সোনা ও সম্পত্তির লালসা, ২ বছরের ঘুমন্ত শিশুকে গলা টিপে মারল জেঠিমা আর কাকু

সোনা ও সম্পত্তির লালসা, ২ বছরের ঘুমন্ত শিশুকে গলা টিপে মারল জেঠিমা আর কাকু

স্থানীয়রা অভিযুক্ত দুই জনকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন। ঘটনায় মানিকচক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

  • Share this:

Sebak DebSarma

#মালদহ : ফাঁকা বাড়ির সুযোগ নিয়েছিলেন জেঠিমা আর কাকু।  অভিযোগ গলা টেপা হল আর্দশর। ঘুমের মধ্য়েই শেষ দু’বছরের শিশুর জীবন।

মালদহের মানিকচক থানার নাজিরপুরের বেগমগঞ্জের ঘটনা। গ্রেফতার অভিযুক্ত রাজেশ মণ্ডল এবং অর্চনা মণ্ডল। তাদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করা হয়েছে।  মৃত  শিশুর গলায় মোটা দাগের চিহ্ন মিলেছে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, অনেক দিন ধরেই বিবাদ মণ্ডলদের বাড়িতে। দিল্লিতে চাকরি করেন আর্দশর বাবা নির্মল মণ্ডল। ঘটনার রাতে বাড়ি ছিলেন না মা সুমিতা মণ্ডল। সামনের বাগানে গিয়েছিলেন ঘাস কাটতে। জানা গিয়েছে সম্পতি আর সোনার লোভেই খুনের ছক কষেছিল রাজেশ আর অর্চনা।

বাড়ি ফিরে সুমিতা দেখতে পান, নেতিয়ে পড়ে আছে তাঁর দু বছরের আর্দশ। ডাকাডাকি করলেও সাড়া মেলেনি। সুমিতার অভিযোগ, পারিবারিক বিবাদের জন্য়ই কয়েকদিন ধরেই তাঁকে হুমকি দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু, আক্রোশের জেরে ছেলেটাকে মেরেই ফেলবে তা কখনও ভাবতে পারেননি।

শিশু খুনের খবর চাউর হতেই এলাকায় ভিড় করেন স্থানীয় মানুষ। ঘটনা চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। স্থানীয়রা অভিযুক্ত দুই জনকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন। ঘটনায় মানিকচক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ওই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

First published: February 11, 2020, 1:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर