চিনের নাগরিক, পকেটে উত্তরপ্রদেশের আধার কার্ড! ভোটের বাংলায় কেন এল 'ওরা'?

চিনের নাগরিক, পকেটে উত্তরপ্রদেশের আধার কার্ড! ভোটের বাংলায় কেন এল 'ওরা'?

চিনা নাগরিক গ্রেফতার

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ট্রেনে করে বাইরের রাজ্য থেকে লোক নিয়ে এসে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার পরিকল্পনা করছে বিজেপি৷

  • Share this:

    #বাগডোগরা: কেন্দ্রীয় বাহিনীর নজিরবিহীন 'নিরাপত্তায়' হতে চলেছে বাংলার ভোট। একদিকে বিজেপি যখন রাজ্যের আইনশৃঙ্খলাকে তুলোধনা করে 'সোনার বাংলা'র স্বপ্ন দেখাচ্ছে, অপরদিকে, তৃণমূল অভিযোগ তুলছে, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে সামনে রেখে আসলে ছাপ্পা ভোট দিয়ে ভোট বৈতরণী পেরোনোর চেষ্টা করছে গেরুয়া শিবির। সম্প্রতি স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ট্রেনে করে বাইরের রাজ্য থেকে লোক নিয়ে এসে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার পরিকল্পনা করছে বিজেপি৷ আর বাইরে থেকে ট্রেনে করে লোক নিয়ে আসার জন্য অফিসারদের নির্দেশ দিয়েছেন স্বয়ং রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল৷ এমন কি, তাদের খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন মমতা৷ এমনই এক প্রেক্ষাপটে রেল নয়, বিমানপথে দুই বেআইনি চিনা নাগরিকের এ রাজ্যে আগমনে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। ওই দুই চিনা নাগরিকের কাছে উত্তরপ্রদেশের আধার কার্ড মেলায় জল্পনা আরও বেড়েছে। দুজনকেই গ্রেফতার করা হয়েছে।

    পুলিশ সূত্রে খবর, ওই দুই চিনা নাগরিকের নাম জাং জুং ও কাই লেং। জানা গিয়েছে, বাগডোগরা থেকে বিমানে তিরুপতি যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছিলেন তারা। কিন্তু তাঁদের গতিবিধি সন্দেহজনক ঠেকতেই আটক করা হয়। তাঁদের পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, ওই দুজনের মধ্যে একজনের কাছে পাসপোর্ট ছিল, কিন্তু ভিসা ছিল না তাঁদের কারও কাছেই। গতকাল বাগডোগরা পৌঁছে সেখানেই একটি হোটেলে ছিলেন তিনি।

    কিন্তু এ দেশে আসা-যাওয়ার বৈধ নথি না থাকলেও তাদের দু'জনের কাছেই উত্তরপ্রদেশের আধার কার্ড মেলায় রহস্য আরও বেড়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, নেপাল থেকে ওই দুজন ভারতে ঢুকেছিল। মুখে তিরুপতি যাওয়ার কথা বললেও ভোটের বাংলায় তাঁদের অন্য কোন উদ্দেশ্য ছিল কিনা, খতিয়ে দেখা হচ্ছে সেই বিষয়টি।

    দিন দুই আগেই তৃণমূল নেত্রী অভিযোগ করেন, 'কয়েকজন মন্ত্রী কাউকে কাউকে ডেকে বলেছেন, রেলে করে দু' দিন আগে বিভিন্ন দেশের ভোট লুটেরারা আসবে৷ তাদের খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে৷ তারা এলাকায় এলাকায় ঢুকবে, ছাপ্পা করবে, ভোট লুট করবে, পালিয়ে যাবে৷ অফিসাররা যেন তাঁদের খাওয়া, দাওয়ার, থাকার ব্যবস্থা করে৷' মমতার সেই অভিযোগে শোরগোল পড়ে যায়। এদিনের বাগডোগরার ঘটনার সঙ্গে বাংলার ভোট-চিত্রের কোনও যোগাযোগ রয়েছে কিনা, তা নিয়েও তদন্ত করছে পুলিশ।

    Published by:Suman Biswas
    First published:
    0

    লেটেস্ট খবর