corona virus btn
corona virus btn
Loading

আতঙ্কে ভুগছে বিশ্ব, তার মাঝেই সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল করোনা অডিও ক্লিপে নিয়ে বিতর্ক

আতঙ্কে ভুগছে বিশ্ব, তার মাঝেই সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল করোনা অডিও ক্লিপে নিয়ে বিতর্ক
করোনায় আক্রান্ত হয়েও অনেকে উপসর্গহীন থাকছেন৷ কিন্তু সাধারণত করোনার দু'টি মূল উপসর্গের কথাই বলছেন চিকিৎসকরা৷ সেগুলি হলো জ্বর এবং কাশি৷ এর পাশাপাশি অনেকের শ্বাসকষ্টের সমস্যাও দেখা দেয়৷

অডিও ক্লিপের জবাবে সোশাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন আলিপুরদুয়ারের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক পূরণ শর্মা।

  • Share this:

#আলিপুরদুয়ার: একেই এখন আতঙ্কের আরেক নাম করোনাভাইরাস। তার মধ্যে সোশাল মিডিয়ায় এক মহিলার অডিও ক্লিপ ভাইরাল। অডিও ক্লিপে মহিলার দাবি, আলিপুরদুয়ারের হ্যামিলটনগঞ্জের বাসিন্দা চিনফেরত এক ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। কিন্তু, সঠিক পরীক্ষা করেনি স্বাস্থ্য দফতর। তবে মহিলার দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন আলিপুরদুয়ারের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক। তাঁর দাবি, স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে ওই ব্যক্তির দেহে করোনার উপসর্গ পাওয়া যায়নি। ভুল খবর ছড়ানোয় ক্ষমা চেয়েছেন ওই মহিলা। চিনে করোনাভাইরাসে একের পর এক মৃত্যু। আক্রান্ত বহু। তার মধ্যেই কয়েকদিনে সোশাল মিডিয়ায় ঘুরছে একটি অডিও ক্লিপ। অডিও ক্লিপে করোনা আতঙ্ক। ২৬ জানুয়ারি আলিপুরদুয়ারের হ্যামিলটনগঞ্জের বাসিন্দা চিন থেকে বাড়ি ফেরেন। তাঁকে ঘিরেই যত বিতর্কের সূত্রপাত। সোশাল মিডিয়ায় অডিও ক্লিপে এক মহিলার দাবি, ওই ব্যক্তির দেহে করোনাভাইরাসের উপসর্গ আছে। কিন্তু কোনও বিমানবন্দরেই ওই ব্যক্তির শারীরিক পরীক্ষা হয়নি। আলিপুরদুয়ার স্বাস্থ্য দফতর ৪ ফেব্রুয়ারিতে ওই ব্যক্তির বাড়িতে গেলেও তাঁকে পাওয়া যায়নি। তিনি কলকাতায় আছেন। চোদ্দ দিনের শারীরিক পরীক্ষা না করেই ওই ব্যক্তিকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার পরিকাঠামো নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ওই মহিলা।

অডিও ক্লিপের জবাবে সোশাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন আলিপুরদুয়ারের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক পূরণ শর্মা। তাঁর দাবি, চিন ফেরত ওই ব্যক্তি ও তাঁর পরিবারকে প্রতিদিনই পরীক্ষা করা হচ্ছে। কারওর শরীরেই করোনা ভাইরাসের কোনও উপসর্গ পাওয়া যায় নি। তাই আতঙ্কিত না হওয়ার অনুরোধ করেছেন তিনি। অডিও ক্লিপে আতঙ্ক ছড়ানোয় মহিলার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন CMOH। এরপরই ওই মহিলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিককে চিঠি লিখে ক্ষমা চান। তিনি দাবি করেন, তিনি ভাল উদ্দেশেই সচেতন করছিলেন।

Published by: Ananya Chakraborty
First published: February 10, 2020, 6:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर