মালদহ জেলা পরিষদে জল্পনা আরও বাড়ল, বেশ কয়েকজন বিজেপি থেকে ফের তৃণমূলে ফেরার সম্ভাবনা

মালদহ জেলা পরিষদে জল্পনা আরও বাড়ল, বেশ কয়েকজন বিজেপি থেকে ফের তৃণমূলে ফেরার সম্ভাবনা

মালদহ জেলা পরিষদের একাধিক সদস্য দোদুল্যমান অবস্থায় রয়েছেন। তাঁদের ঘনঘন শিবির বদল অস্বস্তিতে ফেলেছে শাসক তৃণমূল আর বিরোধী বিজেপিকে ।

মালদহ জেলা পরিষদের একাধিক সদস্য দোদুল্যমান অবস্থায় রয়েছেন। তাঁদের ঘনঘন শিবির বদল অস্বস্তিতে ফেলেছে শাসক তৃণমূল আর বিরোধী বিজেপিকে ।

  • Share this:

Sebak Deb Sarma

#মালদহ: বিজেপি প্রার্থী তালিকা ঘোষণার দিনই মালদহ জেলা পরিষদে নিজেদের সংখ্যাগরিষ্ঠতার জোরালো দাবি তুলল তৃণমূল কংগ্রেস। নিজেদের সমর্থনে ২১ জন সদস্য রয়েছে বলে আজ সাংবাদিক বৈঠক করে সদস্যদের উপস্থিতিতে দাবি করলেন মালদহ জেলা তৃণমূল সভানেত্রী মৌসম বেনজির নূর। একইসঙ্গে মালদহ জেলা পরিষদের দলত্যাগী সভাধিপতি গৌরচন্দ্র মন্ডলের ইস্তফা দাবি করলেন মৌসম নূর।

এর আগে গত ৮ মার্চ কলকাতায় বিজেপির রাজ্য সদর দফতরে মালদহ জেলা পরিষদের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্য যোগ দিয়েছেন বলে দাবি করেছিলেন জেলা সভাধিপতি গৌড় চন্দ্র মন্ডল এবং বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। আজ পাল্টা মৌসম দাবি করেন, বিজেপি যে সব জেলা পরিষদ সদস্যদের যোগদানের কথা বলেছিল তাঁদের মধ্যে চারজন ইতিমধ্যেই তৃণমূলের শিবিরে রয়েছেন। শুধু তাই নয়, মালদহের ডিভিশনাল কমিশনারের কাছে চিঠি দিয়ে তাঁরা তৃণমূলের সঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত লিখিতভাবে জানিয়েছেন।  এই অবস্থায় মালদাহ জেলা পরিষদে বিজেপির সংখ্যাগরিষ্ঠতার দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন মৌসম নূর। আপাতত বিধানসভা ভোটের জন্য অনাস্থা না আনা হলেও বিধানসভা ভোট পর্ব মিটলেই মালদহ জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌড়চন্দ্র মন্ডলকে পদচ্যুত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ তৃণমূল নেবে বলে আজ স্পষ্ট করেন মৌসম।

যদিও মালদা জেলা পরিষদে তৃণমূলের সংখ্যাগরিষ্ঠতার দাবি এ দিন ফের খারিজ করে দিয়েছেন বিজেপির জেলা সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মন্ডল। মৌসমের দাবি উড়িয়ে তিনি পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বলেন, তৃণমূল জেলা পরিষদ সদস্যদের ভাঙানোর চেষ্টা করছে। অনাস্থা প্রস্তাব এলে সঠিক সময়ে গরিষ্ঠতা প্রমাণ করে দেখাবে বিজেপি। মালদহ জেলা পরিষদ বিজেপির দখলে বলে  এ দিন ফের একবার দাবি করেছেন গোবিন্দ মন্ডল।

সূত্রের খবর, মালদহ জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌরচন্দ্র মন্ডলের নেতৃত্বে বেশকিছু তৃণমূল সদস্য বিজেপির শিবিরের গেলেও ইতিমধ্যেই তাঁদের কয়েকজনকে ফিরিয়ে আনতে পেরেছে তৃণমূল। ৩৭ সদস্যের মালদহ জেলা পরিষদে ম্যাজিক ফিগার ১৯। এ দিন জেলা তৃণমূল কার্যালয়ে ঢাকা বৈঠকে ২০ জন জেলা পরিষদ সদস্য হাজির ছিলেন। সব মিলিয়ে ২১ জন জেলা পরিষদ সদস্য তৃণমূলের সঙ্গে রয়েছেন বলে দাবি মৌসমের। তবে এখনও বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের এক জায়গায় করে দেখাতে পারেনি। যদিও বিজেপির শিবিরের যুক্তি, কতজন বিজেপিতে আর কতজন তৃণমূলে সবই স্পষ্ট হয়ে যাবে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হলে।

রাজনৈতিক মহলের মতে, মালদহ জেলা পরিষদের একাধিক সদস্য দোদুল্যমান অবস্থায় রয়েছেন। তাঁদের ঘনঘন শিবির বদল অস্বস্তিতে ফেলেছে শাসক তৃণমূল আর বিরোধী বিজেপিকে । জেলা পরিষদের সদস্যদের অনেকেই এখন রীতিমতো জল মেপে চলছেন। বাস্তবে বিধানসভা ভোটে সরকার যাঁরা গড়বেন মালদহ জেলা পরিষদ  তাঁদের দখলে চলে যাবার সম্ভাবনাই জোরালো।

Published by:Simli Raha
First published:

লেটেস্ট খবর