corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনের জের ! ক্ষেতেই নষ্ট হচ্ছে উত্তরবঙ্গের আনারস ! ক্ষতি প্রায় ৪২ কোটি টাকা !

লকডাউনের জের ! ক্ষেতেই নষ্ট হচ্ছে উত্তরবঙ্গের আনারস ! ক্ষতি প্রায় ৪২ কোটি টাকা !

যে আনারস বিক্রি হত ২০ থেকে ৩০ টাকা প্রতি পিস। তা এখন বিক্রি হচ্ছে ৮ থেকে ১০ টাকায়!

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: লকডাউনের জের। সংকটে উত্তরের আনারস চাষীরা। শিলিগুড়ির বিধাননগরের খ্যাতি আনারস চাষের জন্যে। এখানে ৯ হাজার হেক্টর জমিতে আনারস চাষ হয়ে থাকে। উত্তরবঙ্গের অন্যত্র যোগ করলে চাষ হয়ে থাকে ২০ হাজার হেক্টর জমিতে। সারা বছরই  আনারসের চাষ হয় এই সব জায়গায়। শীতে ফলন কম হয়ে থাকে। গরম পড়তেই ফলন ভাল হয়। এই সময়ে ফলন সবচাইতে বেশী হয়।  লকডাউনের জেরে বন্ধ গাড়ি চলাচল। আর তাই কয়েক কোটি টাকা ক্ষতির মুখে আনারস চাষীরা।

বড় লাভের আশায় মহাজনদের কাছ থেকে সুদে মোটা অঙ্কের টাকা ধার করে জমিতে আনারস চাষ শুরু করেছিলেন। ফলন ভালই হয়েছিল। লাভের মুখ দেখার অপেক্ষায় ছিলেন চাষীরা। আর ঠিক ওই সময় বাধ সাধলো করোনা। ক্রমেই দাপট বাড়াতে থাকে মারণ করোনার। করোনার মোকাবিলায় দেশজুড়েই চলছে লকডাউন। তৃতীয় দফার লকডাউন চলছে। ভিন রাজ্যের লরি আসছে না। প্রতি বছর এই সময়ে বিধাননগর থেকে আনারস যায় দেশের বিভিন্ন অংশে। দিল্লি, মুম্বাই, মহারাষ্ট্র, আমেদাবাদ সহ ভিন রাজ্যে রপ্তানি হয় আনারস। কিন্তু লকডাউনের জেরে রপ্তানি বন্ধ। এই সময়ে উত্তরবঙ্গে ২১ হাজার টন আনারসের চাষ হয়েছে। মরসুমের সবচাইতে বেশী। রপ্তানী বন্ধের জেরে ক্ষেতেই নষ্ট হচ্ছে আনারস। মাথায় হাত চাষীদের। দামও কম। কার্যত জলের দরে বিক্রি হচ্ছে আনারস।

যে আনারস বিক্রি হত ২০ থেকে ৩০ টাকা প্রতি পিস। তা এখন বিক্রি হচ্ছে ৮ থেকে ১০ টাকায়! লাভের কথা দূরে থাক। যে টাকা বিনিয়োগ করেছিলেন, তাও উঠে আসছে না। মহাসঙ্কটে উত্তরের আনারস চাষীরা। ক্ষতির অঙ্ক প্রায় ৪২ কোটি টাকা। কিভাবে তা সামলাবেন, তাই ভাবাচ্ছে চাষীদের। আনারস চাষী সুশান্ত রায় জানান, ক্ষেতের সব আনারসই নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ফলন ভালই হয়েছিল। কিন্তু লকডাউনে সব শেষ। চিত্তরঞ্জন ঘোষ নামে এক আড়তদার জানান, এই ক্ষতি কাটিয়ে কবে উঠতে পারব জানা নেই। বাইরে রপ্তানি হয়নি।

PARTHA PRATIM SARKAR

Published by: Piya Banerjee
First published: May 7, 2020, 11:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर