Home /News /north-bengal /
Russia Ukraine War|| যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে আটকে প্রত্যন্ত গ্রামের ডাক্তারি পড়ুয়া, সুস্থ হয়ে ফিরুক প্রার্থনায় গ্রামবাসীরা

Russia Ukraine War|| যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে আটকে প্রত্যন্ত গ্রামের ডাক্তারি পড়ুয়া, সুস্থ হয়ে ফিরুক প্রার্থনায় গ্রামবাসীরা

ইউক্রেনে আটকে পড়া পড়ুয়ার মা।

ইউক্রেনে আটকে পড়া পড়ুয়ার মা।

Dhupguri resident medical student stuck in Ukraine: জলপাইগুড়ি জেলার ধূপগুড়ি ব্লকের প্রত্যন্ত কাজীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বাবন বিশ্বাস ও রেখা বিশ্বাস। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে। ছেলে ইউক্রেনে পড়াশুনা করেন।

  • Share this:

    #ধূপগুড়ি: গ্ৰামের ছেলে আটকে পড়েছে ইউক্রেনে । আর তাই রীতিমতো চিন্তিত পরিবারসহ গ্রামবাসী। জলপাইগুড়ি জেলার ধূপগুড়ি ব্লকের প্রত্যন্ত কাজীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বাবন বিশ্বাস ও রেখা বিশ্বাস। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে। বাবন বিশ্বাসের ছোট্ট একটি গালামালের দোকান রয়েছে পার্শ্ববর্তী কাজীপাড়া বাজারে। মা রেখা বিশ্বাস বাড়ির কাজ সামলান। তবে আর্থিক থেকে শুরু করে সমস্ত সমস্ত বাধা কাটিয়ে আশিস পড়াশোনায় ছোটবেলা থেকেই ভাল। আর তাই গ্রামের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে আজ থেকে বছর চারেক আগে আশিস ইউক্রেনে মেডিক্যাল নিয়ে পড়ার সুযোগ পায়। তারপর থেকে ইউক্রেনে রয়েছে সে।

    করোনার কারণে লকডাউনে বাড়িতে এসেছিল। দীর্ঘদিন বাড়িতে থাকার পর পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হতেই গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ফের ইউক্রেনে পাড়ি দেন আশিস। আশিস ইউক্রেনে থাকলেও ফোনে নিয়মিত কথা বলতেন মা-বাবার সঙ্গে। কিন্তু বর্তমানে পরিস্থিতি বদলে গিয়েছে। যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে অনেকেই আটকে পড়েছেন। আর ইউক্রেনের যুদ্ধের খবর দেখে চিন্তিত মা রেখা বিশ্বাস।

    আরও পড়ুন: যুদ্ধ পরিস্থিতিতে ইউক্রেনে আটকে রোহিত, বর্ধমানে দুশ্চিন্তার পরিবারের সদস্যরা

    শুক্রবার সকালে দেখা গেল রেখা দেবী বাড়ির কালী মন্দির পরিষ্কার করছেন এবং দেবীর কাছে প্রার্থনা করছেন। কান্নায় ভেঙে পড়েছেন।জানালেন, 'আমার এখন একটাই প্রার্থনা ছেলে সুস্থভাবে বাড়ি ফিরে আসুক। এক বছরের বেশি সময় হল ইউক্রেনে আছে আশিস। ছেলের সঙ্গে সারারাত ফোনে কথা হয়েছে । সকালেও ফোনে কথা হয়েছে। বলল ব্যবস্থা হচ্ছে তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরে আসবে।'

    আরও পড়ুন: ভয়ঙ্কর চিৎকার! বাইক-সহ আরোহীকে চাকায় পিষে টানল লরি! ধূপগুড়ির রাস্তা ভাসল রক্তে

    আশিসের বাবা বাবন বিশ্বাস বলেন, 'ছেলের জন্য চিন্তায় আছি। যদিও ছেলে জানিয়েছে সে নিরাপদেই আছে। তবুও আমরা চাই ছেলে দ্রুত সুস্থ শরীরে বাড়ি ফিরে আসুক।' প্রতিবেশী আসমানুর জামান বলেন, 'প্রত্যন্ত গ্রামে একটা ছেলে ইউক্রেনে পড়াশোনা করে। এটা আমাদের গর্ব। তা ছাড়া আশিস খুব ভাল ছেলে। তাই বর্তমানে ইউক্রেনে যেহেতু যুদ্ধ চলছে তাই আমরা গ্রামবাসীরাও সবাই চিন্তিত। আমরা চাই ও খুব দ্রুত সুস্থভাবে বাড়িতে ফিরে আসুক।' আশিস যাতে সুস্থ ভাবে ফিরে আসে বাড়িতে। এখন সেই দিকেই তাকিয়ে আছে মা, বাবা, আশিসের বন্ধু-সহ গ্ৰামবাসী।

    রকি চৌধুরি 

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: Dhupguri, Russia Ukraine Crisis

    পরবর্তী খবর