corona virus btn
corona virus btn
Loading

প্রথা মেনে কোচবিহারে রাস উৎসবের সূচনা

প্রথা মেনে কোচবিহারে রাস উৎসবের সূচনা
File Photo

চিরাচরিত প্রথা মেনেই কোচবিহারে চলছে ২০৫ বছরের প্রাচীন রাসমেলা।

  • Share this:

#কোচবিহার: জেলায় জেলায় শুরু হয়েছে রাস উৎসব। চিরাচরিত প্রথা মেনেই কোচবিহারে চলছে ২০৫ বছরের প্রাচীন রাসমেলা। মদনমোহন মন্দিরে রাস উৎসব দেখতে ভিড় জমিয়েছেন দেশ, বিদেশের পর্যটকরা। কোচবিহারের পাশাপাশি রাস উৎসবে জমজমাট কাটোয়ার দাঁইহাটও। চারদিকে থিমের ছড়াছড়ি। শান্তিপুরে চলছে ভাঙা রাসের প্রস্তুতি।শান্তিপুরের বিখ্যাত গোস্বামী বাড়ির পুজো ঘিরে জমজমাট হয়ে ওঠে শান্তিপুরে।

চিরাচরিত প্রথা মেনে কোচবিহারে শুরু হয়েছে ২০৫ বছরের রাসমেলা।শুক্রবার রাতে রাসচক্র ঘুরিয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন দেবত্র ত্রাস্ট বোর্ডের সভাপতি তথা জেলাশাসক কৌশিক সাহা। পাশাপাশি, মেলার মাঠে রাসমেলার উদ্বোধন করেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ ও পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। ১৮১২ সালে কোচবিহারের রাজা হরেন্দ্রনারায়ণ রাস পূর্ণিমার দিন ভেটাগুড়ির রাজপ্রাসাদে প্রবেশ করেছিলেন। সেই উপলক্ষে বসে প্রথম মেলা। পরে রাজপ্রাসাদ স্থানান্তরিত হয় কোচবিহারে। বৈরাগী দিঘির পাড়ে গড়ে ওঠে মদনমোহন মন্দির। এরপর থেকে সেখানেই শুরু হয় রাস উৎসব ও মেলা । রাজ্যের পাশাপাশি মেলা দেখতে ভিড় জমান দেশ-বিদেশের পর্যটকরা।

কোচবিহারের পাশাপাশি, কাটোয়ার দাঁইহাটেও জমজমাট রাস উ‍ৎসব। প্রায় চারশো বছরের পুরোনো উৎসবে সামিল হন স্থানীয়রা। এখানে উৎসবের ঐতিহ্য শাক্ত ও বৈষ্ণবদের মিলন। পুজোয় রয়েছে থিমের ছোঁয়াও। শান্তিপুরে শুরু হয়েছে ভাঙা রাসের প্রস্তুতি। নবদ্বীপের সঙ্গে একই সময়ে রাস উৎসব শুরু হলেও একই সময়ে বিসর্জন বা আড়ং হয় না শান্তিপুরে। বদলে বসে ভাঙা রাসের আসর। আলোর সাজে সেজে উঠেছে বিভিন্ন প্যান্ডেল। শান্তিপুরের বিখ্যাত গোস্বামী বাড়ির পুজো ঘিরে জমজমাট হয়ে ওঠে শান্তিপুরের ভাঙা রাস।

First published: November 4, 2017, 4:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर