উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

'কেন্দ্রে কৃষক বিরোধিতা আর এখানে কৃষক দরদ!' বিজেপি-মিমকে তোপ সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীর

'কেন্দ্রে কৃষক বিরোধিতা আর এখানে কৃষক দরদ!' বিজেপি-মিমকে তোপ সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীর

সিদ্দিকুল্লাহ আরও বলেন, বিজেপিকে এরাজ্যে ক্ষমতায় আসতে দেব না। যাঁরা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাচ্ছেন তাঁদের উদ্দেশ্য করে সিদ্দিকুল্লা এদিন বলেন, আসলে তাঁদের পেট ভরে গেছে।

  • Share this:

মালদহ: বিজেপি এবং মিমকে একযোগে আক্রমণ শানালেন রাজ্যের মন্ত্রী ও জামায়াতে উলামায়ে হিন্দের নেতা সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার রাজ্য সফরকে কটাক্ষ করে সিদ্দিকুল্লা এদিন বলেন, "পার্লামেন্টে টেবিল চাপড়ে কৃষক বিরোধী আইন করেছেন। আর বাংলায় ভন্ডামি করতে এসেছেন। এ হল মুখ আর মুখোশ। কেন্দ্রের কৃষক বিরোধী আইন হল মুখ, আর এটা হল মুখোশ। কৃষি আইন প্রত্যাহার না করলে এ রাজ্য কিছু হবে না। ভন্ডামি, প্রতারণার জায়গা বাংলা নয়।"

সিদ্দিকুল্লাহ আরও বলেন, বিজেপিকে এ রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে দেব না। যাঁরা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাচ্ছেন তাঁদের উদ্দেশ্য করে সিদ্দিকুল্লা এদিন বলেন, আসলে তাঁদের পেট ভরে গেছে। খিদে লেগেছে আবার। তাই খেতে চাইছে।মিমকে আক্রমণ করে সিদ্দিকুল্লা বলেন,"মিম হল বিজেপির তৈরি করা। মিমের জায়গা বাংলায় নেই। মিম খুব শীঘ্রই বুঝতে পারবে কত ধানে কত চাল। বাংলায় মিম এর কোন অস্তিত্ব নেই। বিজেপি মিমকে উৎসাহ দিচ্ছে। বাংলার মানুষ মাটির সঙ্গে থাকে। মিমের ধাপ্পাবাজি আমাদের কাছে গ্রহণীয় নয়।"

কেন্দ্রের কৃষি আইনের বিরোধিতা আজ মালদহের সুজাপুরের হাতিমারি মাঠে প্রতিবাদ সভার ডাক দেয় জামায়াতে উলামায়ে হিন্দ। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। প্রচুর সংখ্যালঘু মানুষ এই সমাবেশে যোগ দেন। কিছুদিন আগেই তৃণমূলের কিছু নেতার খবরদারির নিয়ে সরব হয়েছিলেন মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। তৃণমূলের শৃংখলা নিয়েও  প্রশ্ন তুলেছিলেন তিনি। এ নিয়ে রাজ্যজুড়ে বিতর্কও হয়। তবে এদিন তৃণমূল সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেননি তিনি।

পরিবর্তে আক্রমণ শানান প্রতিপক্ষ বিজেপি আর মিমকে উদ্দেশ্য করে। মালদহের মত সংখ্যালঘু প্রধান জেলায় সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী কী বার্তা দেন সেদিকে নজর ছিল রাজনৈতিক মহলের। বিশেষ করে বিজেপি বিরোধী লড়াইয়ে মালদহের সংখ্যালঘু ভোট কংগ্রেস, তৃণমূল না মিম, কোন দিকে কত অংশ যায় তার উপরেই নির্ভর করছে জেলার বিধানসভা ভোটের ফল। এই অবস্থায় সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী অবশ্য তৃণমূলের সঙ্গে থাকার বার্তাই দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, তাঁর দাবি মিম মালদহে সুবিধে করতে পারবে না।

-সেবক দেবশর্মা

Published by: Arka Deb
First published: January 9, 2021, 10:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर