corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফের ভয়াবহ নদী ভাঙন শুরু মালদহের বৈষ্ণব-নগরে ! আতঙ্কে এলাকার মানুষ !

ফের ভয়াবহ নদী ভাঙন শুরু মালদহের বৈষ্ণব-নগরে ! আতঙ্কে এলাকার মানুষ !

শুক্রবার বিকেল থেকে শুরু হওয়া নদী ভাঙনে কয়েক বিঘা জমি গঙ্গা গর্ভে চলে যায় ।

  • Share this:

#মালদহ: ফের গঙ্গা ভাঙন শুরু মালদহে। বৈষ্ণবনগর এর বীরনগর -১ পঞ্চায়েতের দুর্গারামটোলা, ভীমাগ্রাম এলাকায় নদী ভাঙন। শুক্রবার বিকেল থেকে শুরু হওয়া নদী ভাঙনে কয়েক বিঘা জমি গঙ্গা গর্ভে। এলাকায় চরম আতঙ্ক। এর আগে ১ এবং ৪ সেপ্টেম্বর ভয়াবহ ভাঙনের ঘটনা ঘটে। মাঝে দুই সপ্তাহ ভাঙন বন্ধ থাকলেও কোনো কাজই হয়নি অভিযোগ স্থানীয়দের। এর আগে ভাঙনে এই দুই গ্রামের শতাধিক পরিবার ভিটেমাটি হারান। প্রচুর জমি গঙ্গা গর্ভে চলে যায় । এখনও তাঁদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা হয়নি। অনেকে এখনও রয়েছেন কার্যত খোলা আকাশের নিচে।

এরইমধ্যে নতুন করে ভাঙন শুরু হওয়ায় বাড়ছে আশঙ্কা। নদীপাড়ের বাসিন্দাদের ক্ষোভ, যে এলাকায় ভাঙন হচ্ছে সেই এলাকায় ভাঙনরোধের দায়িত্বে রয়েছে ফারাক্কা ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ। এবছর বর্ষা শুরুর আগে তারা ভাঙ্গন রোধে কোনও কাজই করেনি। সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ভাঙন শুরু হওয়ার পর প্রথমে নদীপাড়ে বালির বস্তা ফেলে ভাঙন রোধের চেষ্টা করে ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু, সেইসব বালির বস্তার গার্ডওয়াল ভাঙনে নদী গর্ভে ধসে পড়ে। এরপর গত দু'সপ্তাহ ধরে ভাঙন বন্ধ ছিল। একই সঙ্গে আবহাওয়াও কাজের পক্ষে অনুকূল ছিল। এই সময়ের মধ্যে ভাঙন রোধের চেষ্টা করা যেতেই পারত। কিন্ত, ফারাক্কা ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ সেই ধরনের কোনো উদ্যোগ নেয়নি। ফলে নতুন করে ভাঙনে আবার উদ্বাস্তু হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। এদিন বিকেল পাঁচটা নাগাদ আচমকাই নদী ভাঙন শুরু হয়। মুহুর্তের মধ্যে একের পর এক পার নদীতে ধসে পড়তে থাকে। আতঙ্কিত হয়ে লোকজন নদী পাড়ে ভিড় করেন। বিকেলের পর সন্ধ্যায় অন্ধকার নামলেও ভাঙনের তীব্রতা কমেনি। এতেই দুশ্চিন্তা বেড়েছে নদী পাড়ের মানুষের। শনিবার সকাল থেকে ফের বাড়িঘর ভেঙে সরানোর প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন অনেকেই।

সেবক দেবশর্মা

Published by: Piya Banerjee
First published: September 19, 2020, 12:01 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर