ইটাহারে অমল আচার্যকে তৃণমূলের প্রার্থী না করায় কান্নায় ভেঙে পড়লেন তাঁর অনুগামীরা

ইটাহারে অমল আচার্যকে তৃণমূলের প্রার্থী না করায় কান্নায় ভেঙে পড়লেন তাঁর অনুগামীরা

প্রার্থী পুর্নবিবেচনা না করলে আগামীতে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করে পরবর্তী সিদ্ধান্তের কথা জানানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইটাহারে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা দুলু গঙ্গোপাধ্যায়।

প্রার্থী পুর্নবিবেচনা না করলে আগামীতে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করে পরবর্তী সিদ্ধান্তের কথা জানানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইটাহারে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা দুলু গঙ্গোপাধ্যায়।

  • Share this:

#ইটাহার: ইটাহার বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস অমল আচার্যকে প্রার্থী না করায় কান্নায় ভেঙে পড়লেন ব্লক সভানেত্রী পম্পা চৌধুরী। প্রার্থী পুর্নবিবেচনার দাবিতে বিক্ষোভ, রাস্তা অবরোধ করলেন অমল আচার্যের অনুগামীরা। প্রার্থী পুর্নবিবেচনা না করলে আগামীতে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করে পরবর্তী সিদ্ধান্তের কথা জানানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইটাহারে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা দুলু গঙ্গোপাধ্যায়।

উত্তর দিনাজপুর জেলার ইটাহার বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকসাইটের নেতা অমল আচার্যকে প্রার্থী করার দাবিতে সোচ্চার হলেন ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা। শুক্রবার তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে রাজ্যের ২৯১ টির কেন্দ্রে প্রার্থীদের নাম ঘোষনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারে উত্তর দিনাজপুর জেলায় দুটি বিধানসভা কেন্দ্রে দুই জয়ী প্রার্থীকে পরিবর্তন করেছেন তিনি।

করনদিঘি কেন্দ্রে জয়ী প্রার্থী মনোদেব সিংহকে প্রার্থী করা হয়নি। তাঁর জায়গায় গৌতম পালকে প্রার্থী করা হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের সবচাইতে বড় সিদ্ধান্ত ইটাহার। এই কেন্দ্রে দুইবারের জয়ী ডাকসাইটের নেতা অমল আচার্যকে প্রার্থী না করে জেলা পরিষদের সদস্য তরুন তুর্কি নেতা মুশারফ হোসেনকে প্রার্থী করা হয়েছে। ডাকসাইটের নেতা অমল আচার্যকে প্রার্থী না করায় খবর পেয়েই দলীয় কর্মীরা তাঁর বাড়িতে ভিড় জমান।

অমলবাবু প্রার্থী না হওয়ায় বহু দলীয় কর্মী কান্নায় ভেঙে পড়েন। বিকেল নাগাদ তিনি বাসভবনের সভাকক্ষে হাজির হন। উপচে পড়া অনুগামীদের বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। তাঁর অনুগামীরা ঘোষিত তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মুশারফ হোসেনকে কোনও ভাবেই মেনে নেবেন না বলে কর্মী সমর্থকরা অমলবাবুকে জানিয়ে দেন। দলীয় কর্মী সমর্থকদের বিক্ষোভের মধ্যে হাজির হন ইটাহার ব্লকের সভানেত্রী পম্পা চৌধুরী।

অমলবাবু প্রার্থী না হওয়ায় পম্পাদেবী আবেগ চেপে রাখতে পারেন নি। বিদায়ী বিধায়ককে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। অমলবাবু তাঁকে শান্ত করার চেষ্টা করলেও তিনি সফল হননি। সন্ধ্যায় ইটাহারের সমস্ত অঞ্চল সভাপতি সহ সমস্ত সংগঠনের নেতাদের নিয়ে অমলবাবুর নিজের ক্লাবের মিটিং হলে বৈঠক করেন। বৈঠকে প্রত্যেকে মুখ্যমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। প্রার্থীর নাম পুর্নবিবেচনার জন্য তাঁরা আর্জির দাবি জানান। বিদায়ী বিধায়ক মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই আর্জি জানাবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন। পরবর্তীতে অমল অনুগামী ইটাহার চৌরাস্তা মোড় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে।

অমলবাবুর এই দাবিকে গুরুত্ব দেওয়া না হলে আগামীদের দলীয় কর্মী সমর্থকদের নিয়ে বৈঠক করে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। তবে দল পরিবর্তন নিয়ে এখনই কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান ইটাহার তৃণমূল কংগ্রেস ব্লক নেতা দুলু গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি আরও জানান, ইটাহারে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মুশারফ হোসেনকে তাঁরা মানবেন না। যিনি মানুষের সুখে দুঃখে থাকেন তাকে প্রার্থী না করে জনসমর্থনহীন এক ব্যক্তিকে প্রার্থী করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই সিদ্ধান্ত তাঁরা মানবেন না।

Uttam Paul

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: