• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • পাহাড়ে বনধের মোকাবিলায় নামানো হচ্ছে অতিরিক্ত সরকারি বাস, খোলা হচ্ছে হেল্প ডেস্ক

পাহাড়ে বনধের মোকাবিলায় নামানো হচ্ছে অতিরিক্ত সরকারি বাস, খোলা হচ্ছে হেল্প ডেস্ক

মোর্চার আন্দোলনে বিপাকে পর্যটকরা ৷ হোটেল-দোকান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আতঙ্কে পর্যটকরা ৷

মোর্চার আন্দোলনে বিপাকে পর্যটকরা ৷ হোটেল-দোকান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আতঙ্কে পর্যটকরা ৷

মোর্চার আন্দোলনে বিপাকে পর্যটকরা ৷ হোটেল-দোকান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আতঙ্কে পর্যটকরা ৷

  • Share this:

    #দার্জিলিং: ভরা পর্যটন মরসুমে মোর্চার জঙ্গি আন্দোলনে রণক্ষেত্র দার্জিলিং। প্রাক বর্ষার শান্ত পাহাড়ে অশান্তির মেঘ। আতঙ্কের মধ্যে দার্জিলিং ছাড়াতে শুরু করেছেন পর্যটকরা। যাঁরা দার্জিলিয়ে থেকে গেছেন তাঁদের আতঙ্ক কয়েকগুন বাড়িয়েছে কাল মোর্চার বারো ঘণ্টা বনধের ডাক। সবথেকে বেশি সমস্যায় পড়েন ভিন রাজ্য থেকে আসা পর্যটকরা।

    জ্বলছে পাহাড়। চারিদিকে আতঙ্কের পরিবেশ। তবে অন্য দিনের মত বৃহস্পতিবারও পাহাড়ের সকালটা শান্তিতেই শুরু হয়েছিল। প্রাক বর্ষায় দার্জিলিংয়ের প্রায় সব হোটেলই ছিল পর্যটকে ঠাসা। ঠান্ডার আমেজে সকাল থেকেই ভিড় জমেছিল ম্যালে। ভরা পর্যটন মরসুমে মোর্চা কোনও জঙ্গিপনা করবে না, এই ভারসাতেই পাহাড়ে ভিড় জমিয়েছিলেন সমতলের বাসিন্দারা। কিন্তু দুপুরের দিকে ভুল ভাঙল গুলির শব্দে।

    সপরিবারে মল সংলগ্ন হোটেলে দুপুরের খাবার খেতে গেছিলেন। সেই সময় শুরু গন্ডগোল। নিমেছে উধাও দার্জিলিংয়ের চেনা ছবি।

    মোর্চার আন্দোলনে বিপাকে পর্যটকরা ৷ হোটেল-দোকান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আতঙ্কে পর্যটকরা ৷ আগামীকাল ১২ ঘণ্টা বনধের ডাক দিয়েছে মোর্চা ৷ পর্যটকদের অন্যত্র সরানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে ৷ পর্যটন সংস্থা ও হোটেল মালিকদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে প্রশাসন ৷

    পর্যটকদের নামিয়ে আনার চেষ্টা করা হচ্ছেপর্যটকদের যাতে কোনও সমস্যা না হয়, সে বিষয়ে সব রকমের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে দাবি প্রশাসনের।

    পাহাড়ে বনধের মোকাবিলা করতে আগামিকাল নামানো হচ্ছে অতিরিক্ত সরকারি বাস ৷ ভোর ৫টায় খুলবে বাগডোগরা বিমানবন্দর ৷ পর্যটকদের জন্য খোলা হচ্ছে হেল্প ডেস্ক ৷ NJP স্টেশনেও থাকছে হেল্প ডেস্ক ৷ শিলিগুড়ি বাস টার্মিনাসেও হেল্প ডেস্ক খুলছে রাজ্য পর্যটন দফতর ৷ পর্যটকদের ওঠানামায় বিশেষ পুলিশি ব্যবস্থা করা হয়েছে ৷

    First published: