• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • বেতনের ২৫ শতাংশ মুখ্যমন্ত্রীর করোনা তহবিলে দিচ্ছেন শিলিগুড়ি পুলিশের ASI

বেতনের ২৫ শতাংশ মুখ্যমন্ত্রীর করোনা তহবিলে দিচ্ছেন শিলিগুড়ি পুলিশের ASI

ইতিমধ্যেই শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনারের কাছে অনুমতি চেয়ে চিঠিও দিয়েছেন তিনি। তাঁর নাম বিকাশ সরকার। তিনি জানান, তাঁর ছেলের মৃত্যু হয় ব্লাড ক্যানসারে।

ইতিমধ্যেই শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনারের কাছে অনুমতি চেয়ে চিঠিও দিয়েছেন তিনি। তাঁর নাম বিকাশ সরকার। তিনি জানান, তাঁর ছেলের মৃত্যু হয় ব্লাড ক্যানসারে।

ইতিমধ্যেই শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনারের কাছে অনুমতি চেয়ে চিঠিও দিয়েছেন তিনি। তাঁর নাম বিকাশ সরকার। তিনি জানান, তাঁর ছেলের মৃত্যু হয় ব্লাড ক্যানসারে।

  • Share this:

করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর পর মুখ্যমন্ত্রীরও ত্রাণ তহবিল খোলা হয়েছে। দেশের বড় বড় শিল্পপতি থেকে ক্রিকেটার, ফুটবলার থেকে সেলেবরা এগিয়ে এসেছেন। যে যার সাধ্যমতো এই ত্রাণ তহবিলে অর্থ অনুদান করছেন। মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলেও রাজ্যের অভিনেতা, অভিনেত্রী থেকে শুরু করে ক্রীড়াবিদেরা এগিয়ে এসছেন। এবার এগিয়ে এলেন শিলিগুড়ি পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের এক এএসআই। নিজের বেতনের ২৫ শতাংশ অর্থ তিনি মুখ্যমন্ত্রীর করোনা ত্রাণ তহবিলে অনুদান দিতে চান।

ইতিমধ্যেই শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনারের কাছে অনুমতি চেয়ে চিঠিও দিয়েছেন তিনি। তাঁর নাম বিকাশ সরকার। তিনি জানান, তাঁর ছেলের মৃত্যু হয় ব্লাড ক্যানসারে। মাত্র ৪ বছর বয়সে বিকাশবাবুর ছেলে ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত হয়। ৮ বছর বয়সে মারা যায়। বহু চেষ্টা করেছিলেন ফুটফুটে ছেলেকে বাঁচিয়ে তুলতে। মুম্বই ছুটে যেতেন ২১ দিন পর পর। ওই সময় ছেলের চিকিৎসার টাকা জোগাড় করতে হিমসিম খেতে হয় তাঁকে। সঙ্গে আসা-যাওয়ার ট্রেন ভাড়া থেকে থাকা-খাওয়ার খরচ। ওই সময় যোগাযোগ করেছিলেন আজকের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবের সঙ্গে। রেলমন্ত্রী ছিলেন তখন মমতা বন্দোপাধ্যায়।

গৌতম দেবের অনুরোধে বিকাশবাবুর ছেলের চিকিৎসার জন্যে ট্রেনের টিকিট ছাড় দিয়েছিলেন তৎকালীন রেলমন্ত্রী আজকের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। এবারে কোভিড ১৯ মোকাবিলায় এগিয়ে এসছেন মুখ্যমন্ত্রী। অনেকেই মুখ্যমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে সামর্থ্য অনুযায়ী অর্থ অনুদান করছেন। যা দেখে বসে থাকতে পারেননি শিলিগুড়ি পুলিশের এই এ এস আই। সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন কিছু করবেন।

সেই মতো নিজের এক মাসের বেতনের ২৫ শতাংশ তিনি এই ত্রান তহবিলে অনুদান হিসেবে দিতে চান। যা অঙ্কের হিসেবে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৪৬২ টাকা। তাঁর এই এগিয়ে আসাকেই অনেকেই সেলুট জানিয়েছেন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বিকাশবাবুকে দেখে অনেকেই এগিয়ে আসবেন। করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে আরো অনেকেই এগিয়ে এলে এই লড়াই আরো শক্তিশালী হবে।

PARTHA PRATIM SARKAR

Published by:Arindam Gupta
First published: