নকশালবাড়িতে বাজ পড়ে আহত ২ শ্রমিক! টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন শিলিগুড়ির নীচু এলাকা

Naxalbari: ১০০ দিনের কাজে গিয়ে বাজ পড়ে আহত হন ১ মহিলা-সহ দু’জন শ্রমিক ! ঘটনাটি ঘটেছে নকশালবাড়ির মনিরাম গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত ভারত-নেপাল সীমান্তের ঝাপুজোতে।

Naxalbari: ১০০ দিনের কাজে গিয়ে বাজ পড়ে আহত হন ১ মহিলা-সহ দু’জন শ্রমিক ! ঘটনাটি ঘটেছে নকশালবাড়ির মনিরাম গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত ভারত-নেপাল সীমান্তের ঝাপুজোতে।

  • Share this:

শিলিগুড়ি: নাগাড়ে বৃষ্টি শিলিগুড়ি ও লাগোয়া এলাকায়। বৃষ্টিতে জেরবার পাহাড়ও। দার্জিলিং থেকে মিরিক, কার্শিয়ং থেকে কালিম্পং সর্বত্রই সকাল থেকে বৃষ্টি। আকাশের মুখও ভার। অবিরাম বৃষ্টির জেরে জলমগ্ন শিলিগুড়ি পুরসভার নীচু এলাকা। পুরসভার ৩১, ৩৯, ৪৬ নং ওয়ার্ডের বেশ কয়েক জায়গায় জল দাঁড়িয়ে পড়েছে। কোথাও আবার বাড়িতেও জল ঢুকে পড়েছে। প্রতি বছরই বর্ষার ভারী বৃষ্টিতে জল জমে এইসব এলাকায়। বেহাল নিকাশী ব্যবস্থাকেই দায়ী করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। বহু বছর আগে মাস্টার প্ল্যান তৈরি করা হলেও তা বাস্তবায়িত হয়নি বলে অভিযোগ। ক্ষমতার হাতবদল হলেও সমস্যা সেই তিমিরেই! স্বাভাবিকভাবেই ক্ষোভ বাড়ছে সংশ্লিষ্ট এলাকায়। নর্দমা সংস্কারের অভাব রয়েছে বলে অভিযোগ। প্ল্যানমাফিক কাজ করা হলে ফি বছরে ভাসতে হত না বলে দাবি স্থানীয়দের। নতুন পুর প্রশাসনের কাছে দ্রুত সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। বিশেষ করে শক্তিগড়ের অশোক নগর এবং হায়দরপাড়ার একাংশ জলমগ্ন।

অন্যদিকে বাজ পড়ে আহত হয়েছেন ২  শ্রমিক। ১০০ দিনের কাজে গিয়ে বাজ পড়ে আহত হন ১ মহিলা-সহ ২ জন!  ঘটনাটি ঘটেছে নকশালবাড়ির মনিরাম গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত ভারত-নেপাল সীমান্তের ঝাপুজোতে। আহতদের প্রথমে নকশালবাড়ি গ্রামীন হাসপাতালে আনা হয়। পরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়। সকাল থেকেই এই এলাকায় বজ্র বিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি চলছে। আহতরা হলেন ছায়া মল্লিক ও বিকাশ বর্মন। অন্য পাঁচ দিনের মতোই আজ তারা ১০০ দিনের কাজে গিয়েছিলেন। সকাল থেকেই এলাকায় বজ্র বিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি চলছে। দু'জনেরই শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন। আহত শ্রমিক ছায়া মল্লিক জানান, আচমকাই আমরা ছিটকে পড়ে যাই। কিছুই আর তারপর মনে নেই। হাত, পা শক্ত হয়ে যায়।

এদিকে পাহাড়েও অবিরাম বৃষ্টি হচ্ছে। ধসপ্রবন এলাকায় বাড়তি নজরদারি রয়েছে জেলা প্রশাসনের। ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট টিমও তৈরি। আরও ২ দিন বৃষ্টি চলবে বলে আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে।

পার্থ প্রতিম সরকার

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: