Home /News /north-bengal /
পাহাড়ে পর্যটক টানতে দেশজুড়ে প্রচার শুরু করল রাজ্য সরকার

পাহাড়ে পর্যটক টানতে দেশজুড়ে প্রচার শুরু করল রাজ্য সরকার

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

ডেস্টিনেশন বেঙ্গল, ডেস্টিনেশন হিল। এই স্লোগানে দেশজুড়ে প্রচার শুরু করল রাজ্য সরকার।

  • Share this:

    #দার্জিলিং: ডেস্টিনেশন বেঙ্গল, ডেস্টিনেশন হিল। এই স্লোগানে দেশজুড়ে প্রচার শুরু করল রাজ্য সরকার। গুরুংপন্থীদের আন্দোলনের জেরে পাহাড় থেকে মুখ ফিরিয়েছেন দেশি-বিদেশি পর্যটকরা। ভ্রমণার্থীদের ঢল ফেরাতে জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি-সহ নানা ভাষায় প্রচার চালাবে পর্যটন দফতর ।

    দার্জিলিং। কালিম্পং। কার্শিয়ং। ডুয়ার্স। বাঙালির বড় সাধের পাহাড়। দেশি-বিদেশি পর্যটকদেরও সমান প্রিয়। প্রিয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও। মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই পাহাড়ের পর্যটনের দিকে বিশেষ নজর দিয়েছিলেন তিনি। নিজেও বার বার ছুটে গেছেন পাহাড়ে। গজলডোবা, লামাহাটার মত ডেস্টিনেশনও প্রথম তাঁরই নজরে আসে। পরিসংখ্যান বলছে, বাম আমলের শেষ দিকে বছরে প্রায় আড়াই কোটি পর্যটক আসতেন পাহাড়ে। পরবর্তী সরকারের আমলে এক লাফে সংখ্যাটা পৌঁছয় সাত কোটিতে। কিন্তু বাদ সাধে মোর্চার টানা পাহাড় বনধ। গুরুংবাহিনীর অশান্তির জেরে পাহাড় ধীরে ধীরে পর্যটক শূন্য হয়ে পড়ে। ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়ে পর্যটন ব্যবসা। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পরও বছর শেষে সেভাবে পর্যটক হয়নি পাহাড়ে। সেই ধাক্কা সামলাতে এবার নতুন উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার । পাহাড়ের পর্যটনকে চাঙা করতে দেশজুড়ে প্রচার শুরুর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পর্যটন দফতরকে।

    -----জানুয়ারি থেকে শুরু দেশজুড়ে প্রচার ----প্রচারের শিরোনাম 'ডেস্টিনেশন বেঙ্গল, ডেস্টিনেশন হিল' ---বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি-সহ নানা ভাষায় প্রচার --বিভিন্ন রেল স্টেশন ও বিমানবন্দরে প্রচার ---হোর্ডিং ও ডিসপ্লে বোর্ডের মাধ্যমে চলবে প্রচার ----ব্যবহার করা হবে বাংলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাস্যডর শাহরুখ খানের ছবিও --দার্জিলিঙের পাশাপাশি তুলে ধরা হচ্ছে ডুয়ার্সকেও -----এপ্রিল পর্যন্ত চলবে প্রচার --প্রয়োজনে সময়সীমা আরও বাড়ানো হবে

    পাহাড় পরিস্থিতি এখন সম্পূর্ণ স্বাভাবিক। চালু হয়েছে টয় ট্রেন। চাবাগানের মনোরম দৃশ্যের সাক্ষী থাকতে ফের শুরু হয়েছে সিঙামাটি থেকে তকভার পর্যন্ত ২০ মিনিটের রোপওয়ে রাইড। ঢেলে সাজানো হচ্ছে ফরেস্ট ডিপার্টমেন্টের বনবাংলোগুলিকে। তৈরি হচ্ছে নতুন নতুন হোমস্টে। শুরু হচ্ছে উত্তরবঙ্গ উৎসব। সব মিলিয়ে পর্যটকদের জন্য ফের নতুন রূপে সেজে উঠছে পাহাড়।

    বিদেশীদের কাছে পর্যটনের ফেভারিট ডেস্টিনেশন হিসেবে দেশের মধ্যে রাজ্যের স্থান পঞ্চম। দার্জিলিং বিদেশীদের অলটাইম ফেভারিট। প্রচারের মাধ্যমে পাহাড়ের সেই ঐতিহ্য ফিরিয়ে দিতে বদ্ধপরিকর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

    First published:

    Tags: Hill Tourism, STATE GOVERNMENT

    পরবর্তী খবর