• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • 'আমরা ক্ষমতায়, পুলিশ কেন কথা শুনবে না?' প্রকাশ্যেই সওয়াল তৃণমূল নেতার

'আমরা ক্ষমতায়, পুলিশ কেন কথা শুনবে না?' প্রকাশ্যেই সওয়াল তৃণমূল নেতার

তৃণমূল নেতা আব্দুল জলিল আহমেদ৷

তৃণমূল নেতা আব্দুল জলিল আহমেদ৷

  • Share this:

    #মাথাভাঙা: তৃণমূল ক্ষমতায় আছে৷ তাই শাসক দলের নেতাদের কথা শুনতেই হবে পুলিশ- প্রশাসনকে৷ প্রকাশ্য সভায় এমনই দাবি করলেন কোচবিহারের মাথাভাঙার তৃণমূল নেতা আব্দুল জলিল আহমেদ৷ তিনি কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক এবং দলের কোর কমিটিরও সদস্য৷ স্বভাবতই শাসক দলের জেলার শীর্ষ নেতার এই বক্তব্যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে৷

    গত বৃহস্পতিবার বিজেপি-র বেশ কয়েকজন কর্মীর উপরে তৃণমূলের হামলার অভিযোগ ওঠে৷ মাথাভাঙা বিজেপি-র সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ বর্মণ তাঁদের দেখতে যান৷ সেদিন রাতেই তিনি মাথাভাঙা থানাতেও যান৷ অভিযোগ, থানা থেকে অভিজিৎবাবু ফেরার সময় তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়৷ এই ঘটনার প্রতিবাদে শুক্রবার মাথাভাঙা থানা ঘেরাও করে বিজেপি৷ সেখানেও তৃণমূল কর্মীরা বিজেপি কর্মীদের বাধা দেন বলে অভিযোগ৷ এর পাল্টা মাথাভাঙা শহরে রাস্তার উপরেই তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের একটি অফিস বিজেপি ভেঙে দেয় বলে অভিযোগ৷

    এই ঘটনার প্রতিবাদে এ দিন অবস্থান বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল৷ সেখানেই এই বিতর্কিত মন্তব্য করেন ওই তৃণমূল নেতা৷ তিনি বলেন, 'আমরা ক্ষমতায় আছি৷ পুলিশ- প্রশাসন কেন আমাদের কথা শুনবে না? পুলিশকে আমাদের কথা শুনতেই হবে৷ বিজেপি আমাদের পার্টি অফিস ভেঙে ফেলবে এটা আমরা মানব না৷ তৃণমূল কর্মীরা লাঠি হাতে যাবে, কে কী বলে আমরা নেতারা আছি দেখে নেব৷'

    তৃণমূল নেতার এই মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন বিরোধী নেতারা৷ বিজেপি-র জেলা সভানেত্রী মালতি রাভা বলেন, 'তৃণমূলের সন্ত্রাস দিন দিন বাড়ছে৷ পুলিশ দলদাসে পরিণত হয়েছে৷ সেই কারণেই তৃণমূল নেতারা এই ধরনের মন্তব্য করার সাহস পাচ্ছেন৷ '

    Prabir Kundu
    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: