• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • নাকে সর্ষের তেল দিয়ে ডিউটিতে শিলিগুড়ি পুলিশ! করোনা রুখতে কমিশনারের দাওয়াই

নাকে সর্ষের তেল দিয়ে ডিউটিতে শিলিগুড়ি পুলিশ! করোনা রুখতে কমিশনারের দাওয়াই

নাকে সর্ষের তেল ডিউটিতে এসে মাস্ট শিলিগুড়ি পুলিশের

নাকে সর্ষের তেল ডিউটিতে এসে মাস্ট শিলিগুড়ি পুলিশের

খাবারের পাতেও থাকতে হবে সর্ষের তেল। ভাত, ডাল, ভাজার সঙ্গে পুলিশ ক্যান্টিনে সর্ষের তেলে মাখা আলুর চোখা মাস্ট! এমনকী স্যালাডেও সরষের তেল৷ পুলিশ কমিশনার ইতিমধ্যেই প্রতিটি থানায় এই নির্দেশিকা পাঠিয়ে দিয়েছেন।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: করোনা সংক্রমণ ক্রমেই বেড়ে চলেছে। শিলিগুড়িতেও আক্রান্তের গ্রাফ ঊর্ধমুখী। প্রতিদিনই বাড়ছে সংখ্যাটা। আর তাই প্রথম সারিতে দাঁড়িয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামিল পুলিশ কর্মীদের শরীর চাঙ্গা রাখতে নয়া দাওয়াই শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনার ত্রিপুরারি অর্থবের। কাজে যোগ দেওয়ার আগে দু'ফোঁটা সর্ষের তেল দিতে হবে নাকে।

এতে শ্বাসকষ্টজনীত রোগের সমস্যা অনেকটাই দূর হবে। শুধু নাকে সর্ষের তেল দিলেই হবে না। খাবারের পাতেও থাকতে হবে সরষের তেল। ভাত, ডাল, ভাজার সঙ্গে পুলিশ ক্যান্টিনে সর্ষের তেলে মাখা আলুর চোখা মাস্ট! এমনকী স্যালাডেও সরষের তেল৷ পুলিশ কমিশনার ইতিমধ্যেই প্রতিটি থানায় এই নির্দেশিকা পাঠিয়ে দিয়েছেন।

তেল মাখা আলুর চোখা বা স্যালাড কেন? শিলিগুড়ি পুলিশের ডিসি হেড কোয়ার্টার জানান, গলায় কোনও সমস্যা থাকলে তা কেটে যাবে। কমিশনারের টোটকাই এখন মারণ করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে একমাত্র হাতিয়ার শিলিগুড়ির পুলিশ অফিসার থেকে কর্মীদের কাছে। সম্প্রতি রাজ্য পুলিশের ডিজি-র ভিডিও কনফারেন্সেও এই টোটকা নিয়ে শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনার ত্রিপুরারি অর্থব প্রশংসা কুড়িয়েছেন বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। তারিফ করেছেন ডিজি। এমনকী অন্য জেলা বা কমিশনারেটে চালু করা যায় কি না তাও ভাবা হচ্ছে।

সকাল বা বিকেলের টিফিনের মেনুতেও থাকছে সর্ষের তেলের ব্যবহার। পেঁয়াজ, কাঁচা লঙ্কা, চানাচুরের সঙ্গে সর্ষের তেল দিয়ে মুড়ি মাখা৷ এখানেই শেষ নয়, নিয়মিত উষ্ণ গরম জলে ভাপ নেওয়া, নিয়মিত গার্গল করার সঙ্গে লেবু জল বা তুলসি চা খাওয়াটাও আবশ্যিক শিলিগুড়ি পুলিশ মহলে। শিলিগুড়ি পুলিশের ডগ স্কোয়াডের এক কর্মী সস্ত্রীক আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। কালিম্পংয়ের এক মহিলা সহ দুই সিভিক ভলান্টিয়ার আক্রান্ত। তাছাড়া পুলিশ মহলে এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের খবর নেই।

শিলিগুড়ির ডিসি হেড কোয়ার্টার নিমা নরবু ভুটিয়ার কথায়, আমরা ভেবেছিলাম আক্রান্তের সংখ্যা বাড়বে। কিন্তু কমিশনারের টোটকায় সকলে ভালো আছেন। কলকাতায় পুলিশ মহলে আক্রান্তের গ্রাফ বেড়েছে। মালদহতেও পুলিশকর্মীদের মধ্যে ইমিউনিটি বাড়াতে হলুদ দুধের ব্যবহার করা হয়েছে। তবে শিলিগুড়িতে সর্ষে তেল টোটকাতেই বাজিমাত্‍!

PARTHA PRATIM SARKAR

Published by:Arindam Gupta
First published: