চাল গুঁড়ো করে পিঠে অতীত, শিলিগুড়ির রেঁস্তোরায় পিঠে খাওয়ার ভিড়

চাল গুঁড়ো করে পিঠে অতীত, শিলিগুড়ির রেঁস্তোরায় পিঠে খাওয়ার ভিড়

বাঙালির ঘরে ঘরে আজ পিঠে, পুলির আয়োজন। আর এই পার্বণকে অন্য রূপ দিতে তৈরি শিলিগুড়ির এক রেঁস্তোরা। লাঞ্চ থেকে ডিনার! মেনুতে বাঙালির প্রিয় পিঠে, পুলি।

  • Share this:

পৌষ পার্বণ মানেই পিঠে উৎসব। বাঙালির ঘরে ঘরে আজ পিঠে, পুলির আয়োজন। আর এই পার্বণকে অন্য রূপ দিতে তৈরি শিলিগুড়ির এক রেঁস্তোরা। লাঞ্চ থেকে ডিনার! মেনুতে বাঙালির প্রিয় পিঠে, পুলি।

কি নেই সেই তালিকায়? মুগ পুলি, দুধ পুলি, গোকুল পিঠে, ক্ষীর রোল, পাটিসাপটা! আরো কত কী! গত কয়েক বছর ধরেই শিলিগুড়ির বেশ কয়েকটি মিষ্টির দোকানে মেলে পিঠে। এবারে অন্য আঙ্গিকে শিলিগুড়িতে পিঠে, পুলি উৎসবের আয়োজন করেছে এক রেঁস্তোরা। স্বাভাবিকভাবেই প্রথম বছরেই বেশ সাড়া মিলেছে।

লাঞ্চে যেমন নন ভেজের সঙ্গেও চাহিদা ছিল পিঠে, পুলির। তেমনই সন্ধে হতেই ভিড় জমেছে পিঠে, পুলির রেঁস্তোরায়। রাত বাড়তেই বাড়বে চাহিদা। কেউ এসছেন স্বপরিবারে। কেউ বা বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে। বাঙালির ১২ মাসে ১৩ পার্বণের অন্যতম এই পৌষ সংক্রান্তি। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আজকের দিনটি পালিত হল বিভিন্ন নামে।

অসমে বিহু, তামিলনাড়ু, কর্ণাটকে পোঙ্গল, পঞ্জাবে লোহরি। সর্বত্রই আজ সাজো সাজো রব। নতুন বছরে বাঙালির অন্যতম পার্বণকে এক ছাতার তলায় আয়োজন করেছে শিলিগুড়ির আশ্রমপাড়ার এই রেঁস্তোরা। যেখানে মিলছে হরেক রকম পিঠে। পিঠে পার্বণের এই স্টলে যেমন ভিড় জমেছে তেমনই পাড়ার মিষ্টির দোকানেও আজ পাল্লা দিয়ে ভিড়। আগের সেই ঢেঁকিতে কিংবা ছাম গাইনে চালের গুঁড়ো করে পিঠে, পুলির আয়োজন।

আধুনিকতার ছোঁয়ায় ক্রমেই তা হারিয়ে যাচ্ছে। শিলিগুড়ি শহর ঘেঁষা গ্রামে উঁকি মারলে পুরনো সেই প্রথার খোঁজ মিলবে হাতে গোনা বাড়িতে। সময়ের অভাবেই তাই ভিড় বাড়ছে মিষ্টির দোকানে। পিঠে, পুলি তো রয়েছেই। সঙ্গে সংক্রান্তির দিনে হাজির নলেন গুড়ের পায়েস। স্বাভাবিকভাবেই এক ছাতার তলায় সব পেয়ে খুশি তন্ময় বসাক, বিপ্লব বিশ্বাসরা। খুশির হাসি দোকানিদের মুখেও।

রিপোর্টার: পার্থ প্রতিম সরকার

First published: 09:44:20 PM Jan 15, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर