মানসের জঙ্গলে বাঘ শিকারের ঘটনায় ধৃত ২

মানসের জঙ্গলে বাঘ শিকারের ঘটনায় ধৃত ২
Representational Image
  • Share this:

#গুয়াহাটি: অসমের মানসের জঙ্গলে বাঘ শিকার। ডুয়ার্সের আলিপুরদুয়ারের হাসিমারা এলাকা থেকে ধৃত দুই ভুটানি নাগরিকের কাছে মেলে সেই রয়্যাল বেঙ্গলের চামড়া। ধৃতদের জেরা করতে জলপাইগুড়িতে আসে অসম বন বিভাগের বিশেষ দল।

বাঘ সমীক্ষার রিপোর্ট বলছে, এই মূহূর্তে অসমের মানসের জঙ্গলে বাঘের সংখ্যা ৩০। তার মধ্যে  ২৫টি পূর্ণবয়স্ক বাঘ ও পাঁচটি শাবক রয়েছে মানসে ৷ গত জানুয়ারি মাসে জঙ্গলে ঢুকে পূর্ণ বয়স্ক বাঘ শিকার করে চোরাশিকারীরা।

২৩ জুন, ২০১৯ ৷ গোপন সূ্ত্রে খবর পেয়ে অসম-বাংলা সীমান্তের শ্রীরামপুর সীমান্তে অভিযান চালায় বৈকুণ্ঠপুর বন বিভাগের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স। মৃত বাঘের ভিডিও-সহ সাতজন বন্যপ্রাণীর দেহাংশ পাচারকারীকে গ্রেফতার করা হয় ৷

ধৃতদের জেরায় উঠে আসে আরও তথ্য। শিকারীদের ধরতে যৌথ অভিযানে নামে অসম বন বিভাগ ও বৈকুণ্ঠপুর বন বিভাগের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স।

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ৷ ডুয়ার্সের আলিপুরদুয়ারের হাসিমারা এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয় দুই ভূটানি নাগরিককে। ধৃত নামগাই ওয়াংদে ও ইয়াং বার কাছ থেকে উদ্ধার হয় চোদ্দ ফুট লম্বা রয়্যাল বেঙ্গলের চামড়া। মানসের জঙ্গলে শিকার হওয়া বাঘেরই চামড়া এটি। জেরায় স্বীকার করে ধৃতরা।

তদন্তে বুধবার জলপাইগুড়ি আসেন বনবিভাগের তদন্তকারী অফিসাররা।

First published: October 31, 2019, 12:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर