স্কুলে বন্ধ মিড মে মিল, খিদে পেটেই পড়াশোনা চলছে পড়ুয়াদের

পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে, প্রশ্ন তুলেছেন অভিভাবকরা।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 08, 2019 07:58 PM IST
স্কুলে বন্ধ মিড মে মিল, খিদে পেটেই পড়াশোনা চলছে পড়ুয়াদের
photo: School
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 08, 2019 07:58 PM IST

#দক্ষিণ দিনাজপুর: চককাশী হাইস্কুলে প্রধানশিক্ষক নেই। নেই ভারপ্রাপ্ত প্রধানশিক্ষকও। সইসাবুদের অভাবে বন্ধ হয়ে গিয়েছে মিড ডে মিল। এমনকী বন্ধ হয়ে গিয়েছে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বেতনও ।

বালুরঘাটের চককাশী শ্যামসুন্দর হাইস্কুল। স্কুলে দু’শ পঞ্চাশেরও বেশি ছাত্রছাত্রী। মিড ডে মিলের দু’মুঠো খাবারে মুখে হাসি ফুটত পড়ুয়াদের। বাসন, রান্নাঘর সব থাকলেও এখন বন্ধ হয়ে গিয়েছে মিড ডে মিলের রান্নাবান্না। তাই খিদে পেটেই করতে হচ্ছে পড়াশোনা। কিন্তু, কেন বন্ধ হল মিড মে মিল?

- জানুয়ারি মাসে প্রধান শিক্ষক অবসর নেন

- প্রধান শিক্ষকের সময়ই বিভিন্ন হিসাবে গরমিলের অভিযোগ ওঠে

- এরপর দায়িত্ব নেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক

Loading...

- ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের ঘাড়ে সেই গরমিলের অভিযোগ চাপে

- অতিষ্ঠ হয়ে তিনিও তিন মাস আগে পদত্যাগ করেন

সইসাবুদ করার কেউ নেই। তাই বন্ধ মিড ডে মিল। এমনকী শিক্ষক-শিক্ষিকারাও বেতন পাচ্ছেন না। স্কুল পরিদর্শককে সমস্যা সমাধানের কথা বলেছেন অতিরিক্ত জেলাশাসক।

পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে, প্রশ্ন তুলেছেন অভিভাবকরা। শিক্ষকরাও চাইছেন দ্রুত অচলাবস্থা কেটে যাক চককাশী শ্যামসুন্দর হাইস্কুলে।

First published: 07:58:29 PM Aug 08, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर