• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • কালিয়াগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষের জেরে বিজেপির নেতার উপর হামলা,গাড়ি ভাঙচুর

কালিয়াগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষের জেরে বিজেপির নেতার উপর হামলা,গাড়ি ভাঙচুর

কালিয়াগঞ্জের ভূমিপুত্রকে প্রার্থী করার দাবিতে ব্যাপক আন্দোলনে নামেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।

কালিয়াগঞ্জের ভূমিপুত্রকে প্রার্থী করার দাবিতে ব্যাপক আন্দোলনে নামেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।

কালিয়াগঞ্জের ভূমিপুত্রকে প্রার্থী করার দাবিতে ব্যাপক আন্দোলনে নামেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।

  • Share this:

#কালিয়াগঞ্জ: কালিয়াগঞ্জের মদনপুরে বিজেপি নেতৃত্বের গাড়ি ভাঙচুর করল উত্তেজিত কিছু মানুষ। আক্রান্ত বিজেপি নেতার দাবি, কারা এঘটনা ঘটাল তা তিনি বুঝতে পারছেন না। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে।পুলিশ তদন্ত করে দেখছে। বিজেপি প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর কালিয়াগঞ্জের বিজেপি কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক অসন্তোষ দেখা দিয়েছে।কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে সৌমেন রায়কে প্রার্থী করা হয়েছে। সৌমেন রায়ের বাড়ি আলিপুরদুয়ারে। কে সৌমেন এ নিয়ে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি নেতৃত্ব অন্ধকারেই ছিলেন। কালিয়াগঞ্জের ভূমিপুত্রকে প্রার্থী করার দাবিতে ব্যাপক আন্দোলনে নামেন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। বহিরাগত প্রার্থী সৌমেন রায়ের প্রার্থী বাতিলের দাবিতে ওই বিধানসভার ২৫০জন বিজেপি নেতা ও কর্মী একযোগে ইস্তফা দেন।

গতকাল, মঙ্গলবার, রাতে আচমকাই রায়গঞ্জে বিজেপি জেলা দফতরে হাজির হন কালিয়াগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী সৌমেন রায়। মনোনয়নপত্রের কাগজপত্র তৈরী করতে তাঁ র সময় লেগেছ। ভোট পর্যন্ত তিনি কালিয়াগঞ্জেই থাকছেন। আজ সকাল দশটায় কালিয়াগঞ্জ বয়রা কালী মন্দিরে পুজো দিয়ে  কালিয়াগঞ্জ হনুমান ভবনে স্থানীয় নেতাদের নিয়ে নির্বাচনী বৈঠক করার কর্মসূচী নিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকেই নির্বাচনী কাজকর্ম শুরু করবেন বলে জানা গিয়েছিল। সেই কর্মসূচী আগাম জানতে পারেন কালিয়াগঞ্জ বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। বিজেপি প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর সৌমেনবাবুর স্ত্রী ভিডিও বার্তায় স্বামীর চরিত্রহীনতার কথা তুলে ধরেন। কালিয়াগঞ্জে এই ভিডিও বার্তা প্রায় সবার কাছে পৌঁছে যায়।এমন একজনকে কালিয়াগঞ্জ ঢুকতেই দেবেন না বলে কালিয়াগঞ্জ মহিলা পুরুষ প্রত্যেকেই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। বিজেপি প্রার্থী যাতে কোনভাবেই কালিয়াগঞ্জে পৌঁছাতে না পারেন তার জন্য কালিয়াগঞ্জ শহরের প্রবেশদ্বার থেকে শহরে বিভিন্ন জায়গায় মানুষ জড়ো হয়েছিলেন৷ সকাল দশটায় কালিয়াগঞ্জের কালীমন্দিরে পৌঁছানোর কথা থাকলেও বেলা বারোটার নাগাদ উত্তর দিনাজপুর জেলার বিজেপি কো কনভেনর প্রকাশ পুস্তি কালিয়াগঞ্জের দিকে যাচ্ছিলেন। কালিয়াগঞ্জ শহরের প্রবেশদ্বার মদনপুরের কাছে বিজেপি সমর্থকরা বিজেপির ফ্ল্যাগ লাগানো একটি গাড়ি দেখতে পান। বিজেপি কর্মীরা জানতে পারেন এই গাড়িতেই বিজেপি প্রার্থী কালিয়াগঞ্জে যাচ্ছেন। সেই গাড়িটিকে আটকে বিজেপি কো কনভেনর প্রকাশের উপর চড়াও হন সকলে। বাঁশ, লাঠি নিয়ে তাঁর উপর চড়াও হন।কো কনভেনর প্রকাশকে মারধোর করে গাড়িটির কাঁচ ভেঙে দেওয়া হয়।হাজার হাজার মানুষ এই বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন। উত্তেজিত জনতার হাত থেকে কোন রকম রক্ষা করে রায়গঞ্জে বিজেপি জেলা দফতরে পৌঁছে যান। বহিরাগত প্রার্থী বাতিল করে ভূমিপুত্রকে প্রার্থী করার দাবিতে বিবেকনন্দ মোড়ে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। কালিয়াগঞ্জের প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষ চলছিল৷ এই অসন্তোষের মধ্যেই বুধবার হনুমান মন্দিরে বিজেপি কার্যকর্তাদের বৈঠকে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন বিজেপির কো কনভেনর প্রকাশ কুস্তি। কালিয়াগঞ্জ থানার মদনপুরের কাছে কিছু মানুষ প্রকাশবাবুর গাড়ি দাঁড় করিয়ে দিয়ে বাঁশ, লাঠি দিয়ে তাকে আক্রমণ করে বলে অভিযোগ। ঢিল মেরে তাঁর গাড়ির কাঁচ ভেঙ্গে দেওয়া হয়। এই আক্রমণের পর বিজেপি নেতার গাড়ি  ঘুরিয়ে রায়গঞ্জে ফিরিয়ে আনেন। প্রকাশবাবু জানান, যারা বাঁশ নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন তাদের কাউকে তিনি চিনতে পারেননি। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। কালিয়াগঞ্জ থানার আই সি জানিয়েছেন, তাঁর কাছে এধরনের কেউ অভিযোগ করেননি।

বিজেপি কর্মী দিলীপ রায় জানান, কোনভাবেই তাঁরা সৌমেন রায়কে প্রার্থী হিসেবে মেনে নেবেন না। সেই কারণেই এই বিশৃঙ্খলা৷ মদনপুরের বাসিন্দারা গাড়িটি কে ঘিরে ধরেন। গাড়িতে যিনি ছিলেন তাঁকে গাড়ি থেকে বের করে দেন।  প্রকাশ পুস্তি জানান, পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুযায়ী আজ কালিয়াগঞ্জে হনুমান ভবনে বৈঠক যোগ দিতে যাচ্ছিলেন। কালিয়াগঞ্জে ঢোকার আগেই মদনপুরের বালুরঘাট রায়গঞ্জ রাজ্য সড়কে গাড়িটিকে ভাঙচুর চালান। তাঁকে মারধোর করা হয়। দলীয় কোনও কর্মী সেখানে ছিলেন না বলে তাঁর দাবি। বিরোধীরা এই কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারেন বলে তিনি অভিযোগ করেন। পুলিশকে ঘটনাটি জানানো হয়েছে। যদিও কালিয়াগঞ্জ থানার আই সি জানিয়েছেন, এধরনের কোন অভিযোগ তার কাছে জমা পড়েনি।

Published by:Pooja Basu
First published: