corona virus btn
corona virus btn
Loading

সীমান্তে ভারতীয় জওয়ানদের মৃত্যুর প্রতিবাদে, নাম বদলাচ্ছে শিলিগুড়ির হংকং মার্কেটের !

সীমান্তে ভারতীয় জওয়ানদের মৃত্যুর প্রতিবাদে, নাম বদলাচ্ছে শিলিগুড়ির হংকং মার্কেটের !

দ্রুত সমিতির বৈঠক করে নতুন নাম স্থির করা হবে। এমনকী চিনের কোনো পণ্য সামগ্রী মার্কেটে আসবে না।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: সত্তরের দশকের শুরুর কথা। শিলিগুড়ির বিধান মার্কেটে পথ চলা শুরু করে হংকং মার্কেট। ক্রমেই এর পরিচিতি ছড়িয়ে পড়তে থাকে। লাগোয়া নেপালের ধুলাবাড়ি থেকে আনা হত বিদেশী সামগ্রী। মূলত চিনের তৈরী অত্যাধুনিক সামগ্রী। সে জামা, কাপড় থেকে ইলেক্ট্রনিক্স সরঞ্জাম, খেলনা, সাবান থেকে ক্রিম, শীতের পোশাক, জুতো। কি না পাওয়া যায়! সস্তায় মেলে সামগ্রী। আর তাই লোকেরা ভিড় জমায় এই মার্কেটে। হাতে গোনা কয়েকটি দোকান দিয়ে শুরু। এখন সংখ্যাটা হাজার ছুঁই ছুঁই। সেদিনের ঝুপড়ি দোকান এখন মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে। বিধান মার্কেট আর শেঠ শ্রীলাল মার্কেটের মাঝে হংকং মার্কেট। স্থানীয়রা তো বটেই। দেশ, বিদেশের পর্যটকেরা পাহাড় বা ডুয়ার্স বেড়িয়ে ঘরে ফেরার পথে ঢুঁ মারেননি হংকং মার্কেটে এমন সংখ্যাটা হাতে গোনা। অর্থাৎ পর্যটকদের কাছে বড় আকর্ষণ এই হংকং মার্কেট।

অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে এই মার্কেটের সঙ্গে। এবারে নাম বদল হতে চলেছে হংকং মার্কেটের। ৫০ বছর হতে চললো। যার সুখ্যাতি বিশ্বজোড়া। সেই মার্কেটের নাম বদল হতে চলেছে। লাদাখ সীমান্তে ভারত ও চিন সেনার সংঘর্ষের জেরে এই পথে নামছেন হংকং মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি। সমিতির সাধারণ সম্পাদক তপন সাহা জানান, চিনের আগ্রাসী মনোভাবের জন্যই এই সিদ্ধান্ত। ভারতীয় সেনা জওয়ানের ওপর এই ধরনের হামলার  প্রতিবাদ জানাতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দ্রুত সমিতির বৈঠক করে নতুন নাম স্থির করা হবে। এমনকী চিনের কোনো পণ্য সামগ্রী মার্কেটে আসবে না। যা স্টকে আছে, তা শেষ হলেই দেশীয় সামগ্রী তোলা হবে। এজন্য সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে। দেশীয় পণ্যের ওপর করের বোঝা কমাতে হবে। চিনের সামগ্রীর ওপর কর বাড়াতে হবে। মার্কেটের এক ব্যবসায়ী প্রাণতোষ সাহাও জানান, এছাড়া বিকল্প পথ নেই। চিনের হামলায় বহু ভারতীয় সেনা জওয়ান আজ শহীদ হয়েছেন। তবে নাম পরিবর্তন নিয়ে ইতিমধ্যেই শহরে জোর আলোচনা শুরু হয়েছে। কেননা হংকং মার্কেটের সঙ্গে উত্তরের পর্যটন ব্যবসাও জড়িয়ে রয়েছে।

PARTHA PRATIM SARKAR

Published by: Piya Banerjee
First published: June 17, 2020, 7:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर