করোনা রোগীদের বিনা খরচে অক্সিজেন পরিষেবা দেবে রামগঞ্জের স্বেচ্ছাসেবি সংস্থা

প্রতীকী চিত্র ।

সংস্থার পক্ষ থেকে দু’টি মোবাইল নম্বর দেওয়া হয়েছে। এই ফোন নম্বরে ফোন করলে দ্রুত তাঁদের কাছে পৌঁছে যাবেন সংস্থার সদস্যরা।

  • Share this:

    Uttam Paul

    #রামগঞ্জ: অক্সিজেন সিলিন্ডার কেনার অর্থ সাহায্যের সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেদন। ব্যাপক সাড়া। সাহায্যের অর্থ দিয়ে কিনে ফেলল তিনটি সিলিন্ডার। উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর ব্লকের রামগঞ্জের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বিনামূল্যে অক্সিজেন পরিষেবা চালু করল। প্রত্যান্ত গ্রামে এই অক্সিজেন পরিষেবা চালু হওয়ায় খুশী স্থানীয় বাসিন্দারা।

    মানুষ ইচ্ছা করলেই সব পারে। এমনই করে দেখাল ইসলামপুর ব্লকের রামগঞ্জের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। সারা রাজ্যে করোনা সংক্রমণ এখন ভয়াবহ আকার নিয়েছে। প্রতিদিন বহু মানুষের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটছে। সারা রাজ্য জুড়েই অক্সিজেনের আকাল দেখা দিয়েছে। বহু মানুষ অক্সিজেনের অভাবে মারা যাচ্ছেন। প্রত্যন্ত গ্রামের মানুষ এই পরিষেবা পেতে কালঘাম ছুটছে। গ্রামীণ এলাকায় সামাজিক কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকেন ইসলামপুরের ব্লকের রামগঞ্জের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। সেখানকার করোনা রোগে আক্রান্ত হলে তাঁদের কাছে অক্সিজেন পৌছানোটা জরুরী। সরকারি পরিষেবা তাঁদের কাছে দূর অস্ত। কিন্তু গ্রামীণ এলাকার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার আর্থিক সামর্থ সে রকম নেই। তবে কি গ্রামের মানুষের অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু ঘটবে। এটা মানতে পারেননি সংস্থার সদস্যরা। বহু মানুষ আছেন যাঁদের আর্থিক সচ্ছলতা রয়েছে। তাঁদের সমাজের জন্য কিছু করার বাসনাও রয়েছে। কিন্তু লোকের অভাবে সেই আশাপূরণ হয় না।

    স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যরা সে কথা ভেবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় অক্সিজেন সিলিন্ডার কেনার জন্য অর্থ সাহা্য্যের আবেদন জানান। আবেদন জানাতেই হাতে হাতে ফল। ইতিমধ্যে স্বেচ্ছাসেবি সংস্থার একাউন্টে ৩৫ হাজার ৪৫০ টাকা অনুদান জমা পড়ে। সেই অর্থ জমা পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই কিনে ফেললেন তিনটি অক্সিজেন সিলিন্ডার। এই সিলিন্ডার এখন গ্রামীণ এলাকার করোনা আক্রান্ত রোগীরা বিনা পয়সায় পরিষেবা পাবেন। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার কর্নধার সিদ্দিকি আলম জানান, সংস্থার পক্ষ থেকে গ্রামীণ এলাকার মানুষদের একাধিক বিষয়ে তাঁরা সাহায্য করবে। যদি কোনও করোনা রোগীর অক্সিমিটারের প্রয়োজন হয় তাঁরাই সেই অক্সিমিটার সরবরাহ করবেন। এলাকার পরিবেশকে জীবাণু মুক্ত করবেন তাঁরা । করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাড়িতে সেনেটাইজ করে দেবেন।

    স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার এ ধরনের উদ্যোগে খুশী এলাকার বাসিন্দারা। সন্তোষ সরকার নামে এক বাসিন্দা জানালেন গ্রামীণ এলাকার মানুষদের কথা ভেবে তাঁরা যে উদ্যোগ নিয়েছেন তাঁকে অভিনন্দন জানাতেই হয়। তাঁদের প্রচেষ্টায় করোনা আক্রান্ত মুমুর্ষু রোগীরা বিনা পয়সায় অক্সিজেন পরিষেবা পেয়ে প্রাণ ফিরে পাবেন। সংস্থার অন্য সদস্য খইরুল আলম জানান, সংস্থার পক্ষ থেকে দু’টি মোবাইল নম্বর দেওয়া হয়েছে। এই ফোন নম্বরে ফোন করলে দ্রুত তাঁদের কাছে পৌঁছে যাবেন সংস্থার সদস্যরা। সাধারণ মানুষের সহযোগিতা নিয়ে আক্রান্ত করোনা রোগীদের পাশে দাঁড়াবেন।

    Published by:Simli Raha
    First published: