মাস্কে লেখা 'বাংলা আমার মা', রাখি বন্ধনে অভিনব ‘মাস্ক বন্ধন’ হল রায়গঞ্জে

রাজ্য সরকারের পাঠানো রাখিবন্ধন উৎসবের উপহারস্বরূপ "বাংলা আমার মা " মাস্ক বিতরণ করে পালন করা হল "সংস্কৃতি দিবস"।

রাজ্য সরকারের পাঠানো রাখিবন্ধন উৎসবের উপহারস্বরূপ "বাংলা আমার মা " মাস্ক বিতরণ করে পালন করা হল "সংস্কৃতি দিবস"।

  • Share this:

    Uttam Paul

    #রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ রাখিবন্ধন উৎসব এ বার সচেতনতার মাস্ক বন্ধনে রূপান্তরিত করল তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত রায়গঞ্জ পুরসভা। হাতে রাখির বদলে সৌহার্দ্য আর ভাতৃত্বের বন্ধন ঘটাল মুখে সচেতনতার মাস্ক পরিয়ে দেওয়ার মাধ্যমে। রাজ্য সরকারের পাঠানো রাখিবন্ধন উৎসবের উপহারস্বরূপ "বাংলা আমার মা " মাস্ক  বিতরণ করে পালন করল "সংস্কৃতি দিবস"।  রায়গঞ্জ শহরের পুর এলাকার ১০টি বাজারে আসা মানুষদের হাতে তুলে দেওয়া হল রাজ্য সরকারের " বাংলা আমার মা " মাস্ক । এ বার করোনা আবহে রাখি পরানোর পরিবর্তে মুখে মাস্ক পরিয়ে করোনা সচেতনতার বার্তা দিলেন পুরসভার কাউন্সিলরগণ। পুরসভার অভূতপূর্ব ও অভিনব এই রাখি বন্ধন উৎসবকে স্বাগত জানিয়েছেন পুর নাগরিকেরা।

    রাখিবন্ধনের সঙ্গে আমাদের দেশের সামাজিক আন্দোলনের ইতিহাস শতাধিক বছরের পুরনো। জাতিগত বিরোধের রাজনীতিকে পরাস্ত করতে এক সময় রাখি পরানোকে সামাজিক অভ্যুত্থানের চেহারা দেওয়া হয়। এ বছর করোনা মহামারীর সময়ে রাজ্যের সরকার আজকের এই পবিত্র দিনটিকে "সংস্কৃতি দিবস" হিসেবে পালন করে মাস্কবন্ধনের মধ্য দিয়ে রাজ্যের মানুষের মধ্যে সৌহার্দ্য ও ভাতৃত্বের বন্ধন ঘটালো। অতিমারি কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে সকল প্রতিকূলতাকে জয় করে সৌহার্দ্য,  ভ্রাতৃত্ব ও ঐক্যের মহামিলন উৎসব রাখিবন্ধন উদযাপনের মতো মহৎ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের সেই নির্দেশ মতোই  তৃণমূল  কংগ্রেস পরিচালিত রায়গঞ্জ পুরসভা সংস্কৃতি দিবস হিসেবে পালন করে তাকে সর্বাঙ্গীণ সাফল্যমণ্ডিত করতে রায়গঞ্জ শহরের দেবীনগর,  কলেজপাড়া, বন্দর, মোহনবাটি, গোশালা বাজার সহ ১০টি বাজারে আসা ক্রেতা বিক্রেতাদের হাতে তুলে দিল "বাংলা আমার মা" লেখা মাস্ক।  রাখিবন্ধন উৎসবে এই "বাংলা আমার মা" মাস্ক বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জ পুরসভার চেয়ারম্যান সন্দীপ বিশ্বাস,  প্রবীন কাউন্সিলর তপন দাস  সহ রায়গঞ্জ পুরসভার কাউন্সিলরগণ।

    Published by:Simli Raha
    First published: