Home /News /north-bengal /

রাজ্যে তৃণমূল-বিজেপি-র বিক্ষুব্ধদের নতুন জোট! দলকে শিক্ষা দিতে নির্দল প্রার্থী

রাজ্যে তৃণমূল-বিজেপি-র বিক্ষুব্ধদের নতুন জোট! দলকে শিক্ষা দিতে নির্দল প্রার্থী

West Bengal First Phase Election

West Bengal First Phase Election

নির্দল প্রার্থী হিসেবে ডুয়ার্সের রাজবংশী সম্প্রদায়ের সংগঠন রাজবংশী যুব মোর্চার সভাপতি পেশায় অধ্যাপক নির্মল চন্দ্র রায়কে বেছেছেন দু' দলের বিক্ষুব্ধ কর্মীরা৷

  • Share this:

    #ধূপগুড়ি: তৃণমূল- বিজেপি আসলে একই বলে কটাক্ষ করছে বাম- কংগ্রেস৷ গোটা রাজ্যেই তৃণমূল- বিজেপি-র মধ্যে ভোট ঘিরে সংঘাত তুঙ্গে৷ অথচ উল্টো ছবি জলপাইগুড়ির ধূপগুড়িতে৷ সেখানে দলীয় প্রার্থী নিয়ে ক্ষোভ থাকায় জোট বাঁধলেন তৃণমূল এবং বিজেপি-র বিক্ষুব্ধ কর্মী- সমর্থকরা৷ শুধু জোট বাঁধাই নয়, দু' দলের বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা মিলে নির্দল প্রার্থীও দাঁড় করিয়ে দিয়েছে ধূপগুড়িতে৷

    ধূপগুড়িতে এবার তৃণমূল প্রার্থী করেছিল বর্তমান বিধায়ক মিতালি রায়কে৷ আর বিজেপি প্রার্থী করে বিষ্ণুপদ রায়কে৷ কিন্তু তৃণমূল- বিজেপি দু' দলের নেতা- কর্মীদের একাংশের৷ দলীয় নেতৃত্বের কাছে দরবার করেও প্রার্থী বদল হয়নি৷ সেই ক্ষোভ থেকেই তলায় তলায় জোট বাঁধেন দুই দলের সমর্থকরা৷ শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত হয়, দুই দলের বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা মিলেই নির্দল প্রার্থী দাঁড় করানো হবে৷

    জানা গিয়েছে, নির্দল প্রার্থী হিসেবে ডুয়ার্সের রাজবংশী সম্প্রদায়ের সংগঠন রাজবংশী যুব মোর্চার সভাপতি পেশায় অধ্যাপক নির্মল চন্দ্র রায়কে বেছেছেন দু' দলের বিক্ষুব্ধ কর্মীরা৷ সূত্রের খবর, ধূপগুড়ি কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে এই নির্মল চন্দ্র রায়েরও নাম ছিল৷ নির্বাচনের আগে তাঁকে ধূপগুড়ি গার্লস কলেজে বদলি করে আনা হয়৷ মনে করা হয়েছিল, প্রার্থী করার জন্য শাসক দলের উদ্যোগেই এই নির্মলবাবুকে স্থানীয় কলেজে বদলি করা হয়েছে৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত বর্তমান বিধায়ক মিতালিদেবীকেই টিকিট দেয় শাসক দল৷ ফলে প্রার্থী না হতে পেরে ক্ষোভ ছিল নির্মলবাবুর৷

    অন্যদিকে তৃণমূলের বিক্ষুব্ধ কর্মীদের অভিযোগ, বর্তমান বিধায়ক মিতালিদেবীর বিরুদ্ধে চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে টাকা নিয়ে ভুয়ো নিয়োগপত্র দেওয়ার মতো গুরুতর অভিযোগ রয়েছে৷ আবার বিজেপি কর্মীদের একাংশের দাবি, তাঁদের দল যাঁকে প্রার্থী করেছে সেই বিষ্ণুপদ রায় সেভাবে কোনওদিনই বিজেপি-র সঙ্গে যুক্ত ছিলেন না৷ এলাকায় তাঁর পরিচিতিও নেই৷ ফলে এমন একজনকে প্রার্থী করায় ধূপগুড়ির মতো আসনে দলের জয়ের সম্ভাবনা কার্যত শেষ হয়ে গিয়েছে৷

    এই পরিস্থিতিতে রাজবংশী আবেগকে কাজে লাগিয়েই বাজিমাত করতে একজোট হয়েছেন দু' দলের বিক্ষুব্ধ সমর্থকরা৷ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শিবির বদলের নানা ঘটনা ঘটছে গোটা রাজ্যে৷ কিন্তু ধূপগুড়িতে দলবদল না করে বিক্ষুব্ধ কর্মীরা নিজেদের দলকে শিক্ষা দিতে অভিনব পন্থা অবলম্বন করলেন৷

    Rocky Chowdhury>
    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    Tags: BJP, TMC, West Bengal Assembly Election 2021

    পরবর্তী খবর