• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • সঙ্কট বাড়ল ফরাক্কার, জলের অভাবে বন্ধ ৬ নং ইউনিটও

সঙ্কট বাড়ল ফরাক্কার, জলের অভাবে বন্ধ ৬ নং ইউনিটও

ফিডার ক্যানালে জলের অভাব। বন্ধ হয়ে গেল ফরাক্কা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ছ'নম্বর ইউনিটও। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাশাপাশি তীব্র জলসঙ্কট দেখা দিয়েছে ফরাক্কা টাউনশিপেও। জলের অভাবে সমস্যায় পড়েছেন কর্মী আবাসনগুলির প্রায় ষাট হাজার আবাসিক। সমস্যা মেটাতে পানীয় জল কিনে সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এনটিপিসি। এতদিন সমস্যা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রেই সীমাবদ্ধ ছিল। এবার সমস্যা ছড়াল ফরাক্কা টাউনশিপেও। ফরাক্কা ব্যারেজ থেকে জলের যোগান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্যানালের জলস্তর আশঙ্কাজনক ভাবে কমে গিয়েছে। দেখা দিয়েছে তীব্র জলসঙ্কট। পরিস্থিতি মোকাবিলায় টাউনশিপের ঘরে ঘরে পানীয় জল সরবরাহ করছে এনটিপিসি কর্তৃপক্ষ ৷

ফিডার ক্যানালে জলের অভাব। বন্ধ হয়ে গেল ফরাক্কা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ছ'নম্বর ইউনিটও। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাশাপাশি তীব্র জলসঙ্কট দেখা দিয়েছে ফরাক্কা টাউনশিপেও। জলের অভাবে সমস্যায় পড়েছেন কর্মী আবাসনগুলির প্রায় ষাট হাজার আবাসিক। সমস্যা মেটাতে পানীয় জল কিনে সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এনটিপিসি। এতদিন সমস্যা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রেই সীমাবদ্ধ ছিল। এবার সমস্যা ছড়াল ফরাক্কা টাউনশিপেও। ফরাক্কা ব্যারেজ থেকে জলের যোগান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্যানালের জলস্তর আশঙ্কাজনক ভাবে কমে গিয়েছে। দেখা দিয়েছে তীব্র জলসঙ্কট। পরিস্থিতি মোকাবিলায় টাউনশিপের ঘরে ঘরে পানীয় জল সরবরাহ করছে এনটিপিসি কর্তৃপক্ষ ৷

ফিডার ক্যানালে জলের অভাব। বন্ধ হয়ে গেল ফরাক্কা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ছ'নম্বর ইউনিটও। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাশাপাশি তীব্র জলসঙ্কট দেখা দিয়েছে ফরাক্কা টাউনশিপেও। জলের অভাবে সমস্যায় পড়েছেন কর্মী আবাসনগুলির প্রায় ষাট হাজার আবাসিক। সমস্যা মেটাতে পানীয় জল কিনে সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এনটিপিসি। এতদিন সমস্যা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রেই সীমাবদ্ধ ছিল। এবার সমস্যা ছড়াল ফরাক্কা টাউনশিপেও। ফরাক্কা ব্যারেজ থেকে জলের যোগান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্যানালের জলস্তর আশঙ্কাজনক ভাবে কমে গিয়েছে। দেখা দিয়েছে তীব্র জলসঙ্কট। পরিস্থিতি মোকাবিলায় টাউনশিপের ঘরে ঘরে পানীয় জল সরবরাহ করছে এনটিপিসি কর্তৃপক্ষ ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #ফরাক্কা: ফিডার ক্যানালে জলের অভাব। বন্ধ হয়ে গেল ফরাক্কা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ছ'নম্বর ইউনিটও। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাশাপাশি তীব্র জলসঙ্কট দেখা দিয়েছে ফরাক্কা টাউনশিপেও। জলের অভাবে সমস্যায় পড়েছেন কর্মী আবাসনগুলির প্রায় ষাট হাজার আবাসিক। সমস্যা মেটাতে পানীয় জল কিনে সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এনটিপিসি। এতদিন সমস্যা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রেই সীমাবদ্ধ ছিল। এবার সমস্যা ছড়াল ফরাক্কা টাউনশিপেও। ফরাক্কা ব্যারেজ থেকে জলের যোগান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্যানালের জলস্তর আশঙ্কাজনক ভাবে কমে গিয়েছে। দেখা দিয়েছে তীব্র জলসঙ্কট। পরিস্থিতি মোকাবিলায় টাউনশিপের ঘরে ঘরে পানীয় জল সরবরাহ করছে এনটিপিসি কর্তৃপক্ষ ৷ ফিডার ক্যানালের জলসমস্যায় শুক্রবার রাত থেকেই বন্ধ ছিল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৫টি ইউনিট। শনিবার বিকাল থেকে বন্ধ হয়ে গিয়েছে ছ'নম্বর ইউনিটটিও। ফলে ২১০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন ফরাক্কা তাৎবিদ্যুৎ কেন্দ্রটি পুরোপুরি বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে এনটিপিসি। ফরাক্কার এই সঙ্কট নিয়ে সংসদের সরব হওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরী। জলসঙ্কট মেটাতে ফরাক্কা ব্যারেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দ্রুত বৈঠকে বসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এনটিপিসি কর্তৃপক্ষ। তবে বিদ্যুৎকেন্দ্র চালুর চেয়েও আপাতত আবাসনগুলিতে জল সঙ্কটই বড় মাথাব্যথা হয়ে দাঁড়িয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাটির।

    First published: