• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • ফের করোনা আক্রান্ত দু'জনের মৃত্যু শিলিগুড়িতে, বাড়ছে আতঙ্ক

ফের করোনা আক্রান্ত দু'জনের মৃত্যু শিলিগুড়িতে, বাড়ছে আতঙ্ক

লালা রসের নমুনা নেওয়া হয়। এদিন রিপোর্ট পজিটিভ এসছে।

লালা রসের নমুনা নেওয়া হয়। এদিন রিপোর্ট পজিটিভ এসছে।

লালা রসের নমুনা নেওয়া হয়। এদিন রিপোর্ট পজিটিভ এসছে।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: ফের করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর ঘটনা শিলিগুড়িতে। বুধবার দুই করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয় কোভিড স্পেশাল হাসপাতালে। গত কয়েক দিন ধরে করোনার উপস্বর্গ নিয়ে চিকিৎসায় ছিলেন। লালা রসের নমুনা নেওয়া হয়। এদিন রিপোর্ট পজিটিভ এসছে। একজন শিলিগুড়ি পুরসভার ১০ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা। অন্য জন ৪৬ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা। এর আগেও ওই ওয়ার্ডের এক করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়। এই নিয়ে শিলিগুড়িতে করোনা আক্রান্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৬।

কালিম্পংয়ে মৃতের সংখ্যা এক। স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ বাড়ছে শহরে। কারণ বুধবার মৃত দু'জনের কারোরই ট্র‍্যাভেল হিস্ট্রি পাওয়া যায়নি। এর আগে প্রধাননগরের মৃত আক্রান্তেরও কোনও ট্র‍্যাভেল হিস্ট্রি ছিল না। তাই আতঙ্ক বাড়ছে। এদিন নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। সংখ্যাটা থেমে নেই। শিলিগুড়ি পুরসভায় নতুন করে আক্রান্ত ১৬ জন। এর মধ্যে মৃত দুই। বাকি ১৪ জন পুরসভা এলাকারই বাসিন্দা। যাদের মধ্যে অধিকাংশেরই ট্র‍্যাভেল হিস্ট্রি নেই বলে জানা গিয়েছে।

গত কয়েক দিনে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। তার মধ্যে অধিকাংশেরই ট্র‍্যাভেল হিস্ট্রি নেই। যা ভাবাচ্ছে জেলা স্বাস্থ্য ও প্রশাসনিক কর্তাদের। তবে আক্রান্তের সংস্পর্ষে এসছেন অনেক নতুন আক্রান্তকারীরা। শিলিগুড়ি পুরসভার প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্যেরও ট্র‍্যাভেল হিস্ট্রি নেই। এদিকে করোনা মোকাবিলায় উদ্যোগী জেলা প্রশাসনও। বুধবার থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে চম্পাসারি বাজার সহ ওই এলাকার বিভিন্ন মার্কেট কমপ্লেক্স। ৪৬ নং ওয়ার্ডের রাস্তার ধারে বসা দোকানও আজ থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

উদ্বিগ্ন প্রশাসন এবারে নজর দিচ্ছে শহরের অন্য বাজারগুলিতেও। প্রয়োজনে অন্য বাজারগুলিও বন্ধের পথে হাঁটবে প্রশাসন। দার্জিলিংয়ের জেলাশাসক এস পুন্নমবালাম জানান, টাস্ক ফোর্স পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে। বিভিন্ন মার্কেট, বাজারে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার দিকে বাড়তি নজরদারি দেওয়া হবে। বন্ধ রয়েছে উত্তর-পূর্ব ভারতের সবচাইতে বড় আড়ত শিলিগুড়ি রেগুলেটেড মার্কেট। বিধান মার্কেটের ফল ও সবজি বাজার বৃহস্পতিবার থেকে বসবে কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামের মেলা মাঠে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: