উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিশেষভাবে সক্ষম মহিলার বাড়িতে গিয়ে ভাতার সংশাপত্র দিয়ে এলেন প্রশাসনের কর্তারা

বিশেষভাবে সক্ষম মহিলার বাড়িতে গিয়ে ভাতার সংশাপত্র দিয়ে এলেন প্রশাসনের কর্তারা

দিন আনা দিন খাওয়া পরিবার। ভাঙাচোরা বাড়ি। সেই বাড়িতে মহকুমা প্রশাসন আসবেন এটা পরিবাররে কাছে স্বপ্ন ছিল।

  • Share this:

#ইসলামপুর: মানবিক ভাতার সংশাপত্র বাড়িতে পৌঁছে দিলেন ইসলামপুর মহকুমা প্রশাসনের কর্তারা। আগামী মাস থেকে এরা হাজার টাকার ভাতা পাবেন। বিশেষভাবে সক্ষম মানুষের হাতে রাজ্য সরকার এধরনের মানবিক ভাতা পৌঁছে দেওয়ায় খুশি বিশেষভাবে সক্ষম মেয়ের মা। রাজ্য সরকারের সমস্ত প্রকল্পের সুযোগ সুবিধা সঠিকভাবে পান না, এই অভিযোগ ছিল। উত্তর দিনাজপুর জেলার গোয়ালপোখর থানার গোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা কালু মার্ডি নামে মহিলা জন্ম থেকে শারীরিক ভাবে অক্ষম। বাবা মারা গিয়েছেন। কালুর মা সুনিয়া হাঁসদা দিন মজুরী করে কোন ক্রমে সংসার চালান। মেয়ের বয়স ২৫ বছর হলেও আজ পর্যন্ত তার মেয়ে কোনও সরকারি ভাতা পাননি। রাজ্যের মানুষের বিরুদ্ধে এনিয়ে একাধিক অভিযোগ রয়েছে। বিধানসভা ভোটের আগে মানুষের এই ক্ষোভ প্রশমিত করতে মুখ্যমন্ত্রী " দূয়ারে সরকার" নামে একটি কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছে। ১১ প্রকল্পের সুবিধা এই ক্যাম্প থেকেই মিলবে বলে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন। এই ক্যাম্পেই আবেদন করেছিলেন কালু মার্ডির মা সুনিয়া হাঁসদা। আবেদন মঞ্জুর হবার পর আবেদনকারিকে প্রশাসনের দ্বারস্থ হতে হয়নি। ইসলামপুর মহকুমা শাসক সপ্তর্ষী নাগ, গোয়ালপোখর বিডিও অতনু ঘোষ সহ ব্লক প্রশাসনের কর্তাদের নিয়ে বিশেষভাবে সক্ষম মহিলা কালু মার্ডির বাড়িতে গিয়ে মানবিক ভাতার সংশাপত্র তুলে দিলেন। আগামী মাস থেকে রাজ্য সরকার তরফ থেকে একহাজার টাকা ভাতা পাবেন বলে মহকুমা শাসক সপ্তষী নাগ জানিয়ে দিয়েছেন।

দিন আনা দিন খাওয়া পরিবার। ভাঙাচোরা বাড়ি। সেই বাড়িতে মহকুমা প্রশাসন আসবেন এটা পরিবাররে কাছে স্বপ্ন ছিল।  তাই অন্যদিনের মত শনিবারও কাজে গিয়েছিলেন সুনিয়া হাঁসদা। কাজ থেকে বাড়িতে ফিরে এসে জানতে পারলেন মহকুমা প্রশাসনের কর্তারা বাড়িতে মেয়ের হাতে ভাতার কাগজপত্র তুলে দিয়েছেন। মাসে একহাজার পাবেন এবার থেকে।টাকার অঙ্ক খুব বেশি না হলেও সরকারের এই উদোগে খুশি সুনিয়াদেবী। মহকুমা শাসক সপ্তষী নাগ জানান, মুখ্যমন্ত্রী দুয়ার সরকার এই জন্যই করেছেন। সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পেতে মানুষকে হয়রানির স্বীকার যাতে হতে না হয়, তার জন্য এই কর্মসূচি। গোয়ালপোখর ব্লক প্রশাসন দ্রুততার সঙ্গে আবেদনকারিদের সুবিধা পৌঁছে দেবার ব্যবস্থা করেছে৷

Published by: Pooja Basu
First published: December 13, 2020, 5:21 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर