• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • এপ্রিলের গরমে পাহাড়ে বরফ! পর্যটক শূন্য দার্জিলিং-সিকিমে ব্যবসায়ীদের দীর্ঘশ্বাস

এপ্রিলের গরমে পাহাড়ে বরফ! পর্যটক শূন্য দার্জিলিং-সিকিমে ব্যবসায়ীদের দীর্ঘশ্বাস

বৃহস্পতিবার পাহাড়ে সকাল থেকেই কনকনে ঠাণ্ডা পড়তে শুরু করে।

বৃহস্পতিবার পাহাড়ে সকাল থেকেই কনকনে ঠাণ্ডা পড়তে শুরু করে।

বৃহস্পতিবার পাহাড়ে সকাল থেকেই কনকনে ঠাণ্ডা পড়তে শুরু করে।

  • Share this:

#দার্জিলিং: এপ্রিলের গরমে বরফের সাদা চাদরে মুড়ে গেল দার্জিলিং। হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস আগেই ছিল। আর সেই মতো উত্তরবঙ্গ এবং সিকিমে আজ ব্যপক শিলা বৃষ্টি হয়। আর সমতলে আছড়ে পড়ল কালবৈশাখী। আবহাওয়ার এই তারতম্যে এক ধাক্কায় অনেকটাই নেমে গিয়েছে দার্জিলিঙয়ের তাপমাত্রা।

বৃহস্পতিবার পাহাড়ে সকাল থেকেই কনকনে ঠাণ্ডা পড়তে শুরু করে। দার্জিলিংয়ের রংবুলে সবথেকে বেশী শিলা বৃষ্টি হয়। ৫৫ নং জাতীয় সড়ক মূহূর্তেই সাদা পাথরে মুড়ে যায়। দূর থেকে যেন মনে হবে বরফের সাদা চাদরে মুড়ে গিয়েছে পাহাড়। লক ডাউনে একেই গৃহ বন্দী পাহাড়বাসী। ঘরে বসেই তাড়িয়ে তাড়িয়ে শিলা বৃষ্টি উপভোগ করেন পাহাড়বাসী। ব্যপক শিলা বৃষ্টি হয়েছে সিকিম জুড়ে। উত্তর, দক্ষিন, পূর্ব এবং পশ্চিম সিকিমেই বিকেল থেকে শুরু হয় শিলা বৃষ্টি। মূহূর্তেই গোটা এলাকা শ্বেত শুভ্র হয়ে ওঠে। দূর থেকে দেখে বোঝার উপায় নেই শিলা না বরফ! শুনশান রাস্তায় দেখা নেই কাক পক্ষীরও! চারদিক শুধু সাদা আর সাদা।

এদিন বরফপাতের জেরে তাপমাত্রাও অনেকটাই নেমে আসে। আর বিকেল হতেই সমতলের বিভিন্ন জেলায় শুরু হয় কালবৈশাখী। সঙ্গে বৃষ্টি। মূহূর্তেই আকাশ ঢেকে যায় ঘন কালো মেঘে। বিকেলেই অন্ধকার নেমে আসে। নেমে আসে মুষলধারায় বৃষ্টিও। সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া। সমতলের তাপমাত্রাও অনেকটাই নেমে আসে। লক ডাউনের জেরে রাস্তাঘাট একেই খাঁ খাঁ  করছে। আর ঝড় বৃষ্টি নামতেই বাড়ির জানালা দিয়ে উঁকি ঝুঁকি। সঙ্গে মোবাইল ফোনে দৃশ্য বন্দী করে তোলার হিড়িক পড়ে যায়। তারপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টের ধুম। অসময়ের বৃষ্টির জেরেই তাপমাত্রা নামায় গরমের হাত থেকে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছে  সমতল। তবে হাওয়া অফিস অন্য পূর্বাভাস দিয়েছে। আগামিকাল শিলিগুড়িতে তাপমাত্রা ফের বাড়বে ৬ ডিগ্রি।

Partha Sarkar

Published by:Shubhagata Dey
First published: