লকডাউনে সমস্যায় পড়েছেন? যোগাযোগ করুন এই সংগঠনের সঙ্গে

লকডাউনে সমস্যায় পড়েছেন? যোগাযোগ করুন এই সংগঠনের সঙ্গে

রাজ্য এবং কেন্দ্র বারবার বলে আসছে সবাই বাড়িতে থাকুন। অহেতুক রাস্তায় নয়। খুব প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে নয়।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: মারণ করোনার থাবা। দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। সেইসঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। গোটা রাজ্যেই লকডাউন জারি করেছে সরকার। ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন যারা লকডাউন যারা মানবেন না তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে ৷ তবুও অনেকেই তা মানছেন না। করোনা সতর্কতায় কাঁপছে গোটা রাজ্য। ঘরবন্দি রাজ্যের বড় অংশ।

রাজ্য এবং কেন্দ্র বারবার বলে আসছে সবাই বাড়িতে থাকুন। অহেতুক রাস্তায় নয়। খুব প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে নয়। কেননা দ্রুত গতিতে করোনা ভাইরাস ছড়াচ্ছে। আতঙ্ক কাঁপছে গোটা দেশ। আতঙ্ক কাটানোর বার্তাও দিচ্ছে রাজ্য। এই পরিস্থিতির জেরে সবচেয়ে বেশি দুঃশ্চিন্তায় পড়েছেন প্রবীন নাগরিকেরা। শিলিগুড়ির নাগরিকরা জানিয়েছেন যে ওষুধ যাদের নিত্য সঙ্গী। অনেকেরই প্রয়োজন জরুরী সামগ্রীও। কিন্তু বাইরে বেরোনোর উপায় নেই। শিলিগুড়িতে এমন প্রবীন নাগরিকদের পাশে শহরেরই এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছে এই সংগঠন। সংগঠনটির পোস্ট - "আপনি ঘরে থাকুন। আপনার দরকারি জিনিসগুলো ঘরের দরজায় পৌঁছে দেব আমরা। যোগাযোগ করুন ‘9749683775’ নম্বরে। ফোন এলেই সংগঠনের সদস্যরা পৌঁছে যাবে আপনার বাড়ির দরজায়। আপনার প্রয়োজনীয় ওষুধ থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী নিয়ে হাজির হবে তারা।

২৪ ঘন্টাই খোলা থাকছে এই নম্বর। প্রবীনদের পাশে সর্বদাই থাকবে তারা। আর এই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রবীন নাগরিক থেকে শহরবাসী সকলেই। এই সঙ্কটেই মানুষের পাশে দাঁড়াতেই এই ভাবনা, জানিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্য রনি রাহা। সরকার গৃহবন্দি থাকবার নির্দেশ দিয়েছে। তাই প্রবীনেরা যাতে সমস্যায় না পড়ে, তাই পথে থাকা, পাশে থাকা।

First published: March 24, 2020, 7:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर