঢাকা লাচেন, লাচুং ইয়ুংথামের মতো পর্যটনকেন্দ্র গুলিতে বেড়ানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি।

  • Share this:

#সিকিম: দেশে প্রতিদিনই বেড়ে চলেছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। তাই সিকিম আর ঝুঁকি নিতে চাইছে না। এবারে উত্তর সিকিমে ভিন রাজ্যের পর্যটকদের বেড়াতে যাওয়ায় ‘না’ ঘোষণা প্রশাসনের। আর ঘোষণার জেরে মন খারাপ ভ্রমণপিপাসুদের৷ অনেকেই মার্চ এপ্রিলে সেখানে যাওয়ার আগাম পরিকল্পনা সেরে রেখেছেন যে! আসন্ন রেড পাণ্ডা ফেস্টিভ্যালও বন্ঝ করে দেওয়া হয়েছে৷ বহু বাঙালি প্রস্তুতি নিয়েছিল ওই উৎসবে অংশগ্রহণ করার৷

আগামিকাল অর্থাৎ ১৩ মার্চ থেকে থেকে কার্যকরী হচ্ছে নয়া নিয়ম। পরবর্তী নির্দেশিকা জারি না হওয়া পর্যন্ত উত্তর সিকিমে কেউ বেড়াতে যেতে পারবে না। অর্থাৎ সাদা বরফে ঢাকা লাচেন, লাচুং ইয়ুংথামের মতো পর্যটনকেন্দ্র গুলিতে বেড়ানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি। এই মূহূর্তেও লাচুং, লাচেন তুষার চাদরে মোড়া রয়েছে।

পর্যটন শিল্পে এই নিষেধাজ্ঞার ফলে বড় প্রভাব পড়বে৷ কিন্তু সিকিম সরকার তাদের রাজ্যের নাগরিকদের স্বাস্থ্যের বিষয়ে বেশি উদ্বিগ্ন৷ তাই এই সিদ্ধান্ত। ইতিমধ্যেই উত্তর সিকিমের প্রশাসনিক কর্তাদের নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে।

গত ৫ মার্চ থেকে বিদেশী পর্যটকদের ঘোরার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করে সিকিম সরকার। এমনকি বন্ধ রয়েছে ভারত-চিন না থুলা সীমান্তের দরজাও। বেশ কয়েকটি বৌদ্ধ মঠও পর্যটকদের জন্য আপাতত বন্ধ৷

এখনও সিকিমে করোনা আক্রান্তের খবর নেই। কিন্তু দেশ-বিদেশের পর্যটকদের প্রবেশে ভাইরাস ছড়ানোর আশঙ্কায় এই সিদ্ধান্ত। পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে পর্যটন মেলাও। আগামী এপ্রিলে পশ্চিম সিকিমের সোরেং চাখুংয়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল রেড পাণ্ডা ট্যুরিজম কার্ণিভাল ২০২০। কিন্তু করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে এই কার্ণিভাল। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পর্যটন ব্যবসায়ীরা যোগ দিত এই কার্ণিভালে। বাংলার পর্যটন ব্যবসায়ীরাও যোগ দিত। সবরকম প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু করোনার প্রভাবের জেরে উদ্যোক্তারা তা পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Partha Sarkar

Published by:Arka Deb
First published: